কী কাণ্ডজ্ঞান ! দেশের মুদ্রায় কিনা ‘দায়িত্বজ্ঞান’-এর বানান ভুল !

134

পঞ্চাশ ডলারের নোটে বিরাট ভুল! স্বীকার করে নিল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ অস্ট্রেলিয়া। সেদেশের জাতীয় ব্যাঙ্ক জানিয়ে দিয়েছে, মারাত্মক ভুল রয়ে গিয়েছে নোটটিতে। অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে চালু নোটে এমন ভুল নিয়ে সরব নেটিজেনরা।

নতুন এই নোট গত বছরের অক্টোবর থেকে চালু থাকলেও ভুলটা এই প্রথম নজরে এল। খালি চোখে এই ভুল বের করা অবশ্য খুবই কঠিন। কেননা নোটের গায়ে খুদে ফন্টে একটি বানানে ভুল রয়েছে। রেডিও স্টেশন ‘ট্রিপল এম’-এর ইনস্টাগ্রামে এক শ্রোতার পোস্টে প্রথম বিষয়টি সকলের নজরে আসে দিনকয়েক আগে।

এই নোটটিতে একাধিক সিকিউরিটি ফিচার রয়েছে। তার মধ্যে অন্যতম সেদেশের সংসদের প্রথম মহিলা সদস্য এডিথ কোয়ানের বক্তৃতার একটি মাইক্রোপ্রিন্ট। ভুলটা সেখানেই। বক্তৃতার অন্তর্গত ‘রেসপন্সিবিলিটি’ বানানটিই ভুল লেখা রয়েছে নোটটিতে। রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ অস্ট্রেলিয়া জানিয়ে দিয়েছে, পরবর্তী সময়ে যখন আবার এই নোট ছাপানো হবে, তখন এই ভুল সংশোধন করে নেওয়া হবে।

১৯৯৫ সালে প্রথম কোয়ানের ছবি নোটে ব্যবহার করা শুরু হয়। প্রসঙ্গত, কোয়ান ১৯২১ থেকে ১৯২৪ সাল পর্যন্ত সংসদের সদস্য ছিলেন। সংসদের প্রথম মহিলা সদস্য হিসেবে সেই সময় তাঁর উক্তি ছিল, ‘‘একমাত্র মহিলা সদস্য হিসেবে এখানে থাকাটা বিরাট দায়িত্বের। অন্য মহিলাদেরও এখানে থাকার ব্যাপারটায় আমি বিশেষ নজর দিতে চাই।’’ সেই উক্তিই ছাপা থাকত নোটে। আর সেখানেই ঘটে গেল বানান বিভ্রাট।

Advertisements

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.