তাঁর সংক্রামিত রক্তে বিপন্ন দুটি প্রাণ‚ জেনে আত্মহত্যার চেষ্টা এইচআইভি পজিটিভ যুবকের

395

গর্ভাবস্থার কিছু জটিলতার কারণে এক অন্তঃসত্ত্বা তরুণী তামিলনাড়ুর এক সরকারি হাসপাতালে গিয়েছিলেন তাঁর শারীরিক অবস্থার পরীক্ষা করাতে । চিকিৎসকেরা পরীক্ষা করে দেখেন তাঁর দেহে রক্তাল্পতার সমস্যা রয়েছে, সেইমতো তাঁকে রক্ত দেওয়ার নির্দেশ দেন। অভিযোগ, হাসপাতালের গাফিলতির জেরে অন্তঃসত্ত্বার শরীরে প্রবেশ করানো হয় এইচআইভি পজিটিভ রক্ত ।

ব্লাড ট্রান্সফিউশনের (রক্ত সঞ্চালন)সময় তাঁর শরীরে যে রক্ত পাম্প করা হয় সেটি ছিল এইচআইভি পজিটিভি সংক্রামিত । শুধু তাই নয়, রক্তে হেপাটাইটিস বি ভাইরাসেরও খোঁজ মিলেছে । অ্যান্টি রেট্রোভিয়াল থেরাপির সময় রক্তের এই সংক্রমণ নজরে পড়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎসকের । তবে, ততক্ষণে তরুণীর সারা শরীরেই সংক্রামিত হয়ে গিয়েছে ভাইরাস।

কীভাবে ঘটল এমন ঘটনা, তদন্তে কেঁচো খুড়তে বেড়িয়ে পরে সাপ।  জানা যায় যে, ২০১৬ সালে এক যুবক  সাত্তুরের এক রক্তদান শিবিরে এক আত্মীয়ের জন্য রক্ত দিয়েছিল । কিন্তু তখন সেই রক্ত কাজে না লাগায় তা রেখা দেওয়া হয় ওই সরকারি হাসপাতালের ব্লাড ব্যাঙ্কে । পরে যখন ওই অন্তঃসত্ত্বা মহিলার দেহে ওই রক্ত প্রবেশ করানো হয়, তখন জানা যায় যে, ওই রক্তে এইচআইভি পজ়িটিভ। সেইসঙ্গে রয়েছে হেপাটাইটিস বি-ও। এবং তা জানানোও হয় কিশোরকে । কিন্তু তার পরে ঘটে যায় আরও এক দুর্ঘটনা। তাঁর সংক্রামিত রক্তের জেরে যে দুটি জীবন অনিশ্চিত – তা জানার পরে আত্মহত্যার চেষ্টা করে ওই যুবক।

এই ঘটনার জেরে স্বভাবতই দায় এড়িয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। তাঁদের দাবি, হাসপাতালের যে ল্যাবরেটরি থেকে রক্ত আনা হয়, সেখানকার টেকনিশিয়ানদের গাফিলতিতেই এই ঘটনা ঘটেছে । প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে, যে রক্ত তরুণীকে দেওয়া হয়েছিল সেটা সংগ্রহ করা হয় বছর দুই আগে। যে যুবকের থেকে সেই রক্ত নেওয়া হয়েছিল তিনি একই সঙ্গে এইচআইভি পজিটিভ এবং হেপাটাইটিস বি আক্রান্ত ছিলেন। আশ্চর্যের বিষয়, রক্ত পরীক্ষার পর নাকি সে সব কিছুই বুঝতে পারেননি টেকনিশিয়ানরা। কেন দু’বছর ধরে কোনও রকম মেডিক্যাল রেকর্ড ছাড়াই সেই রক্ত স্টোর করে রাখা হয়েছিল, সে বিষয়ে নিয়ে উঠছে প্রশ্ন । ঘটনার জেরে ব্লাডব্যাঙ্কের তিন কর্মীকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।

Advertisements

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.