সইফের মা শর্মিলা ও বোন সোহাকে নিয়মিত গালাগাল করতেন প্রাক্তন স্ত্রী অমৃতা!?

অমৃতা সিং এবং সইফ আলি খানের সম্পর্ক যে ভালো নয় সেটা সবাই জানে | কিন্তু একটা সময়‚ নয়-এর দশকে এই জুটি কে নিয়ে আলোচনার শেষ ছিল না | ওঁদের মধ্যে বয়সের তফাত বা হঠাৎ করে বিয়ের সিদ্ধান্ত নেওয়া সবই খবরের শিরোনামে উঠে আসে | বিয়ের ১৩ বছর পর, ও দুই সন্তানের জন্মের পর ওঁদের বিবাহবিচ্ছেদ হয়ে যায় | দু’জনেই এখন পুরনো কথা ভুলে নিজেদের জীবন নিয়ে ব্যস্ত আছেন | সইফ আবার বিয়ে করেছেন এবং করিনা কপূরের সঙ্গে সুখে সংসার করছেন | অন্যদিকে অমৃতা ওঁর দুই ছেলে মেয়ে‚ সারা আর ইব্রাহিম কে নিয়ে ব্যস্ত থাকেন |

অন্য অনেক তারকাদের মত অমৃতা আর সইফের বিবাহবিচ্ছেদ সহজ সরলভাবে হয়নি | অমৃতা সইফ সম্পর্কে বিভিন্ন সাক্ষৎকারে যা-তা বলেছিলেন | অবশেষে সইফ ও একটা সাক্ষৎকারে নিজের বক্তব্য তুলে ধরেন | সম্প্রতি সইফের দেওয়া সেই পুরনো সাক্ষাৎকার ইন্টারনেটে হঠাৎ করে ভাইরাল হয়ে
গিয়েছে | বিবাহবিচ্ছদের পরিবর্তে অমৃতা কে কী দিতে হয়েছিল বা ওঁদের কেন বিবাহবিচ্ছেদ হয়ে গেল সব প্রশ্নের উত্তর দেন সইফ |

বিবাহবিচ্ছদের পর বাচ্চাদের থেকে দূরে থাকা সইফের জন্য সব থেকে কষ্টকর ছিল | তার ওপর সইফ সম্পর্কে অমৃতার কড়া মন্তব্য ! এই ব্যাপারে কথা বলতে গিয়ে সইফ বলেন ‘আমাদের বিচ্ছেদ হয়ে গেছে | আমি অমৃতা কে শ্রদ্ধা করি | কিন্তু বারবার কেন অমৃতা আমাকে মনে করাচ্ছে আমি কতটা বাজে স্বামী আর বাবা ছিলাম? আমি আমার ছেলে ইব্রাহিমের ছবি আমার সঙ্গে রাখি সবসময় | যখনি সেই ছবি দেখি আমার চোখে জল চলে আসে | সারা‚ আমার মেয়েকে প্রতি মুহূর্তে মিস করি |’

এই সাক্ষাৎকারে সইফ আরো জানান অমৃতা ওঁর মা শর্মিলা ঠাকুর আর বোন সোহা আলি খানের নামেও কুৎসা রটিয়েছেন | এখানেই শেষ নয় সইফ আরো জানান বিয়ের পর থেকেই অমৃতা ওঁর মা আর বোনের সঙ্গে খুব খারাপ ব্যবহার করেছেন | মাঝে মধ্যেই নাকি শর্মিলা কে গালাগালিও করতেন অমৃতা | সইফ বলেন ‘বিয়ের পর থেকেই সবার সামনেই অমৃতা বারবার বলত আমি কতটা অপদার্থ | অবশ্য শুধু আমি নয়‚ আমার মা আর বোনও ওর টার্গেট ছিল | মা আর বোনকে যখন তখন গালাগালি দিত ও অপমান করত | এই সব কিছুর মধ্যে দিয়ে যেতে হয়েছে আমাকে |’

অমৃতা কে কত অ্যালিমনি দিতে হয়েছে? এই প্রশ্নের উত্তরে সইফ বলেন ‘আমাকে ৫ কোটি দিতে হবে | ইতিমধ্যেই ২.৫ কোটি দিয়ে দিয়েছি | এছাড়াও ছেলে আর মেয়ের যতদিন না ১৮ বছর হচ্ছে মাসে মাসে আমাকে ১ লাখ দিতে হবে | আমি শাহরুখ খান নই | আমার কাছে অত টাকা নেই | তবে ওকে যখন প্রতিজ্ঞা করেছি পুরো টাকাটাই দিয়ে দেব | এর জন্য আমাকে যত কঠিন পরিশ্রম করতে হয় করব | এতদিন যা রোজগার করেছি সবটাই দিয়ে দিয়েছি অমৃতাকে | আমরা যে বাংলো বাড়িটায় থাকতাম সেটাও দিতে হয়েছে ওকে |’

সইফ এই বলে সাক্ষাৎকার শেষ করেন যে উনি অমৃতার মুখোমুখি হতে চান না | একই সঙ্গে উনি বলেন অমৃতা ওঁর জীবনে গুরিত্বপূর্ণ অংশ ছিলেন এবং ভবিষ্যতেও থাকবেন | 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here