২৪ বছর ধরে সন্ধানের পরে খোঁজ পাওয়া গেল হারিয়ে যাওয়া ৩ বছরের শিশুকন্যার

ছোট্ট তিন বছরের একরত্তি মেয়ে,হঠাৎই একদিন নিরুদ্দেশ ।তারপর কেটে গিয়েছে ২৪ টা বসন্ত । চুলে পাক ধরলেও আশা হারাননি মেয়ে হারানো দম্পতি । অবিরাম চেষ্টা চালিয়ে গেছেন মেয়ের সন্ধান পাওয়ার । অবশেষে মিলল সেই হারিয়ে যাওয়া ছোট্ট মেয়ের খোঁজ।

চীনের সিচুয়ান প্রদেশে বাস ছিল ফল বিক্রেতা মিংকিং দম্পতি ও তাঁদের ৩ বছরের কন্যার ।১৯৯৪ সালে হঠাৎই একদিন বাবার দোকানের পাশ থেকে মেয়ে উধাও । ছোট্ট মেয়ে কোথায়ই বা যাবে একা একা ? তবে কি কেউ অপহরণ …!

আশঙ্কায় শিউরে ওঠেন দম্পতি । হন্যে হয়ে খুঁজতে লাগল মেয়েকে । থানা পুলিশ, দেওয়ালে পোস্টার, হসপিটাল কিছুই করা বাদ রাখেননি । মাঝে কেটে গেল ২১টা বছর ।মিলল না মেয়ের খোঁজ । মরিয়া মিংকিং স্থির করলেন ব্যবসা ছেড়ে ট্যাক্সি চালাবেন । এতে যাত্রীদের সাথে জনসংযোগ বাড়বে, পাশাপাশি মেয়ের খোঁজ পেলেও পেতে পারেন ।

ট্যাক্সিতেই টাঙানো রইল মেয়ের ছবি সহ বিবরণ ।ইন্টারনেটেও প্রায় ১৭০০০ জন মানুষকে জানালেন মেয়ের সম্বন্ধে ।

অবশেষে মুখ তুলে চাইলেন ভগবান । সহায় হল সেই ইন্টারনেটই।

কাং ইয়াং নামে একটি মেয়ে, উইচ্যাটে যোগাযোগ করে ওয়াংকে । জানায় সেই হয়তো তাঁর হারিয়ে যাওয়া মেয়ে । তিন বছরের হারিয়ে যাওয়া মেয়েকে ২৪ বছর পর খুঁজে পাওয়া । বদলে গিয়েছে সবকিছু,তবে চেনার উপায় ? অগত্যা ভরসা ডিএনএ টেস্ট। আর তাতেই প্রমাণিত হল কাং ইয়াংই মিংকিং দম্পতির হারিয়ে যাওয়া সন্তান।

দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান ।২৪ বছর পর আবার মুখোমুখি হবে বাবা-মা-মেয়ে ।
মিংকিং দম্পতি এখন পুরোদমে ব্যস্ত ঘর গোছাতে।এতদিনে ঘরের মেয়ে ঘরে ফিরছে বলে কথা !

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here