কলকাতা বইমেলার মূল মঞ্চে দেওয়া হল ‘উড়ালপুল’ সাহিত্য পুরস্কার

    0
    121

    অনাবাসী বাঙালিদের ‘উড়ালপুল’ পত্রিকার পক্ষ থেকে এবছর কলকাতা বইমেলায় পাঁচজনকে সাহিত্য পুরস্কার দেওয়া হল। এস বি আই অডিটোরিয়ামে এই পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়। এর আগে এই পুরস্কার পেয়েছেন সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়, নবনীতা দেবসেন, সুবোধ সরকার প্রমুখ। এবছর এই পুরস্কার পেলেন বাঙালি সাহিত্যিকদের পাশাপাশি সর্বভারতীয় স্তরের হিন্দিভাষী কবি অশোক বাজপেয়ীও। যাঁরা ভারতীয় সাহিত্যের অনুরাগী তাঁদের কাছে অশোক বাজপেয়ী পরিচিত। সাহিত্য আকাদেমি পুরস্কারও তিনি পেয়েছেন। যদিও গতবছর এই পুরস্কার ফিরিয়েও দেন তিনি। তাঁর হাতে শক্তি চট্টোপাধ্যায়ের নামাঙ্কিত উড়ালপুল পুরস্কার তুলে দেন বাংলার তথ্যপ্রযুক্তি ও বৈদ্যুতিন মন্ত্রী ব্রাত্য বসু। এছাড়া পুষ্প লিটল ম্যাগাজিন পুরস্কার পেয়েছে ‘কিঞ্জল’ পত্রিকা। কবি জয়দেব বসু পুরস্কার পেয়েছেন বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়। শিশিরকুমার দাশের নামে নাটক ও প্রবন্ধ সাহিত্যের জন্য পুরস্কার পেয়েছেন পুলক চন্দ। পাশাপাশি, এ বছর হরেন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায় পুরস্কার পেয়েছেন আলিপুরদুয়ারের তরুণ কবি অরুণাভ রাহারায়। তাঁর হাতে এই পুরস্কার তুলে দেন ‘উড়ালপুল’ পত্রিকার সম্পাদক আমেরিকাবাসী কবি গৌতম দত্ত।

    মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট কবি সুবোধ সরকার। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে ছিল মুখোমুখি আলাপচারিতা। অংশ নেন আশোক বাজপেয়ী, সুবোধ সরকার এবং ব্রাত্য বসু। সমগ্র অনুষ্ঠানটি সুচারু সঞ্চালনা করেন কৌষিকী দাশগুপ্ত।

    উড়ালপুল শক্তি চট্টেপাধ্যায় সাহিত্য পুরস্কার ২০১৭ পেলেন হিন্দিভাষী কবি অশোক বাজপেয়ী।

    “আমরা কেঁচোর মত
    পাতার আড়ালে লুকিয়ে বাঁচি” – অশোক বাজপেয়ী

    অশোক বাজপেয়ীর সঙ্গে আলাপ ১৯৮৬ সালে নিউ ইয়র্ক্ শহরে। আমেরিকায় ভারত উৎসব উপলক্ষে সঙ্গে এনেছিলেন সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়, নবনীতা দেবসেন, কেদারনাথ সিং প্রমুখ ভারতের বিভিন্ন প্রদেশের বিখ্যাত কবিদের। সেই আমার আলাপ সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে। যা আমাকে ঋনী করেছে বন্ধুত্বে, সাহিত্যে, সান্নিধ্যে, পিতৃত্বে ২৬ বছর ধরে। শিখিয়েছেন ভাল মানুষ হতে।

    ২৩টা কবিতার বই, সাহিত্য একাডেমীসহ বিভিন্ন পুরস্কারে বিভূষিত এই হিন্দি ভাষী কবি আসছেন উড়ালপুলের মতন এক লিটিল ম্যাগাজিনের পুরস্কার গ্রহন করতে এতে আমরা গর্বিত!

    “সত্যি বলতে, আমি তো আর লিখতে আসিনি
    ডিনামাইট প্রাইজ পাবো বলে;
    এবং সেটা পাওয়াও যায়- না লোক্যাল ভাষায় লিখে “ ( চতুর্দশপদী ৪০)
    – কবি জয়দেব বসু
    উড়ালপুল জয়দেব বসু সাহিত্য পুরস্কার ২০১৭ পেলেন
    কবি বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়

    বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায় এই সময়ের একজন প্রধান কবি ও গদ্যকার। তার প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থের সংখ্যা ১৪, প্রকাশিত উপন্যাসও ১৪টি। অকারণ দুর্বোধ্যতায় ভর দিয়ে নয়, সময়ের সম্পাদ্য কষতে কষতেই মহাসময়ে পা রাখে তার কবিতা।
    কবিতার জন্য পেয়েছেন কৃত্তিবাস, বাংলা আকাদেমি শক্তি চট্টোপাধ্যায় স্মৃতি পুরস্কার, ভাষানগর পুরস্কার। গদ্যের জন্য শর্মিলা ঘোষ স্মৃতি পুরস্কার। আইওয়া গেছেন, দু’বার বংগ সম্মেলনেও যোগ দিয়েছেন।

    বিনায়ক-“আন্তর্জাতিক কবিতা পত্রিকা উড়ালপুল তাদের সাহিত্য পুরস্কারে এবছর সম্মানিত করছেন আমায়। পুরস্কারটির নাম এবছর থেকে জয়দেব বসু, জয়দেবদার, নামে হওয়ায় আনন্দ এবং বেদনা একত্রে অনুভূত হচ্ছে। গৌতম গ্যারি দত্তকে ধন্যবাদ, আমেরিকায় থেকেও বাংলা কবিতা ও সাহিত্য নিয়ে নিরলস কাজ করে যাবার জন্য।”

    উড়ালপুল ড:শিশিরকুমার দাশ সাহিত্য পুরস্কার ২০১৭ পেলেন পুলক চন্দ (গবেষণামূলক কাজের স্বীকৃতি)।

    ১৯৮৮ সাল থেকে কবি সমর সেনের ওপর অসামান্য গবেষণামূলক কাজের বই প্রকাশিত (দেজ) করেছেন।
    কবি শঙ্খ ঘোষ লিখেছেন : ” গবেষকের মন তাঁর, নানারকম পুঙ্খানুপুঙ্খের খোঁজে সবসময় নিরত রাখেন নিজেকে”

    অরুণাভ রাহারায় পেলেন উড়ালপুল হরেন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায় ২০১৭

    অরুণাভ রাহারায়। জন্ম ১৯৯১ সালে, উত্তরবঙ্গের আলিপুরদুয়ার শহরে। উচ্চ শিক্ষার জন্য কলকাতাযাত্রা। ২০১১ সালে কলেজে প্রথম বর্ষের ছাত্রাবস্থাতেই তাঁর কবিতা ‘দেশ’ পত্রিকায় প্রকাশিত হয়। লিটল ম্যাগাজিনেই প্রকাশ পেয়েছে তাঁর কবিতা। ভাষানগর, কৃত্তিবাস, রক্তমাংস, যাপনচিত্র, অগ্রবীজ তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য। ২০১৩-২০১৫ এই সময়কালে কবিতা নির্বাচক হিসেবে কাজ করেছেন একটি বানিজ্যিক পত্রিকায়।
    এ যাবৎ দুটি কবিতাগ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে— ‘সবুজ পাতার মেঘ’(২০১০) ও ‘দিনান্তের ভাষা’(২০১৫)।

    ৪০ বছর ধরে প্রকাশিত কিঞ্জল লিটিল ম্যাগাজিন পেল উড়ালপুল পুষ্প লিটল ম্যাগ ২০১৭ পুরস্কার। কিঞ্জল লিটিল ম্যাগাজিন-এর পক্ষ থেকে সম্পাদক চন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায় পুরস্কার গ্রহণ করেন।

    SHARE

    LEAVE A REPLY