আর কদিনের মধ্যে বিয়ের মরশুম আরম্ভ হয়ে যাবে | হয়তো আপনার প্রিয় বন্ধুর বিয়ে হচ্ছে বা কাছের কোনো আত্মীয়ের‚ কিন্তু ঘরে ছোট বাচ্চা আছে তাই আপনি ভাবছেন বিয়ে বাড়ি যাবেন কি না? চিন্তা করবেন না‚ বিয়েবাড়িতে যাওয়ার আগে কয়েকটা জিনিস মাথায় রাখলেই দেখবেন বাচ্চাকে সঙ্গে করে বিয়ে বাড়ি অ্যাটেন্ড করাটা খুব একটা কঠিন ব্যাপার মনে হবে না | আজকে রইলো কয়েকটা সহজ এবং প্রাকটিক্যাল টিপ্স যা আপনাকে সাহায্য করবে |

) অন্তত তিন সেট জামাকাপড় সঙ্গে রাখুন : বাচ্চারা খুব সহজেই জামাকাপড় নোংরা করে ফ্যালে | তাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে বিয়ে বাড়িতে যাওয়ার সময় বাচ্চার অন্তত দুসেট জামাকাপড় সঙ্গে রাখা | যদি দূরে কোথাও বিয়েবাড়িতে যান তাহলে আরো কয়েকটা নিয়ে যান |

) পর্যাপ্ত খাবার সঙ্গে রাখুন : একেবারে ছোট বাচ্চা হলে সঙ্গে অবশ্যই দুধের বোতল রাখুন | দুধের বোতল সব সময় স্টেরেলাইজ করে তবেই ব্যবহার করবেন | এছাড়াও সব সময় সঙ্গে জলের বোতল সঙ্গে রাখুন |

) এক্সট্রা ডায়াপার ক্যারি করুন : যেহেতু কোলের শিশুরা লিকুইড বা সেমি লিকুইড খাবার খায় তাই ইউরিনেট বেশি করে | তাই অবশ্যই এক্সট্রা ডায়াপার সঙ্গে রাখুন |

) কয়েকটা খেলনা প্যাক করে নিন : বিয়েবাড়িতে আপনি বন্ধু আত্মীয়স্বজন খাওয়াদাওয়া এইসব নিয়ে ব্যস্ত থাকবেন | সেই সময় আপনার বাচ্চার এন্টারটেনমেন্টের জন্য তার প্রিয় খেলনা সঙ্গে নিয়ে যান |

) একটু বড় বাচ্চাদের জন্য সহজ পাচ্য খাবার সঙ্গে রাখুন : টডলারদের জন্য সঙ্গে খাবার রাখুন | বিস্কুট‚ ডাই ফ্রুট‚ ওটস‚ ক্র্যাকার্স এইসব খাবার সঙ্গে রাখুন যা বাচ্চাকে সহজেই খাওয়াতে পারবেন |

) বেবি প্র্যাম সঙ্গে রাখুন : একজায়গায় বাচ্চারা বসে থাকতে মোটেই ভালোবাসে না | কিন্তু সারাক্ষণ বাচ্চাকে কোলে নিয়ে ঘোরাও সম্ভব নয় | তাই অবশ্যই প্র্যাম সঙ্গে নিন | এতে বসিয়ে বাচ্চাদের সহজেই ঘোরাতে পারবেন | এছাড়া বাচ্চারা কিছুক্ষণ পর পরই ঘুমিয়ে পরে‚ প্র্যাম থাকলে তাতেই সে আরাম করে ঘুমোতে পারবে |

) শীতকালে বিয়ে হলে একটা ছোট কম্বল সঙ্গে রাখুন : যেহেতু শীতকালেই বেশিরভাগ বিয়েবাড়ি হয়‚ বাচ্চাদের সহজেই ঠান্ডা লেগে যেতে পারে | এই পরিস্থিতি এড়াতে ব্যগে একটা ছোট কম্বল নিয়ে নিন |

) মায়েরা স্টিলেটো জুতো এড়িয়ে চলুন : জানি বিয়েবাড়িতে সব মহিলারাই হিল জুতো পরতে পছন্দ করেন | কিন্তু সঙ্গে ছোট বাচ্চা থাকলে কোনমতেই হিল পরা চলবে না | ছোট বাচ্চাকে কোলে করে চলার সময় হিল জুতো পরে হোঁচট খাওয়া মোটেই ভালো জিনিস হবে না | এছাড়াও দীর্ঘসময় কোলে বাচ্চা থাকলে পায়ে কোমরে ব্যথা করতে পারে | এর ওপর হিল আরো বেশি অস্বস্তিকর হতে পারে | স্টিলেটোর বদলে জুতি‚ বা প্ল্যাটফর্ম হিল বা কিটেন হিল বেছে নিন |

) মায়েরা স্বাচ্ছন্দ্যকর পোশাক পরুন : হ্যাঁ‚ মানছি বিয়ে বাড়িতে ভারী শাড়ি পরটাই রীতি | কিন্তু সঙ্গে বাচ্চা থাকলে যতটা পারবেন এমন পোশাক পরুন যাতে আপনি স্বাচ্ছন্দ্য অনুভব করবেন | বিয়েবাড়িতে শাড়িই পরতে হবে এমন কোনো কথা নেই | কাজ করা সালোয়ার কামিজ পরতে পারেন বা লং স্কার্ট ও পরতে পারেন | তবে পাথর লাগানো বা জরি চুমকি লাগানো পোশাক এড়িয়ে চলুন কারণ কোলে থাকা অবস্থায় এইগুলো বাচ্চার গায়ে ফুটে যেতে পারে | মনে রাখবেন পোশাক যত বেশ আরামদায়ক হবে তত ভালো বাচ্চাকে ম্যানেজ করতে পারবেন |

১০ ) ভারী গয়না এড়িয়ে চলুন : বাচ্চারা চকচকে জিনিসের প্রতি প্রবল আকর্ষণ বোধ করে | যেমন বড় কানের দুল‚ জমকালো হার প্রভৃতি | তাই নিজেকে আহত হওয়ার হাত থেকে বাঁচানোর জন্য যতটা সম্ভব কম জুয়েলারি পরুন |

আরও পড়ুন:  তার পর থেকে নিজের বাড়ির দুর্গোৎসবে সন্ধি পুজো বন্ধ করে দিলেন নাট্যাচার্য গিরীশ চন্দ্র ঘোষ

NO COMMENTS