কুচবিহার‚ তাহেরপুর না নদিয়া‚ কোথাকার জমিদারবংশ প্রথম তাদের ঠাকুরদালানে দুর্গোৎসব শুরু করেন‚ তা নিয়ে বিতর্ক আছে | এমনকী‚ কলকাতায় প্রথম বনেদী পুজোর শিরোপা নিয়েও টানাটানি চলে সাবর্ণ রায়চৌধুরী এবং নবকৃষ্ণ দেবের পরিবারের বর্তমান প্রজন্মদের মধ্যে | সেরকমই কলকাতার প্রথম বারোয়ারি পুজো বললেই এখন আলোচিত হয় বাগবাজার সর্বজনীন এবং সিমলা ব্যায়াম সমিতির নাম | কোথায় যেন চাপা পড়ে যায় ভবানীপুরের বলরাম বসু ঘাটের কথা | অনেকেই জানেন না আদি গঙ্গার পাশে এই ঘাটেই প্রথম শুরু হয়েছিল কলকাতার বারোয়ারি দুর্গা পুজো |

১৯১০ সালে ১২ জন স্বাধীনতা সংগ্রামী উদ্যোগ নিয়েছিলেন এই পুজোর | সেই থেকে বারো ইয়ার বা বারো জন বন্ধুর নামে কলকাতার মানচিত্রে স্থান পেল বারোয়ারি পুজো | এখন যাকে পরিশীলিত ভাষায় ডাকা হয় সর্বজনীন নামে |

বলা হয়‚ এই বারোজন বন্ধু চেয়েছিলেন‚ বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব হয়ে উঠুক সবার উৎসব | শুধু বনেদী বাড়ির সদস্যদের নয় | পুজোর জন্য বেছে নেওয়া হয়েছিল বলরাম বসু ঘাটকেই |

একসময় এই ঘাটে সতী হয়েছিলেন বর্ণ হিন্দু পরিবারের দুই স্বামীহীনা | মার্বেল ফলকে তাঁদের কীর্তি এখনও সংরক্ষিত কলকাতা জাদুঘরে | ঘাটে একটি স্থায়ী ঠাকুরদালান ছিলই | ১৯১০ সালে সেখানেই শুরু হয় পুজো | তত্ত্বাবধানে ভবানীপুর সনাতনী ধর্মোৎসাহিনী সভা |

আদি গঙ্গার সেই খাত সময়ের সঙ্গে আরও বেশি শীর্ণ হয়েছে | পলির সঙ্গে বেড়েছে আবর্জনাও | আজও‚ শতাধিক বছরের এই পুজোয় পালিত হয় কঠোর নিয়ম নিষ্ঠা | যা নাকি সচরাচর দেখা যায় না বারোয়ারী পুজোয় | যে কোনও সাবেকী বাড়ির পুজোকে নিয়ম নিষ্ঠায় টেক্কা দেবে এই বারোয়ারী পুজো |

এখনও এই দুর্গোৎসবে থাকেন পাঁচজন প্রধান পুরোহিত | তাঁদের সাহায্যকারী আরও পাঁচজন নবীন পুরোহিত | পাঁচ জন প্রধান পুরোহিতের মধ্যে একজন তন্ত্রধারক‚ একজন চণ্ডীপাঠ বিশেষজ্ঞ এবং একজন জপ বিশেষজ্ঞ | অন্য কোনও বারোয়ারী পুজোয় যা ভাবাও যায় না |

থিম তো দূর অস্ত | সাবেক ঘরানার এই বারোয়ারী সর্বজনীনে মাইক্রোফোনের ব্যবহারও সীমিত | সোনার গয়নায় সজ্জিত মা দুর্গার সামনে পুরোহিতের মন্ত্রপাঠ হয় উদাত্ত কণ্ঠে | কোনও মাইকের সামনে নয় | বাজে না কোনও রেকর্ডেড গান | পরিবর্তে বসে নহবৎ | যার সানাইয়ের সুরে পুজোর দিনগুলোয় বুঁদ হয়ে থাকে সাবেক কলকাতার এই পুরাতনী পাড়া |

আরও পড়ুন:  ২৫১ টাকায় স্মার্টফোনের কথা মনে আছে ? কী করছেন সংস্থার মালিক ? সব ক্রেতা হাতে কবে ফোন পাবেন ?

1 COMMENT