ইদানিং কি চুল আঁচড়ানোর সময় চিরুনিতে বেশি চুল আটকে থাকছে? বা ঘুম থেকে ওঠার পর বালিশের গায়ে একটু বেশিই চুল লেগে থাকছে? বা মাথায় হাত দিলেই হাতে বেশ খানিকটা চুল উঠে আসছে? দিনে ১০০টা অবধি চুল পড়া খুব সাধারণ ব্যাপার | কিন্তু তার থেকে বেশি চুল উঠে গেলে বেশ চিন্তার বিষয় | আমাদের মাথা থেকে চুল বিভিন্ন কারণে উঠে যেতে পারে যেমন স্ট্রেস‚ হর্মোনাল ইমব্যালেন্স‚ হেরিডিটি‚ অ্যানিমিয়া‚ ভিটামিন ডেফিসিয়েন্সি | পুরুষ এবং মহিলা দুজনেরই চুল ওঠার সমস্যা দেখা দিতে পারে |

এইবার প্রশ্ন হলো কী ভাবে চুল পড়া আটকাবেন? ডাক্তার‚ ওষুধপত্রের সাহায্য তো নিতেই পারেন | এছাড়াও এমন একটা জিনিস আছে যা মোটামুটি আমাদের সবার বাড়িতেই থাকে আর তার সাহায্যেও চুল পড়া কমাতে পারেন | ভাবছেন তো আমরা কোন জিনিসের কথা বলছি? বস্তুটা হলো পেঁয়াজ | হ্যাঁ‚ ঠিকই শুনেছেন পেঁয়াজ খুব সহজেই মাথায় চুল পড়া আটকাতে পারে |

আসুন দেখে নিন কীভাবে পেঁয়াজ মাথার চুল পড়া কমাতে সাহায্য করে |

ইনফেকশনের কারণে হোক বা অন্য কারণে পেঁয়াজ খুব সহজেই চুল পড়া কমায় | পেঁয়াজ অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল‚ এছাড়াও মাথার স্কাল্প পরিষ্কার ও নারিশড রাখে পেঁয়াজ | এটা হয় কারণ পেঁয়াজে দুটো অত্যন্ত জরুরী কেমিক্যাল পাওয়া যায় ফ্ল্যাভোনয়ডস আর alk(en)yl cysteine sulphoxides (ACSOs) |

পেঁয়াজে যে ফ্ল্যাভোনয়েডস পাওয়া যায় তা আবার অ্যান্টি ইনফ্ল্যামেটরি | যা চুল পড়া কমায় |

এছাড়াও পেঁয়াজে সালফার কম্পাউন্ড থাকে যা একই সঙ্গে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টি ফাংগাল | এর ফলে মাথার ইনফেকশন সেরে যায় আর চুল পড়া কমে |

উপরন্তু পেঁয়াজে আরো একতি কম্পাউন্ড আছে যার নাম Quercetin | অ্যান্টি ডিপ্রেশন ওষুধ‚ কেমোথেরাপি বা ইনফেকশন হলে চুল উঠে যেতে পারে | এই ক্ষেত্রে Quercetin চুল পড়া অনেকটা কমায় |

চুল পড়া বন্ধ করা ছাড়াও আরো একটা উপকার পাওয়া যায় পেঁয়াজের থেকে | চুলের ন্যাচারাল কালার ধরে রাখতে সাহায্য করে | পেঁয়াজে এনজাইম catalase আছে যা চুল সাদা হতে দেয় না |

পেঁয়াজের রস করে মাথার স্কাল্পে আর চুলে ভালো করে লাগিয়ে রাখুন | মাথায় রস লাগানোর পর হাল্কা হাতে ম্যাসাজ করুন | ৩০-৪০ মিনিট রাখার পর কোনো মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে নিন | সপ্তাহে দুই থেকে তিনবার করার চেষ্টা করুন |

আরও পড়ুন:  দুগ্গাপুজোয় কেমন ভাবে সাজাবেন আপনার ছোট্টটিকে?

NO COMMENTS