শরীর খারাপ হলে তা সারানোর সব থেকে ভালো উপায় হলো ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া | কিন্তু এমন অনেক শারীরিক অসুস্থতা আছে যা আপনি সহজেই ঠিক করে ফেলতে পারেন এমন কয়েকটা জিনিসের মাধ্যমে যা আপনার রান্নাঘরেই থাকে | আসুন দেখে নিন সে গুলো কী কী?

# ভিনিগার : রান্না করতে গিয়ে হাত পুড়ে গেছে? বা তেল ছিটকে হাতে ফোসকা পড়েছে? কোনো চিন্তা নেই আক্রান্ত জায়গায় ভিনিগার লাগিয়ে নিন | তবে বেশি পুড়ে গেলে অবশ্যেই সঙ্গে সঙ্গে ডক্তারের পরামর্শ নিন |

# টি-ব্যাগ : চা পাতায় উপস্থিত ক্যাফেন আর ট্যানিন শরীরের যে কোনো জায়গায় ফোলা ভাব কমাতে সহায্য করে | ঘুম থেকে উঠে যদি দেখেন চোখের তলা ফুলে গেছে তাহলে সেখানে ব্যবহৃত ঠান্ডা করা টি ব্যাগ দিন | এছাড়াও রক্ত জমাট বাঁধতে সাহায্য করে টি ব্যাগ | গরমকালে সূর্যের পোড়া  দাগ মেটাতেও সাহায্য করে টি ব্যাগ |

# অলিভ অয়েল : ফাঁটা ঠোঁট বা ত্বক নিমেষে ঠিক করে দেয় | এছাড়াও চুলের রুক্ষতা দূর করে | এছাড়াও পায়ের গোড়ালি নরম রাখতে ওই অংশে অলিভ অয়েল লাগিয়ে মোজা পরে থাকুন খানিকক্ষণ |

# অ্যাভোকার্ডো : এতে উপস্থিত ভিটামিন এ আর সি‚ এবং ক্যারোটিনয়ডস ইনফ্ল্যামেশনের কারণে হওয়া ত্বকের লাল ভাব কমায় এছাড়াও ত্বকের ড্রাইনেস বা তার থেকে হওয়া চুলকুনির হাত থেকেও আরাম দেয় | এছাড়াও একে ফেস মাস্ক হিসেবেও ব্যবহার করতে পারেন |

# জিঞ্জার বা পেপার্মিন্ট টি : বদ হজম‚ বা গ্যাস অম্বল‚ পেট ব্যথা‚ পেট খারাপ কমাতে সাহায্য করে আদা চা বা পেপার্মিন্ট টি |

# পেঁপে : চা খেয়েও যদি পেট ব্যথা না কমে তাহলে খানিকটা পাঁকা পেঁপে খেতে পারেন | এতে উপস্থিত এনজাইম প্যাপেন দ্রুত হজম করতে সহায্য করে |

# ওটস হার্ট তো ভলো রাখেই একই সঙ্গে ত্বক পরিষ্কার এবং অ্যাক্নে ফ্রি রাখে | খানিকটা ওটস অল্প একটু গরম জলে মিশিয়ে একটা পেস্ট বানিয়ে ত্বকে লাগান | কিছুক্ষন রেখে হাল্কা ম্যাসাজ করে ধুয়ে নিন | এছাড়াও মশা কামড়ালে‚ একজিমা হলে‚ ত্বকের ট্যান তুলতে ওটসের জুড়ি নেই |

# রসুন : এই প্রাকৃতিক অ্যান্টি মাইক্রোবিয়াল কমন কোল্ড সারাতে সাহায্য করে | এতে উপস্থিত অ্যালিসিন ব্যাকটেরিয়া আর ভাইরাস কে মেরে ফেলে | ঠান্ডা লেগে সর্দি হলে কয়েক কোঁয়া কাঁচা রসুন চিবিয়ে খান |

আরও পড়ুন:  ফলের খোসা ফেলে দেওয়ার আগে ভেবে দেখুন

NO COMMENTS