শনিবার আইনত দাম্পত্যসঙ্গী হবেন প্রিন্স হ্যারি ও মেগান মার্কেল । এই মুহূর্তে বিশ্বের অন্যতম চর্চিত বিবাহ । মধ্যে গুঞ্জন, কীভাবে  নেওয়া হচ্ছে বিয়ের প্রস্তুতি, নিমন্ত্রিতই হিসেবেই বা কাদের দেখা যাবে ? হবু বর কনের পোশাকই বা কী হবে ? কিংবা বাবা উপস্থিত না থাকায় কার সঙ্গে গির্জায় হেঁটে যাবেন মেগান ? সবকিছু নিয়েই আগ্রহের শেষ নেই ।

Banglalive

এই সবের মাঝে আরেকটি আলোচনা ছাপিয়ে গেছে সবকিছু । বিয়ের রাজকীয় কেক । কিছুদিন ধরেই কেক নিয়ে বেশ কিছু তথ্য ফাঁস হয় । এবার দেখা মিলল সেই কেকের । জীবন্ত প্রিন্স হ্যারি ও মেগানের মূর্তি ।উচ্চতা ও প্রিন্স ও মেগানের উচ্চতার সমান । নবদম্পতিকে সন্মান জানাতে কেক বানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের লারা মাশন ।

সম্প্রতি সেই কেক তৈরির সম্পূর্ণ ভিডিও তিনি ফেসবুক পেজে পোস্ট করেন । কাজের পাশাপাশি মাশনের শখ বিশেষ ধরনের সৃজনশীল কেক তৈরি করা । প্রায় ৬ বছর ধরে যুক্ত রয়েছেন এই কাজে ।

প্রিন্স ও মেগানের যুগলে যেদিন প্রথম মিডিয়ার সামনে ধরা দেন, কেকমূর্তি অবিকল সেই আদলে বানানো । প্রায় ২৫০ ঘন্টা সময় লেগেছে এই কেক প্রস্তুত করতে । কেকটি সম্পূর্ণ চকোলেট, আইসিং বা মিনার রঙ দিয়ে ডিজাইন করা । প্রায় ৩০০ ডিম, ১৫ কেজি মাখন, ১৫ কেজি ময়দা ব্যবহার করে মূল স্পঞ্জটি তৈরি করা হয়েছে ।

স্পঞ্জের উপরাংশে লেয়ার তৈরীতে ভ্যানিলা বাটারক্রিম ব্যবহার হয়েছে । পরে ৫০ কেজি আইসিং ব্যবহার করেছেন । মাশন জানান, কেকটির ফ্রেম বাদে পুরো অংশটিই খাওয়ার উপযুক্ত । ফেসবুকে ভিডিও প্রকাশ পেতেই উচ্ছ্বসিত সকলে । ফেসবুক ব্যবহারকারী একজন কমেন্ট করেন এটি তাঁর দেখা সর্বকালের সেরা বিবাহের কেক । আরেকজন জানান এটি কেকের থেকে মেগানের মাদাম তুসোর মূর্তি মনে হচ্ছে । কেকটি আপাতত বার্মিংহামে জাতীয় কেক প্রদর্শনী কেন্দ্রে রাখা হয়েছে । 

আরও পড়ুন:  দুঃসাহসিক লুঠপাট দিল্লিতে সাংসদ শতাব্দী রায়ের বাংলোয়

NO COMMENTS