শাহী আচরণের পাশে আশুতোষ রানা

313
আশুতোষ রাণা, নাসিরুদ্দিন শাহ

সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে নিজের মতামত প্রকাশ করে রোষের শিকার নাসিরুদ্দিন শাহ | একটি সাক্ষাৎকারে তিনি মন্তব্য করেন যদি তাঁর সন্তানদের একদল উত্তেজিত জনতা ঘিরে ধরে জিজ্ঞেস করে তাঁদের ধর্ম কী ‚ হিন্দু না মুসলমান ‚ তাহলে তাঁরা তো কিছুই উত্তর দিতে পারবেন না | তারপরে তাঁদের সঙ্গে কী ঘটতে পারে সেই নিয়ে চিন্তিত তিনি | কারণ তাঁর সন্তানদেরকে কখনই ধর্মগত বিভাজনের শিক্ষা দেওয়া হয়নি | তাই তিনি নিজেদের সন্তানদের সম্পর্কে তিনি চিন্তিত | তিনি আরও বলেন যে সারা ভারতে এখন ধর্ম নিয়ে দাঙ্গার বিষ ছড়িয়ে পড়েছে | আইনকে নিজের হাতে তুলে নিয়ে যেকোনও অপরাধ করবার ক্ষেত্রে এখন ছাড় পাওয়া যায় | আজকের ভারতবর্ষে একজন পুলিশ অফিসারের মৃত্যুর থেকেও বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে একটি গরুর মৃত্যুর ঘটনা |

এই মন্তব্য করার পরেই গেরুয়া রোষ এসে পড়ে তাঁর ওপর | নানা পরিচিত নেতা ও মন্ত্রীরা সরব হয়েছেন নাসিরুদ্দিন শাহের বিরূদ্ধে এবং ধিক্কার জানিয়েছেন তাঁর এই চিন্তাকে | তাঁকে সমর্থন ও বিরোধিতা করার ক্ষেত্রে তৈরি হয়েছে স্পষ্ট দুটি দল | এই সমালোচনার মুহূর্তে তাঁকে সমর্থন জানিয়ে সরব হয়েছেন বলিউড অভিনেতা আশুতোষ রানা | 

আশুতোষ বলেন স্বাধীন দেশে প্রত্যেক নাগরিকেরই নিজের মতামত জানানোর অধিকার আছে | ব্যক্তিগত বক্তব্যকে নিয়ে সামাজিক বিচারের খাপ পঞ্চায়েত বসিয়ে তাঁর প্রতি হিংসাত্মক কার্যকলাপ চালানো অত্যন্ত নিন্দনীয় | কেউ তাঁর ব্যক্তিগত বিরূদ্ধ মতামত জানালেই তাঁর বিরূদ্ধে খড়্গহস্ত হতে হবে এত অসহনশীলতা সমাজের পক্ষে ক্ষতিকারক হতে পারে | আশুতোষ বলেন বরং আমাদের উচিত তাঁর কথা ও ভাবনচিন্তা মন দিয়ে শুনে তারপরে বিচার করা | কেউ যদি নিজের মতামত নিয়ে প্রকাশ্যে কথা বলেন এবং তাতে যদি তর্ক হয় ‚ সেই তর্কের মারফত দেশের অর্থনৈতিক অবস্থার উন্নতি বই অবনতি হবে না বলেই মনে করেন তিনি | তাঁর বক্তব্য থেকে বোঝা যায় নাসিরুদ্দিন শাহের মতামতের বিরোধিতা করার বদলে তিনি ব্যক্তিস্বাধীনতার মত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের প্রতি মানুষের নজর ফেরাতে চাইছেন |

প্রবাদপ্রতিম অভিনেতা নাসিরুদ্দিন শাহের বিরূদ্ধে গেরুয়া ক্ষোভের একাংশ ফেটে পড়লে সংবাদমাধ্যমের সামনে এসে তিনি বলেন যে ‚ যে দেশকে তিনি ভালবাসেন ‚ যে দেশ তাঁর মাতৃভূমি সেই দেশের ব্যাপারে নিজের মতামত ব্যক্ত করে তিনি কোনও ভুল কাজ বা অপরাধ করেছেন বলে তিনি মনে করেন না | গেরুয়া সন্ত্রাসের বিরূদ্ধে কোনও মতামত প্রকাশের প্রতিক্রিয়া যদি এমনই হয় ‚ তবে সমাজের সহনশীলতা নিয়ে তো চিন্তায় পড়তে হবে প্রত্যেক সাধারণ মানুষকেই !

Advertisements

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.