‘ধর্ষণের জন্য় আমানত নিজেও সমান দায়ী’

38

“কোনও অপরাধ একতরফা নয়্ | এক হাতে তালি বাজে না | ধর্ষকদের সঙ্গে ওই তরুণীও সমভাবে দায়ী | আক্রমণের মুখে তার উচিত ছিল ভগবানের নাম নিয়ে একজনের হাত ধরে তাকে ভাই বলে ডাকা | তাহলে তার জীবন এবং সম্মান দুই-ই রক্সা পেতে পারত” | এই কথাগুলো দিল্লি গণধর্ষণের শিকার আমানতের উদ্দেশ্য়ে বলা | বলেছেন ধর্মীয় গুরুAsaram Bapu | রাজস্থানে অনুগামীদের সঙ্গে কথা বলার সময় দিল্লি গণধর্ষণ নিয়ে বলে তিনি | তাঁ্র মতে মেয়েটির লড়াই করার পন্থা নাকি ঠিক ছিল না |

অত্য়াচারের যে নমুনায় সারা দেশ স্তম্ভিত, সেখানে এই Asaram Bapu-র এই মন্তব্য় সবাইকে হতবাক করে দিয়েছে | এই কথা বলে কার্যত তিনি বলতে চাইছেন,ঘটনার জন্য় ওই তরুণীও দায়ী! যে ঘটনার জেরে সরকার anti rape law পাল্টে
ফেলার কথা ভাবনা চিন্তা করে, সেই ঘটনায় এই ধরনের প্রতিক্রিয়া আসা বোধহয় ভারতেই সম্ভব!

বিজেপির Ravi Shankar Prasad-এর কথায় এই ধরনের মন্তব্য় দুঃ্খজনক্ | দিল্লির
কং্গ্রেস নেতারাও এই মন্তব্য়ে তীব্র ধিক্কার জানিয়েছেন্ |
ধিক্কার জানাচ্ছে নাগরিক সমাজও | এবার সময় এসেছে যখন কথা বলার আগে রাজনৈতিক এবং ধর্মীয় নেতারা যেন দ্বিতীয় বার ভাবেন্ |

দেশ জুড়ে প্রতিবাদের এই সাইক্লোনের মধ্য়ে Asaram Bapu-র কথা সত্য়ি হাস্য়কর!কতগুলো মদ্য়প লোক ঝাঁ্পিয়ে পড়েছে ২৩ বছরের একটা তরুণীর উপর, সেখানে সে
তাদের একজনের হাত ধরে’ভাই’ বলে সম্বোধন করবে? আর তাতেই সুমতি ফিরবে দুষ্কৃতীদের? এটা কি ম্য়াজিক নাকি সিনেমার সেট?

মরতে মরতে দেশকে বাঁ্চার লড়াই শিখিয়ে গিয়েছেন আমানত্ | ক্সতবিক্সত দেহে তাঁ্র ১৩ দিনের যুদ্ধ দেখেও Asaram Bapu-র মনে হয় ওই তরুণী বাঁ্চতে চাননি?দুষ্কৃতীরা তরুণীকে লোহার রড দিয়ে পিটিয়েই ক্সান্ত হয়নি | তাঁ্র দেহের ভিতরে ঢুকিয়ে
দিয়েছে ওই রড্ | বর্বরতার এই নজির যারা রেখেছে, আমানতের মুখে ‘ভাই’ সম্বোধন শুনে তারা শুধরে যেত? সসম্মানে যেতে দিত তাঁ্কে আর তাঁ্র বন্ধুকে? তাহলে তো সবাই এই পথ ধরে নিষ্কৃতি পেতে পারে ধর্ষকের হাত থেকে |

Asaram Bapu,আপনি বরং কষ্টকল্পনার জগৎ
থেকে বাইরে বেরিয়ে আসুন্ | সত্য় যুগ থেকে পা রাখুন ঘোর বাস্তবে | এবং জানুন, কোনও মেয়ে চায় না এই অভিজ্ঞতার শিকার হতে | নাকি আপনার মতো লোকজন সেটা ভালই জানেন্ | জেনেও এই ধরণের মন্তব্য় করতে ভালবাসেন!

Advertisements

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.