দর্শকের মনে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে হিন্দি ছবির এই প্রেম নিবেদনের দৃশ্যগুলো!

বলিউড মানেই থাকবে রোম্যান্স থাকবে ভালবাসা থাকবে ভরপুর অ্যাকশন। এক একটি ছবি দর্শকদের মনে এক একভাবে দাগ কেটে যায়। কোন ছবির অ্যাকশন ভাল আবার কোন ছবির গান ভাল,কোন ছবির গল্প ভাল তো কোন ছবিতে রয়েছে ফাটাফাটি রোম্যান্স। তবে এমন কিছু ছবি আছে যেগুলিতে গান, অভিনয়, গল্প সব ভাল হলেও কিছু বিশেষ মুহূর্ত বা বলা ভাল নায়ক নায়িকার ভালবাসা ব্যক্ত করার দৃশ্য মন ছুঁয়ে নিয়েছে দর্শকের। তাই ছবিগুলি পুরনো হয়ে গেলেও নতুন রয়ে গিয়েছে এই দৃশ্যগুলি।

১। কাল হো না হো

https://youtu.be/5d7lu9ZUqvQ

শাহরুখ খান বলিউডে পরিচিত রোম্যান্টিক হিরো হিসেবেই। এবং তাঁর ফিল্মি কেরিয়ারে এমনই এক অন্যতম রোম্যান্টিক ছবি হল করণ জোহর পরিচালিত ‘কাল হো না হো’। আর সবথেকে বেশি প্রচলিত ছবির সেই বিশেষ দৃশ্যটি যেখানে শাহরুখ খান সইফ আলি খানের হয়ে নিজের মনের কথা ডায়েরি দেখে  নয়না ওরফে প্রীতি জিন্টার কাছে ব্যক্ত করতে থাকে। সবথেকে রোম্যান্টিক তখনই হয় যখন দেখা যায় সেই কথাগুলির কোনটিই ডায়েরিতে লেখা থাকে না যা শাহরুখ নিজের মন থেকে বলতে থাকে তাঁর নায়িকাকে। তাই ছবির ডায়লগের সঙ্গে উপরি পাওনা হিসেবে কিং খানের অভিনয় সেই দৃশ্যটিকে আজও করে রেখেছে চির নতুন।

২। ইয়ে জাওয়ানি হ্যায় দিওয়ানি

https://youtu.be/Wyl1BziRTU8

একেবারে শেষের দৃশ্যটিই দর্শকদের কাছে নতুন করে হিট করে দেয় রণবীর-দীপিকার জুটিকে। যেখানে একদিকে দেখানো হয় একটা বছরের শেষ, অন্যদিকে দেখানো হয় নতুন বছরের শুরুর সঙ্গে সঙ্গে বানি ওরফে রণবীর কপূর ও নয়না ওরফে দীপিকা পাদুকোনের নতুন জীবনের শুরু। দেখানো হয় কীভাবে রণবীর তাঁর অ্যাম্বিশনকে পাশে রেখে দীপিকার সঙ্গে সংসার করতে রাজি হয়েছিলেন। এবং নায়ক নায়িকার সেই রোম্যান্টিক দৃশ্যই দর্শকের মনে থেকে গিয়েছে আজও।

৩। মুঝসে শাদি কারোগি

‘মুঝসে শাদি কারোগি ‘ ছবিতে দেখানো গোটা স্টেডিয়াম ভর্তি লোকের সামনে সমীর অর্থাৎ সলমন খানের প্রিয়াঙ্কা চোপড়া ওরফে রানিকে প্রপোজ করার দৃশ্যটি আজও মনে থেকে গিয়েছে সকলের।

৪। রব নে বানাদি জোড়ি

কিং খানের আরও একটি রোম্যান্টিক ছবি হল রব নে বানাদি জোড়ি। যেখানে আই লাভ ইউ এর বদলে শাহরুখকে তাঁর স্ত্রী তানি অর্থাৎ অনুষ্কা শর্মাকে বলতে দেখা গিয়েছে,’তুঝমে রব দিখতা হ্যা’। আর সেই ছবির পর থেকে শুধু এই দৃশটিই নয়, ডায়লগটিও একইভাবে জনপ্রিয় হয়ে রয়েছে দর্শকের কাছে।

৫। জানে তু ইয়া জানে না

নির্দিধায় একটি টিনএজ লাভস্টোরি দেখানো হয় এই ছবিটিতে। তবে পুরো সিনেমা জুড়ে ভালবাসা ও বন্ধুত্বের দ্বন্দ্ব দেখালেও শেষ দৃশ্যে একটি বিমানবন্দরে নায়িকাকে আটকাতে প্রপোজ করার সেই দৃশ্যটি এখনও অনন্য দৃশ্য হয়ে থেকে গিয়েছে দর্শকের কাছে।

৬। কুছ কুছ হোতা হ্যা

এই ছবিটি পরিচালনা করেই বলিউডে ডেব্যু করেছিলেন করণ জোহর। ছবিটির ডায়লগ ‘কুছ কুছ হোতা হ্যা অঞ্জলি তুম নাহি সামঝোগি’ যেমন এখনও দর্শকের মুখে মুখে চির নতুন। তেমন এই ছবির শেষে রাহুল অঞ্জলির প্রপোজাল দৃশ্যও একইভাবে হিট দর্শকের মনে। যেখানে কোন কথা না বলেই ইশারায় নিজদের মনের কথা একে অপরকে বলেছিলেন শাহরুখ-কাজল।

৭। জন্নত

ইমরান খান অভিনীত জন্নত ছবিটির মূল বিষয়বস্তুটি সকলের মনে না থাকলেও ছবিটিতে দেখানো নায়ক নায়িকার অপরিসীম রোম্যান্স ও ভালবাসা মন ছুঁয়ে গিয়েছে দর্শকের। তাই এই ছবির গানের পাশাপাশি নায়িকাকে রাস্তায় সকলের সামনে প্রপোজ করার দৃশ্যটি এখনও চিরনতুন দর্শকদের মনে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here