টিয়ার পরে এ বার মহারাষ্ট্র পুলিশের হেফাজতে কারাগারে বন্দি ছাগল !

টিয়ার পরে এ বার মহারাষ্ট্র পুলিশের হেফাজতে কারাগারে বন্দি ছাগল !

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

তোতার পর এ বার ছাগল | ধরা পড়ে জেলের ঘানি টানল মহারাষ্ট্র পুলিশের সৌজন্যে | কারাগারে বন্দি ছাগলের ছবি হোয়াটস অ্যাপে ভাইরাল হয়ে যেতেই তড়িঘড়ি তার মুক্তির ব্যবস্থা করা হয় |

দিনকয়েক আগেই মহারাষ্ট্রের চন্দ্রপুর জেলায় গ্রেফতার করা হয় এক পোষা টিয়াকে | তার অপরাধ মহিলা দেখলেই মুখ থেকে উড়ে আসত অশ্রাব্য অশীল শব্দ | এই দোষী তোতাকে শেষ অবধি জেল খেটে রীতিমতো জামিন জোগাড় করে মুক্তি পেতে হয় | অশ্লীল শব্দ উচ্চারণ কি তার দোষ‚ না তার মালিকের‚ সেই দ্বন্দ্বের মধ্যে পুলিশ ঢুকতেই চায়নি | যেহেতু তোতা আওড়েছে‚ অতএব সে-ই ঢুকবে ফাটকে |

তোতা নয় তবু কথা বলতে পারে | ছাগল বেচারা ব্যাঁ ব্যাঁ করে আর কী বলবে ! দিব্যি সে ছিল পারভনি জেলায় | হিদায়ৎ খানের বাড়ি পোষ্য হিসেবে | অভিযোগ‚ তিনজন মিলে তাকে চুরি করে পালায় | হিদায়তের অভিযোগের ভিত্তিতে শুরু হয় পুলিশি তল্লাশি | ধরা পড়ে এক অভিযুক্ত‚ নাসিম খান | সঙ্গে চুরি করা ছাগল ছাগল |

চারপেয়েটিকেও পুলিশ চালান করে ফাটকে | সোশ্যাল মিডিয়ায় শোরগোল পড়ে যাওয়াতে সে মুক্তি অবশ্য পেয়েছে বটে | কিন্তু এখনও আছে পুলিশি নজরদারিতে | একমাত্র আদালতের নির্দেশ পেলেই তাকে তুলে দেওয়া হবে মালিকের হাতে |

কে যে ছাগল কে জানে ! বন্দি চতুষ্পদটি‚ নাকি যারা তাকে বন্দি করলেন‚ সেই দ্বিপদরা ?

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

Leave a Reply

Handpulled_Rikshaw_of_Kolkata

আমি যে রিসকাওয়ালা

ব্যস্তসমস্ত রাস্তার মধ্যে দিয়ে কাটিয়ে কাটিয়ে হেলেদুলে যেতে আমার ভালই লাগে। ছাপড়া আর মুঙ্গের জেলার বহু ভূমিহীন কৃষকের রিকশায় আমার ছোটবেলা কেটেছে। যে ছোট বেলায় আনন্দ মিশে আছে, যে ছোট-বড় বেলায় ওদের কষ্ট মিশে আছে, যে বড় বেলায় ওদের অনুপস্থিতির যন্ত্রণা মিশে আছে। থাকবেও চির দিন।