…সব ঝেঁ্টিয়ে বিদেয় কর

39

ডিসেম্বরের মাঝামাঝি | শীতের সকালে সবে আড়মোড়া ভাঙছেGoa-র রাজধানী Panaji | শহরের Sao Tome এলাকায় পথে বেরিয়ে থমকে দাঁ্রাচ্ছেন পথচারীরা | কয়েক লহমার জন্য় দাঁ্ড়িয়ে পড়ছে মোটর বাইক্ | সেখানে তখন রাজপথে দুই স্বর্ণকেশী | গোয়ার রাস্তায় বিদেশিনী, কোনও নতুন ছবি নয়্ | কিন্তু এখানে দুজনের হাতে ঝাঁ্টা | আবর্জনা দেখে দুই বিদেশি নাগরিক নিজেরাই নেমে পড়েছেন রাস্তা সাফ করতে |

তাঁ্দের মধ্য়ে একজন Amalia Mora | ক্য়ালিফোর্নিয়ার বাসিন্দা বছর ৩০-এর এই তরুণীর সহাস্য় যুক্তি, পানাজি আমার প্রিয় শহর্ | সেই
জায়গার রাস্তা পরিচ্ছন্ন রাখা অসম্মানের কাজ নাকি? তার সঙ্গী ডাচ তরুণীJeroen Gevers মনে করেন, শুধু সাফাই কর্মীরা নন্ | শহর পরিষ্কার রাখা সবার দায়িত্ব | তাই যে কেউ ঝাঁ্টা হাতে নেমে পড়তেই পারেন্ |

University of California-তে এই দুই তরুণী PhD করছেন্ | ঠিক করেছেন গোয়ান মিউজিকের উপর তাঁ্রা ডিসের্টেশন করবেন্ | সেই সূত্রেই এই পর্তুগিজ উপনিবেশে দুই তরুণীর আগমন্ | রাস্তা সাফাই অভিযানে তাদের পাশে ছিলেন অনেক স্থানীয় বাসিন্দাও |

Jeroen Gevers-এর কথায়, পরিচ্ছন্নতা ডাচ সং্স্কৃতির অঙ্গ | ছোট থেকেই তাদের শেখানো হয় কীভাবে পরিষ্কার থাকতে হয়্ | তবে তাঁ্দের দুজনের মতে,ভারতের অন্য় রাজ্য়ের থেকে গোয়া পরিচ্ছন্ন | অন্য় শহরে নাকি তাঁ্দের আবর্জনা ব্য়াগে রেখে দিতে হয়েছিল | কারণ
ডাস্টবিন চোখে পড়েনি রাজপথে | কিন্তু গোয়ায় এসে অন্তত এই সমস্য়া তাঁ্দের হয়নি |

গোয়া মানে স্বর্ণকেশীদের যে ছবি আমাদের চোখে ভেসে ওঠে, তার থেকে সম্পূর্ণ বিপরীত মেরুর ছবিও তাহলে দেখা যায়…

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.