পুরুষ শাসিত কলকাতার জমিদারি-মানচিত্রে রানি রাসমণি ছিলেন উজ্জ্বল ব্যতিক্রম | ১৭৯০ সনে দুর্গোৎসব শুরু হয় জানবাজারের জমিদার রাজচন্দ্র দাসের জমিদারিতে | বাবু রাজচন্দ্রের মৃত্যুর পরে জমিদারি এবং দুর্গাপুজোর ধারা নিজের কাঁধে তুলে নেন স্ত্রী রাসমণি দেবী | সেই পুজো আজ ভেঙে তিন টুকরো | তবে প্রতি পুজোই বয়ে চলেছে বনেদিয়ানা আর ঐতিহ্যের স্বাক্ষর |

১৭৯০ সালে ব্রিটিশ কলকাতায় নিজের কাছারি বাড়িতে প্রথম দুর্গা পুজো করেন রানি রাসমণি | এখানে এসে আরাধনা করেছেন রামকৃষ্ণ পরমহংস দেবও | শোনা যায়‚ লোকের ভিড় এড়াতে তিনি এসেছিলেন মহিলার সাজে | এসে হাত লাগিয়েছিলেন পুজোর কাজে | চামর দুলিয়ে বাতাস করেছিলেন প্রতিমাকে |

১৮৬১ সালে রানি রাসমণির মৃত্যুর পরে ভাগ হয়ে যায় পারিবারিক শারদোৎসব | রানির এক এক জন মেয়ে-জামাইয়ের পরিবার এক একটি পুজোর দায়িত্ব নেয় |

সেদিনের কাছারি বাড়িতে আজও পুজো হয় | এই পুজো দেখার জন্য প্রবেশ করতে হবে ফ্রি স্কুল স্ট্রিটের প্রবেশদ্বার দিয়ে | পুজোর দায়িত্বে থাকে হাজরা পরিবার | এটি কলকাতার বিরল ভবন‚ যার ঠিকানা দুটি | একটি অংশ আছে ফ্রি স্কুল স্ট্রিটে | অন্যটি এস এন ব্যানার্জি রোডে |

এই এস এন ব্যানার্জি রোডের প্রবেশদ্বার দিয়ে পা রাখলে আবার সামনে পড়ে আর একটি পুজো | সেটির তত্ত্বাবধানে আছে চৌধুরী পরিবার | রাস্তার ঠিক উল্টোদিকে দাঁড়িয়ে আছে রানি রাসমণির সুবিশাল বসতবাড়ি‚ রানি রাসমণি ভবন | সেখানে ঠাকুরদালানে আয়োজিত হয় এই পরিবারের তৃতীয় দুর্গা পুজো | যার পরিচালনার দায়িত্বে থাকে বিশ্বাস পরিবার |

পুজো ত্রিখণ্ডিত হলেও টান পড়েনি আভিজাত্য আর সাবেকীয়ানায় | রানি রাসমণির উত্তরসূরীদের দ্বারা পরিচলিত তিনটি পুজোতেই পরতে পরতে জড়িয়ে আছে পুরাতনী গন্ধ |

আরও পড়ুন:  দক্ষিণেশ্বর মন্দিরের এক চিলতে নহবতখানাতেই বিশ্বরূপদর্শন‚ জগজ্জননীর প্রতিমূর্তি তিনিই

1 COMMENT

  1. Information ti bhul….puja ranina sasur moha siter samay suru hoy.. rani rash ini bhubon ti onar bosot bari na…ota rani maar natir toiri