কঙ্গনা রানাওয়াত আর হৃতিক রোশনের আইনি যুদ্ধ দিন কে দিন ভয়াবহ হয়ে উঠছে | সম্প্রতি নাকি কঙ্গনার বিরুদ্ধে বেশ কিছু প্রমাণ পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছেন হৃতিক | এই বছরের এপ্রিল মাসে কঙ্গনার বিরুদ্ধে ২৯ পাতার অভিযোগ দায়ের করেন হৃতিক | উনি অভিযোগ করেন কঙ্গনা নাকি মানসিক ভাবে অসুস্থ | এতদিন এই ব্যাপারে চুপ থাকলেও সম্প্রতি কঙ্গনার বোন রঙ্গোলি চান্দেল জানিয়েছেন ২০১৪ সালে নাকি হৃতিক ডিপ্রেশনে আক্রান্ত হয়ে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করেছিলেন |

রঙ্গোলি টুইট করে জানান হৃতিকের মতে কঙ্গনা নাকি মানসিক অসুস্থতার শিকার হয়েছে | কয়েকটা নকল ইমেল ছড়া ওর কাছে কোনরকম মেডিক্যাল প্রমাণ নেই | কিন্তু আমি অসংখ্য প্রমাণ পেশ করতে পারি | ২০১৪-তে মাথার অপারেশনের পর ওর কী হয়েছিল | ওই সময় হৃতিককে আরফিন খানের কাছে থেরাপি নিতে হয় ডিপ্রেশন আর আত্মহত্যার প্রবণতা কাটিয়ে ওঠার জন্য | 

ইতিমধ্যেই শোনা যাচ্ছে পুলিশ নাকি হৃতিকের থেকে প্রমাণ পাওয়ার পর আরো একবার তদন্ত আরম্ভ করেছে | অন্যদিকে কঙ্গনার আইনজীবী রিজওয়ান সিদ্দিকি অভিনেত্রীর হয়ে একটা বিবৃতি প্রকাশ করেন | সেই বিবৃতিতে এক জায়গায় লেখা  এইসব কৌশন অবলম্বন না করে প্রকাশ্যে ২০১৬-র এপ্রিলে ওকে যে সব প্রশ্ন করা হয়েছিল তার উত্তর দিন | সত্যিটা তাড়াতাড়ি সামনে আসবে | সত্যিটা কেউ বদলে দিতে পারবে না | 

আরও পড়ুন:  দীপিকার জন্য পাগল সুশান্ত‚ ওঁর সঙ্গে কাজ করার জন্য সব কিছু ছাড়তে পারেন তিনি!?

NO COMMENTS