রাতের অতিথি দিনদুপুরে বিমানের ককপিটে

রাতের অতিথি দিনদুপুরে বিমানের ককপিটে

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

বিমান উড়ানের জন্য প্রস্তুত। যাত্রীরাও প্রায় সকলেই চলে এসেছেন। পাইলট ককপিটে ঢুকেই চমকে উঠলেন। তাঁর আগেই সেখানে এসে উপস্থিত এক পেঁচা। বিমানের ককপিটে এমন একটা ভাব করে বসে রয়েছে যেন বিমানটি সে-ই চালাবে !

মুম্বই এয়ারপোর্টে জেট এয়ারওয়েজের বিমান বোয়িং ৭৭৭-এ এমন ঘটনা ঘটেছে। বিমান সংস্থা সূত্রে জানা গিয়েছে, রাতেই কোনও ভাবে ওই পেঁচা এসে ঢোকে বিমানের ককপিটে। ককপিটের বাঁ দিকের চেয়ারে, যেখানে কমান্ডারের বসার জায়গা, সেখানেই বসে ছিল এই পেঁচা। এয়ারপোর্ট সংলগ্নস্থানে বেশ কিছু বস্তি এলাকা রয়েছে। বিমান সংস্থার দাবি, এই বস্তি অঞ্চল থেকেই এই পেঁচা এসে থাকতে পারে বলে মনে করছে বিমান সংস্থা।

বেশ কিছুদিন ধরে জেট এয়ারওয়েজের আর্থিক অবস্থা ভাল নয়। লোকসানের মধ্যে দিয়ে যেতে হচ্ছে। আর তাই বিমানের মধ্যে এভাবে লক্ষ্মী পেঁচার আসাকে শুভ বলে মনে করছে বিমান সংস্থা জেট এয়ারওয়েজ।  তাই কোনও ক্ষতি না করে পেঁচাটিকে সাবধানে ককপিট থেকে বের করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বাইরে নিয়ে যাওয়া মাত্রই অবশ্য উড়ে গিয়েছে সে। কিন্তু তার আগমনের পর অবশ্য খুশির হাওয়া জেট এয়ারওয়েজের মধ্যে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

Leave a Reply

pandit ravishankar

বিশ্বজন মোহিছে

রবিশঙ্কর আজীবন ভারতীয় মার্গসঙ্গীতের প্রতি থেকেছেন শ্রদ্ধাশীল। আর বারে বারে পাশ্চাত্যের উপযোগী করে তাকে পরিবেশন করেছেন। আবার জাপানি সঙ্গীতের সঙ্গে তাকে মিলিয়েও, দুই দেশের বাদ্যযন্ত্রের সম্মিলিত ব্যবহার করে নিরীক্ষা করেছেন। সারাক্ষণ, সব শুচিবায়ু ভেঙে, তিনি মেলানোর, মেশানোর, চেষ্টার, কৌতূহলের রাজ্যের বাসিন্দা হতে চেয়েছেন। এই প্রাণশক্তি আর প্রতিভার মিশ্রণেই, তিনি বিদেশের কাছে ভারতীয় মার্গসঙ্গীতের মুখ। আর ভারতের কাছে, পাশ্চাত্যের জৌলুসযুক্ত তারকা।