মানুষের জন্য পৃথিবী থেকে বিলুপ্তির পথে ১০ লক্ষ প্রজাতির প্রাণী

মানুষের জন্য পৃথিবী থেকে বিলুপ্তির পথে ১০ লক্ষ প্রজাতির প্রাণী

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

সোমবার প্রকাশিত হয়েছে ইন্টারগভর্মেন্টাল সায়েন্স পলিসি প্ল্যাটফর্মের জীববৈচিত্র্যের উপর নতুন একটি রিপোর্ট। আর সেই রিপোর্টে ব্যক্ত করা হয়েছে, পৃথিবী থেকে লুপ্ত হতে চলেছে দশ লক্ষের মতো প্রজাতি। আর তার জন্য সময় লাগবে মাত্র আগামী কয়েক দশক। তার মধ্যেই বিলীন হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে বিপুল প্রাণীর।
ওই রিপোর্ট অনুযায়ী, উদ্ভিদ ও প্রাণী মিলিয়ে পৃথিবীতে কমবেশি আশি লক্ষের মতো প্রজাতি রয়েছে। এর মধ্যে দশ লক্ষ প্রজাতিই রয়েছে এই আশঙ্কায়। ২০১২ সাল থেকে ভারত-সহ বিশ্বের মোট একশো বত্রিশটি দেশে সমীক্ষা চালিয়ে তার ভিত্তিতেই এই রিপোর্ট তৈরি করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

ব্রিটেনের ইস্ট অ্যাংলিয়া ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ও গবেষণা দলের সদস্য রবার্ট ওয়াটসন এই বিষয়ে জানিয়েছেন, “নতুন এই রিপোর্ট থেকে যে তথ্য জানা গিয়েছে, তাতে এর সবথেকে বেশি প্রভাব পড়বে মানুষের উপর। বাস্তুতন্ত্রে যে কোনও বিবর্তনের সবচেয়ে বেশি কুপ্রভাব পড়ে মানবজাতির উপর। এই ক্ষতি শুরু হয়ে গিয়েছে ইতিমধ্যেই, আমরা যতটা সময় আশা করেছিলাম তার থেকে কয়েকগুণ দ্রুত ক্ষতির মুখে এগিয়ে যাচ্ছে বাস্তুতন্ত্র।”

এই প্রভাবের জন্য মানুষকেই দায়ী করেছে রাষ্ট্রপুঞ্জ। প্রকৃতিকে না রক্ষা করতে পারলে, ওই প্রজাতিগুলিকেও ধরে রাখা যাবে না। আর তাতে বাস্তুতন্ত্র ঠিক না থাকলে মানুষেরও অস্তিত্বও বিলুপ্তির দিকেই এগোবে। রিপোর্ট অনুযায়ী, ক্রমশ লুপ্তপ্রায়দের মধ্যে প্রায় ২৫% স্তন্যপায়ী প্রাণী, ৩৩% হাঙর, ৪০% উভচর প্রাণী এবং ২৫% উদ্ভিদ রয়েছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

Leave a Reply

pandit ravishankar

বিশ্বজন মোহিছে

রবিশঙ্কর আজীবন ভারতীয় মার্গসঙ্গীতের প্রতি থেকেছেন শ্রদ্ধাশীল। আর বারে বারে পাশ্চাত্যের উপযোগী করে তাকে পরিবেশন করেছেন। আবার জাপানি সঙ্গীতের সঙ্গে তাকে মিলিয়েও, দুই দেশের বাদ্যযন্ত্রের সম্মিলিত ব্যবহার করে নিরীক্ষা করেছেন। সারাক্ষণ, সব শুচিবায়ু ভেঙে, তিনি মেলানোর, মেশানোর, চেষ্টার, কৌতূহলের রাজ্যের বাসিন্দা হতে চেয়েছেন। এই প্রাণশক্তি আর প্রতিভার মিশ্রণেই, তিনি বিদেশের কাছে ভারতীয় মার্গসঙ্গীতের মুখ। আর ভারতের কাছে, পাশ্চাত্যের জৌলুসযুক্ত তারকা।

Pradip autism centre sports

বোধ