বাবাকে বাঁচাতে কিডনি দান করছেন পালিত মেয়ে

যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ক্যারোলিনার বাসিন্দা বছর চৌষট্টির বিলি হাউস। তিনি একজন ধর্মযাজক। সাতাশ বছর আগে স্থানীয় এক অনাথ আশ্রম থেকে এক শিশুকন্যাকে দত্তক নিয়ে তাঁর দ্বায়িত্বভার নিয়েছিলেন তিনি। ভালবেসে সেই মেয়ের নাম রেখেছিলেন ডি’লরেন ম্যাকনাইট।

স্থানীয় এক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০১৬ থেকে ব্যাপ্টিস্ট মিশেনের যাজক বিলি হাউজ-এর পিত্তথলিতে একটি সার্জারির পর থেকে কিডনি সমস্যায় ভুগছেন তিনি । বিলি জানতে পারেন, কিডনি প্রতিস্থাপন না করলে আগামী পাঁচ বছরের বেশি তিনি বাঁচবেন না । এরপর থেকেই বিল্লি-র রক্তের গ্রুপ অনুযায়ী শুরু হয় কিডনির খোঁজ ।

পরিবারের কোনও সদস্যের সঙ্গে তার রক্তের গ্রুপের মিল না পাওয়ায় হতাশ হয়ে পড়েন ওই ধর্মযাজক। কিডনি প্রতিস্থাপনের আশা হারিয়ে ফেলেন তিনি। এমন সময় তাঁর পালিত কন্যা ডি’লরেন-এর রক্তের গ্রুপ মিলে যায় বিল্লি-র রক্তের গ্রুপের সঙ্গে। এমন একটি ঘটনায় বেশ চমকে গিয়েছিল বাবা-মেয়ে দুজনেই।

এরপর বাবা বিল্লি-কে নিজের কিডনি দান করতে প্রস্তুত হয় পালিতাকন্যা । সেই মত কিডনি প্রতিস্থাপনের জন্য মেয়ের যাবতীয় পরীক্ষার ব্যবস্থা করেন চিকিৎসকরা । সম্প্রতি, মার্কিন টেলিভিশন শো ‘গুড মর্নিং আমেরিকা’ নামক এক অনুষ্ঠানে বিলি বলেন, “আমি আমার মেয়েক নিয়ে খুবই গর্বিত। সে আমাকে বলেছিল, অনাথ আশ্রম থেকে আমাকে নিয়ে এসে তুমি আমার জীবন বাঁচিয়েছো । তাই আমাকেও একবার সুযোগ দাও যাতে আমিও সেই পিতৃঋণ শোধ করার একটু সুযোগ পাই।”

বিলি জানিয়েছেন, লরেনের এই সিদ্ধান্ত তাঁকে নতুন করে জীবন-কে চিনতে শিখিয়েছে তা নয়, জীবনবোধ তৈরি করতেও শিখিয়েছে। ছোটদের থেকেও অনেক কিছু শেখার থাকে, এমনটাই মনে করেছেন তিনি। আগামী সপ্তাহেই বিল্লির কিডনি প্রতিস্থাপন করা হবে বলে জানা গিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here