শিলান্যাস হতে চলেছে বহু প্রতীক্ষিত বুলেট ট্রেন প্রকল্পের | দেশের গতিতে ডানা যোগ করবে মুম্বই-আহমেদাবাদ রুটে‚ দেশে সর্বপ্রথম | আসুন‚ এখে নিই এর বিশেষত্ব |

# থাকবে সর্বসাধারণের নাগালে | টিকিটের দাম হবে রাজধানী এক্সপ্রেসের এসি টু টিয়ার শ্রেণীর সমতুল্য | বলা যেতে পারে বিমান ভাড়ার থেকে কম |

# এক্সিকিউটিভ ও ইকোনোমি ক্লাস মিলিয়ে ১৬ টি কামরায় প্রায় ১২৫০ জন যাত্রীর যাতায়াত সম্ভব এক বারে |

# প্রকল্পের ডেডলাইন ২০২২-এর ১৫ অগাস্ট | প্রাথমিক ভাবে চলবে ৩৫ টি ট্রেন | ২৪ টি আসবে জাপান থেকে | বাকিগুলো তৈরি হবে ভারতে |

# থাকবে ব্রেস্ট ফিডিং-এর জন্য আলাদা জায়গা | টয়লেটের ক্ষেত্রে বিশেষ ব্যবস্থা বাচ্চা ও বৃদ্ধ ও প্রতিবন্ধীদের জন্য |

# মুম্বই ও আহমেদাবাদ‚ দুই শিল্পতালুকের মধ্যে ৫০৮ কিমি দূরত্ব ১২ টা স্টেশনে পাড়ি দেবে বুলেট ট্রেন | নির্ধারিত কিছু স্টেশনে থামলে পুরো যাত্রাপথ পাড়ি দিতে সময় লাগবে ২ ঘণ্টা ৭ মিনিট | যদি সব স্টেশনে গাড়ি দাঁড়ায় তবে সময় লাগবে প্রায় তিন ঘণ্টা |

# সর্বনিম্ন গতিবেগ হবে ৩২০ কিমি / ঘণ্টা পিছু | সর্বোচ্চ গতিবেগ প্রতি ঘণ্টায় ৩৫০ কিমি |

# মোট যাত্রাপথের ২১ কিমি টানেলে | তার মধ্যে ৭ কিমি গেছে সমুদ্রের নিচ দিয়ে |

# প্রকল্পে ব্যয় হবে ১১০০০০ কোটি টাকা | তার মধ্যে জাপান দিচ্ছে ৮৮০০০ কোটি টাকা‚ নামমাত্র সুদে |

# প্রকল্প রূপায়িত হলে নরেন্দ্র মোদীর মেক ইন ইন্ডিয়া লক্ষ্য অনেকটাই সাধিত হবে বলে আশা কেন্দ্রের | কর্মসংস্থান হবে ২০ হাজার মানুষের | তাঁদের বিশেষ ভাবে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে | এই লক্ষ্যে বরোদায় হাই স্পিড রেল ট্রেনিং ইনস্টিটিউটের কাজ শুরু হয়েছে |

আরও পড়ুন:  তরুণ শ্রমণকে বশ করতে ব্যর্থ হয়ে নিজেও সন্ন্যাস নিয়েছিলেন রূপের আগুন নগরবধূ আম্রপালী

NO COMMENTS