ঘন‚ উজ্জ্বল একমাথা চুল কে না পেতে চান? কিন্তু পলিউশন বা কেমিক্যাল দেওয়া শ্যাম্পুর ব্যবহারে চুল ওঠা‚ বা চুল নির্জীব হয়ে যাওয়া খুবই সাধারণ ঘটনা | কিন্তু ডায়েটে একটু অদল বদল ঘটালে পেতে পারেন আশানুরূপ ফল | তাহলে আজ থেকে এই খাবারগুলো খাওয়া শুরু করে দিন | তবে রাতারাতি ফল আশা করবেন না | কিন্তু নিয়মিত ব্যবহারে তফাত দেখতে পাবেন |

1) আমলকি : চুলে জন্য যা যা উপকারী তা মোটামুটি সবটাই পাওয়া যায় আমলকিতে | আমলকিতে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট ছাড়াও প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি আছে | যা মাথার স্ক্যাল্পের ইনফেকশন রোধ করে | এছাড়াও চুল পড়া কমায় | একই সঙ্গে চুল সাদা হতে দেয় না | এছাড়াও চুলের ঔজ্জ্বল্য বাড়ায় | তাই রোজ আমলকিকে নিজের ডায়েটে রাখুন | তাজা আমলকি খেতে পারেন বা এটা শুকিয়েও রেখে দিতে পারেন | এছাড়াও বাজারে অনেকরকমের আমলা ক্যান্ডি পাওয়া যায় তাও খেতে পারেন |

2) আমন্ড : আমন্ড বাদাম চুলের গোড়ায় পুষ্টি জোগায় | এবং একই সঙ্গে চুলকে করে তোলে মজবুত | এই বাদামে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড থাকে যা চুল কে করে তোলে মজবুত আর স্বাস্থ্যকর | রাতে পাঁচটা আমন্ড বাদাম ভিজিয়ে রখুন | সকালে খোসা সুদ্ধু বাদাম খেয়ে নিন | এছাড়াও দিনর যে কোনো সময় আপনি আমন্ড বাদাম খেতে পারেন |

3) বেল পেপার : ভিটামিন সি তে ভরপুর‚ফলে চুলকে করে তোলে মজবুত আর স্বাস্থ্যকর | সাধারণত লাল‚ হলুদ আর সবুজ এই তিন রঙের হয় বেল পেপার | তিনটেই সমান উপকারী | স্যালাডের সঙ্গে খেতে পারেন | বা অন্য খাবারের সঙ্গে মিশিয়েও খেতে পারেন | যাদের শরীরে ভিটামিন সির ডেফিসিয়েন্সি আছে তাদের জন্য বেল পেপার খুব ভালো অপশন হতে পারে |

4) ডিম : আমাদের শরীরের নিয়মিত অ্যামিনো অ্যাসিডের সাপ্লাই চাই | যা ডিম থেকে পাওয়া যায় | অ্যামিনো অ্যাসিড তাড়াতাড়ি চুলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে | রোজ ব্রেকফাস্টে দুটো করে ডিম খাওয়ার চেষ্টা করুন | এছাড়াও ডিম দিয়ে তৈরি হেয়ার প্যাকও খুব উপকারী | এছাড়াও স্বাস্থ্যকর চুলের জন্য দরকার বায়োটিন যা ডিমের মধ্যে পাওয়া যায় |

5) স্প্রাউট : যারা ডিম খান না তাদের শরীরে অ্যামিনো অ্যাসিডের ঘাটতি পূরণ করবে স্প্রাউট | এছাড়াও এতে ভরপুর প্রোটিন থাকে তাই হেয়ার গ্রোথের জন্যেও খুব কার্যকারী | এছাড়াও এটা সহজেই হজম করা যায় | অ্যামিনো অ্যাসিড আর প্রোটিন ছাড়াও এতে ফ্যাটি অ্যাসিড‚ ভিটামিন আর মিনারেল আছে যা চুলের স্বাস্থ্য বৃদ্ধি করে |

6) বিভিন্ন ধরণের ডাল : স্বাস্থ্যকর চুলের জন্য যে প্রধান দুটি জিনিস দরকার সেগুলো হলো প্রোটিন আর আয়রন | এই দুটোই ডালের মধ্যে পাওয়া যায় | এছাড়াও যার নিরামিষ খান তাদের জন্য ডাল সব থেকে ভালো অপশন হতে পারে |

9) সিট্রাস ফ্রুটস : কমলালেবু‚ মুসাম্বি‚ বেদানা‚ চেরি‚ কালো আঙুর এই সব ফলে ভরপুর ভিটমিন সি থাকে | এছাড়াও এতে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট থাকে যা মাথার স্ক্যাল্পের রক্ত চলাচল বৃদ্ধি করে | ফলে চুল পড়া কমে | এছাড়াও এই ফলগুলো খেলে চুলে নরম আর উজ্জ্বল হয় |

7) মাছ : মাছের মধ্যে বিভিন্ন ধরণের ভিটামিন আর ওমেগা-৩ অ্যাসিড থাকে | এছাড়াও এতে ভিটামিন B6, B12 আছে যা চুলের স্বাস্থ্য বৃদ্ধি করে আর মাথার স্ক্যাল্পে কোনরকমের ইনফেকশন হতে দেয় না | মাছ ছাড়া যে কোন সেল ফিস ও খেতে পারেন যেমন চিংড়ি মাছ বা কাঁকড়া | নিয়মিত খেলে রেড ব্লাড সেল বাড়ে এবং ফলিকল‚ স্ক্যাল্প আর চুল ভালো থাকে |

8) সব্জি : গাজর আর পালং শাককে বলা হয় চুলের ওয়ান্ডার ফুড | পালং শাকে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট থাকে এছাড়াও এতে Lutein থাকে | রোজ অল্প করে তাই পালং শাক আপনার ডায়েটে রাখুন | এছাড়াও রোজ এক গ্লাস করে যদি গাজরের রস খেতে পারেন তাহলে কয়েকদিনের মধ্যেই আপনার ত্বক আর চুলের ক্ষেত্রে তফাত দেখতে পাবেন | গাজর এমনিও খেতে পারেন |

আরও পড়ুন:  যথেষ্ট রঙিন হয়ে রঙ খেলতে বেরোন - হোলির ফ্যাশন

NO COMMENTS