ইংরেজ‚ ভারত ছাড়ো !’ 

৭৫ বছর আগে গর্জে উঠেছিল দেশ | স্বাধীনতা আসতে সময় নিয়েছিল আরও ৫ বছর | মহাত্মা গান্ধীর নেতৃত্বে একসূত্রে গ্রন্থিত হয়েছিল আসমুদ্র হিমাচল | এই আন্দোলন কতটা সর্বাত্মক ছিল‚ তা নিয়ে বহু মতানৈক্য-তর্ক-বিতর্ক হয়েছে | এখন ঘটা করে ৭৫ তম বর্ষপূর্তি পালিত হলেও ১৯৪২ সালে বহু সংগঠনই গান্ধীজির পাশে দাঁড়ায়নি | ক্রিপস মিশনের প্রস্তাব ব্যর্থ হলেও গান্ধীজি পাশে পাননি মুসলিম লিগ‚ হিন্দু মহাসভা‚ কমিউনিস্ট পার্টি অফ ইন্ডিয়া‚ রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘের সমর্থন | 

সেই উত্তাল সময়ের পরে কেটে গেছে ৭৫ টি বসন্ত | আরও বহু বসন্ত কেটে যাবে | প্রজন্ম থেকে অন্য প্রজন্মের কানে অনুরণিত হবে  ইংরেজ ভারত ছাড়ো স্লোগান | তার অভিঘাত কতটা জোরালো থাকবে তার দায় অবশ্য বর্তায় আমাদের উপরেই | সেই দায় মনে রেখেই একবার স্মরণ করি ইউসুফ মেহেরাল্লিকে | এই সোশ্যালিস্ট নেতাই জন্ম দিয়েছিলেন সেই অবিস্মরণীয় স্লোগানের  ব্রিটিশ‚ কুইট ইন্ডিয়া !’

আমরা অনেকেই জানি এই স্লোগানের জন্মদাতা বোধহয় মহাত্মা গান্ধী | কিন্তু তা ভ্রান্ত ধারণা | জাতির জনক স্লোগান অনুমোদন করেছিলেন মাত্র | 

ফিরে যাই ৭৫ বছর আগে |

৮ অগাস্ট‚ ১৯৪২ | মুম্বইয়ের ( তখন বম্বে ) গোয়ালিয়া ট্যাঙ্ক ময়দানে ছিল অল ইন্ডিয়া কংগ্রেস কমিটির মিটিং | সভায় গান্ধীজি আহ্বান দিলেন ” British, Quit India . Do or Die ” | স্লোগানের দ্বিতীয় অংশ ডু অর ডাই বা করেঙ্গে ইয়া মরেঙ্গে অবশ্যই বাপুজির সৃষ্টি | কিন্তু প্রথম অংশটি তিনি বেছে নিয়েছিলেন |

আন্দোলনের কয়েকদিন আগে গান্ধীজি তাঁর একান্ত ঘনিষ্ঠ অনুগামীদের নির্দেশ দিয়েছিলেন উপযোগী স্লোগান তৈরি করতে | কে. গোপালস্বামী তাঁরগান্ধী অ্যান্ড বম্বে বইয়ে বলেছেন‚ অগাস্ট আন্দোলনের স্লোগান কিছুতেই পছন্দ হচ্ছিল না গান্ধীজির | 

প্রথমে তাঁকে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল স্লোগান হোক ‘ British, Get Out’ | কিন্তু তা অত্যন্ত দুর্বিনীত বলে গান্ধীজি বাতিল করে দেন | রাজাগোপালাচারী প্রস্তাব দেন‚ ‘Withdraw’ এবং ‘Retreat’ | তাতেও মন ভরেনি মহাত্মার | এরপর বম্বের তৎকালীন মেয়র তরুণ ইউসুফ মেহেরাল্লি তাঁকে প্রস্তাব দেন স্লোগান হোক ‘British, Quit India’ | শোনা মাত্রই গান্ধীজি বলেন ‚ ‘Amen’ | 

বম্বেতে বসেই শিলমোহর পড়ে ব্রিটিশ মসনদ তথা বিশ্ব কাঁপানো স্লোগানে | 

ভারত ছাড়ো বা অগাস্ট আন্দোলনের আগেও মেহেরাল্লি বলিষ্ঠ স্লোগানের জন্ম দিয়েছিলেন | ১৯২৮ সালে তাঁর কলমেই জন্ম নিয়েছিল ‘ Simon, Go Back!’

দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে শুধু স্লোগান তৈরিতেই সীমাবদ্ধ ছিল না ইউসুফ মেহেরাল্লির অবদান | মোট আটবার কারাগারে বন্দি করা হয়েছিল তাঁকে | ১৯৪২ সালে বন্দি অবস্থাতেই তিনি বম্বের মেয়র নির্বাচিত হন | সোশ্যালিস্ট নেতাদের মধ্যে তিনিই প্রথম এই পদ অলঙ্কৃত করেন | 

কংগ্রেস সোশ্যালিস্ট পার্টির প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন তিনি | পাশে পেয়েছিলেন রামমোহন লোহিয়া‚ অরুণা আসফ আলি‚ অচ্যুৎ পটবর্ধনের মতো নেতাদের | পাশাপাশি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন ন্যাশনাল মিলিশিয়া এবং বম্বে ইউথ লিগ | 

১৯৪৬ সালে কারাগর থেকে মুক্তি পান মেহেরাল্লি | স্বাধীন ভারতে ছিলেন সাংসদও | ১৯৫০-এর ২ জুলাই মাত্র ৪৬ বছর বয়সে এই স্বাধীনতা সংগ্রামী প্রয়াত হন বম্বে শহরে | 

আরও পড়ুন:  রাতের ঘুমে দেখা বিভিন্ন রহস্যময় স্বপ্নের অর্থপূর্ণ তাৎপর্য

NO COMMENTS