নববর্ষে পেট পুরে ভালো-মন্দ খাবেন‚ এটাই তো স্বাভাভিক‚ তাই নয় কি? আর ঘরে ভালো-মন্দ রান্না হলে আমরা একটু বেশিই খেয়ে ফেলি | কিন্তু এরপরেই শুরু হয় অস্বস্তি | গ্যাস‚ অম্বল‚ পেট ফাঁপা অনেক কিছুই হতে পারে | এর চটজলদি সমাধান হতে পারে একটা অম্বলের ওষুধ | তখনকার মতো রিলিফ পেলেও আপনার হজম শক্তি আর এনার্জি লেভেল সঠিক মাত্রায় ফিরিয়ে আনতে কিন্তু পারবে না ওই ওষুধ | তাহলে কী করবেন? আপনাকে সেই কিন্তু কয়েকটা খাবারেরই সাহায্য নিতে হবে | আসুন দেখে নিন  জাঙ্ক বা প্রচুর তেল মশলা যুক্ত খাবার খাওয়ার পরে কোন খাবার খেতে হবে |

) টক দই : জাঙ্ক ফুড বা অতিরিক্ত মশলাদার খাবার পরের দিন সব সময় হালকা খাবার দিয়ে শুরু করবেন | অনেক সময় খাবার ইচ্ছাও থাকবে না | কিন্তু ব্রেক ফাস্ট স্কিপ করবেন না | এমন খাবার খান যা হজম করতে সহজ | যেমন টক দই | তবে খালি পেটে দই না খাওয়াই ভালো | দইতে এক ধরণের ব্যাকটেরিয়া থাকে যা পেটের গণ্ডগোল কমায় যা মিষ্টি খাবার এবং মদ্যপান করার ফলে হয় |

) গ্রিন টি : ভরপেট খাবার খাওয়ার পর আমাদের এনার্জি লেভেল একদম পড়ে যায় | এটা আবার ঠিক করতে এক কাপ গ্রিন টি খান | জাঙ্ক এবং মশলাদার খাবার খাওয়ার ফলে সেল ড্যামেজ হতে পারে | আর গ্রিন টি-তে উপস্থিত অ্যান্টি অক্সিডেন্ট তা রোধ করে | এছাড়াও গ্রিন টি খেলে ব্লাড সুগার লেভেল স্টেবেলাইজ হয় |

) জল : শরীর হাইড্রেটেড রাখা খুবই জরুরী | সারাদিন অল্প অল্প জল পান করুন | বিশেষত রাতে যদি জাঙ্ক আর মশলাদার খাবার খান তাহলে পরের দিন সকালে উঠে প্রথমে খালি পেটে এক গ্লাস জল পান করুন | এর ফলে শরীর থেকে ক্ষতিকারক টক্সিন বেরিয়ে যাবে‚ খাবার হজম হবে তাড়াতাড়ি এবং পেট ফাঁপা কমবে |

) ভেজি ওমলেট : হাই প্রোটিন ডিমের মধ্যে অ্যামাইনো অ্যাসিড থাকে যা শরীরে উপস্থিত টক্সিন যা জাঙ্ক খাবার আর মদ্যপানের থেকে হয়েছে তা ভাঙতে সাহায্য করে | অন্যদিকে ফাইবার রিচ পালং শাক এবং টমেটোর মতো সব্জি পেট ফাঁপা কমায় এবং সহজেই হজম করাতে সাহায্য করে | তবে ওমলেট বানানোর সময় চিজ‚ বেকন বাদ দিন | কারণ এর ফলে গ্যাস‚ পেটে মোচড়‚ পেটব্যথা হতে পারে |

) আদা বা পেপারমিন্ট চা : বদ হজম এবং পেট ফাঁপা খুব সহজেই সারিয়ে তোলে আদা চা বা পেপারমিন্ট দেওয়া চা | এই দুরকমের চা কেই antispasmodic মানা হয় | এর মানে এই চা পান করলে আপনার ডাইজেস্টিভ ট্র্যাক্টের মাসল রিল্যাক্স হবে এবং সহজেই কোনরকম পেট ব্যথা বা পেটে মোচড় না দিয়ে‚ পেট থেকে গ্যাস বেরোতে সাহায্য করবে |

) কলা : যদি বেশিমাত্রায় মদ্যপান করে থাকেন তাহলে ডিহাইড্রেশন হবে | এর ফলে শরীর থেকে পটাসিয়ামের মতো মিনারেল বেরিয়ে যাবে | পটাসিয়াম কলা আর ডাবের জলে পাওয়া যায় | তাই শরীরে পটাসিয়ামের ঘাটতি এই খাবার খেয়ে পূরণ করতে পারেন | শরীরে পটাসিয়াম কমে গেলে পেট ফাঁপা‚ গ্যাস এবং বদ হজম হয় |

) ওটমিল : অতিরিক্ত মশলাদার খাবার খাওয়ার ফলে যদি পেট খারাপ হয় তাহেল ওটস সব থেকে ভালো অপশন হতে পারে | এই অবস্থায় দই বা ডিম না খাওয়াই ভালো | ওটসে হেলদি ফাইবার থাকে যা পেট ঠান্ডা করে | সব থেকে ভালো হয় ওটসের সঙ্গে যদি খানিকটা নাসপাতি খেতে পারেন তো |

) তরমুজ বা অতিরিক্ত পানীয় যুক্ত যে কোনো ফল : তরমুজ‚ কমলা লেবু‚ মুসাম্বি‚ পিচ‚ আঙুর বা যে সব ফলে জলের মাত্র বেশি তেমন ফল খেলে শরীর হাইড্রেটেড থাকে | একই সঙ্গে শরীর থেকে যে মিনারেল আর ভিটামিন বেরিয়ে গেছে তাও ফিরে পাবেন | এছাড়াও এই ফলগুলোয় ফাইবার থাকে যা হজম করতে সাহায্য করে |

আরও পড়ুন:  মাতৃত্বের ননস্টপ ঢাক মেয়েদের মাথাটা খেয়েছে
- Might Interest You

NO COMMENTS