সব মহিলাই নরম‚ সুন্দর ত্বক পেতে চায় | আর এর জন্য বহু দামী প্রসাধন সামগ্রী ব্যবহার করে থাকেন | কিন্তু শুনলে আশ্চর্য হয়ে যাবেন বেবি প্রডাক্ট দিয়ে কিন্তু বাচ্চাদের মতই নরম দাগহীন ত্বক পেতে পারেন | আর যেহেতু বেবি প্রডাক্ট তাই এতে কোনো ক্ষতিকারক কেমিক্যাল থাকে না | ফলে আপনার ত্বক আরো সুরক্ষিত থাকে এবং যে কোনো ধরণের স্কিন টাইপ এটা ব্যবহার করতে পারে |

Banglalive

আসুন দেখেই নিন কয়েকটা বেবি প্রডাক্ট যা সহজেই পাওয়া যায় তা আপনার ত্বকের জন্য কীভাবে ব্যবহার করবেন |

# বেবি অয়েল : নিয়মিত যদি মেক আপ লাগান তাহলে আপনারা নিশ্চই জানেন মেক আপ তোলাটা কতটা কষ্টকর | বিশেষত আই মেক আপ | কিন্তু বেবি অয়েল দিয়ে সহজেই মেক আপ তুলে ফেলা যায় | তুলোতে অল্প বেবি অয়েল নিয়ে চোখের কাজল সহজেই মুছে ফেলা যায় | উপরন্ত এতে অনেক রকমের মিনারেল আছে তাই ত্বকের ছিদ্র বন্ধ হয় না | এমনকি ময়শ্চারাইজার হিসেবেও বেবি অয়েল ব্যবহার করা যায় |

# বেবি লোশন : ড্রাই স্কিন যাদের তাদের সারা বছরেই বডি লোশন ব্যবহার করতে হয় | কিন্তু বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই বডি লোশন এতটাই তেলতেলে হয় যে গরমকালে তা ব্যবহার করা যায় না | এই সময় বেবি লোশন ব্যবহার করা যেতে পারে | বেবি লোশন একেবারেই ননস্টিকি হয় | ফলে আপনার ত্বক নরম থাকবে কিন্তু একই সঙ্গে তেলতেলে হয়ে উঠবে না |

# বেবি পাউডার : চুলে শাম্পু করার সময় নেই? কোনো চিন্তা নেই অল্প একটু বেবি পাউডার নিয়ে মাথায় ম্যাসাজ করে নিন | সঙ্গে সঙ্গে চিটচিটে ভাবে দূর হয়ে যাবে | এছাড়াও ফেস পাউডার হিসেবেও বেবি পাউডার ব্যবহার করা যেতে পারে | আই শ্যাডো লাগানোর আগে অল্প একটু বেবি পাউডার লাগিয়ে নিলে অনেক্ষণ অবধি চোখের মেক আপ ঠিক থাকবে |

# বেবি ওয়াইপস : মেক আপ তুলে ফেলার জন্য বেবি ওয়াইপস খুবই কার্যকারী | এছাড়াও গরমের দিনে মুখ থেকে ঘাম আর নোংরা মুছে ফেলার জন্যেও এটা ব্যবহার করা যেতে পারে |

# ডায়াপার Rash ক্রিম : যদি আপনার ত্বক খুবই সেনসেটিভ হয় তাহলে ডায়পারRash ক্রিম আপনার জন্য খুবই উপকারী | শীতকালে ঠোঁটেও লাগাতে পারেন |

# বেবি ওয়াশ/ বেবি সোপ : ড্রাই আর সেনসেটিভ স্কিন যাদের তারা বেবি ওয়াশ বা সাবান সহজেই ফেস ওয়াশ হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন | বাচ্চাদের জিনিস সব সময়তেই খুব মাইল্ড হয় তাই সেনসেটিভ ত্বকের জন্য খুবই উপকারী | পেডিকিওর হিসেবেও এটা ব্যবহার করতে পারেন |

# বেবি শ্যাম্পু : গরমকালে সহজেই ঘাম আর ময়লার কারণে চুল চিটচিটে হয়ে যায় | তাই সপ্তাহে অন্তত চারবার শ্যাম্পু করতে হয় | কিন্তু এতবার শ্যাম্পু করার ফলে চুল ড্রাই আর নির্জীব হয়ে যেতে পারে | তাই যে শ্যাম্পু ব্যবহার করেন তার বদলে বেবি শ্যাম্পু লাগান | বড়দের শ্যাম্পুর থেকে বাচ্চাদের শ্যাম্পু অনেক বেশি মাইল্ড হয় ফলে চুলের আর্দ্রতা বজায় থাকে | একই সঙ্গে যেহেতু এতে কেমিক্যাল থাকে না তাই ঘন ঘন ব্যবহার করলেও চুলের কোনো ক্ষতি হয় না |

আরও পড়ুন:  সোনার পাহাড় : এ কেমন ভয়ংকর ছবি আপনি বানালেন পরমব্রত!?

NO COMMENTS