‘আশা করি আমার ছেলে বেঁ্চে আছে’

‘আশা করি আমার ছেলে বেঁ্চে আছে’ | এটাই এখন এগিয়ে চলার মূলমন্ত্র Santanu Pal-এর্ |
মধ্য়বয়সী এই বাঙালি এখন Manchester-এ আছেন্ | তাঁ্র ছেলে Souvik এক সপ্তাহেরও বেশিদিন ধরে নিখোঁ্জ্ | ইং্ল্য়ান্ডের এই শহর থেকেই উধাও হয়ে গেছেন তিনি | তদন্তের কাজে পুলিশকে সাহায্য় করার জন্য় এখন Manchester-
এই থাকছেন শান্তনুবাবু | তাঁ্র বিশ্বাস, হয় তাঁ্র ছেলে শৌভিক স্বেচ্ছায় লুকিয়ে আছে | নয়তো তাঁ্কে বাধ্য় করা হচ্ছে লুকিয়ে থাকতে |

১৯ বছরের শৌভিক পাল Bangalore থেকে Manchester-এ উচ্চশিক্সার জন্য় পাড়ি দেন্ |Manchester Metropolitan University-র ছাত্র তিনি | ৩১ ডিসেম্বর রাত
থেকে তাঁ্র সন্ধান মিলছে না | সেই রাতে ম্য়াঞ্চেস্টারের বিখ্য়াত নাইটক্লাব The Warehouse Project-এ বন্ধুদের সঙ্গে নিউ ইয়ার্স পার্টি করছিলেন শৌভিক্ | ক্লাবের CCTV-তে রত ১১ টার সময় শেষবার দেখা যায় তাঁ্কে |

জানা গিয়েছে, পার্টিতে তিনি Ladies Toilet-এ যেতে চান্ | এর জেরে তাঁ্কে বের করে দেন ক্লাবের কর্মীরা | তারপর শৌভিককে Manchester United Club-এর দিকে হেঁ্টে যেতে দেখা যায়্ | তারপর থেকে আর দেখা যায়নি তাঁ্কে |

৩১ ডিসেম্বর রাতেই ছেলের সঙ্গে শেষবার কথা বলেছিলেন শান্তনু বাবু আর তাঁ্র স্ত্রী | জানতে চেয়েছিলেন স্বাস্থ্য়ের কথা | খোঁ্জ নিয়েছিলেন শৌভিক ওখানে ঠিকমতো খাওয়া-দাওয়া করছে কি না, সে ব্য়াপারে | তখনই পার্টি নিয়ে শৌভিক খুব উত্তেজিত ছিলেন বলে জানিয়েছেন পাল দম্পতি |

শৌভিকের সন্ধান পেতে দু দেশের সরকারের কাছে সাহায্য়ের আবেদন জানিয়েছেন শান্তনু বাবু | পাশাপাশি তিনি নির্ভর করছেন Greater Manchester Police-এর উপর্ | তারা শৌভিকের খোঁ্জে ইতিমধ্য়েই তল্লাশি শুরু করেছে |
ডুবুরি নামানো হয়েছে শহর লাগোয়া নদী আর বিভিন্ন খালে | কিন্তু কোনও লাভ হয়নি |

ছেলের খবর জানতে দুর্গাপুরে অপেক্সা করছেন শৌভিকের মা | পরিবারের অন্য় সদস্য়দের সঙ্গে |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here