এক চিলতে রোবোটিক তামাশা

আচ্ছা ছ্যার , রোবট আর গবেটের মধ্যে তো খুব মিল। নিজের বুদ্ধি সুদ্ধি বলে ওদের কিছু নেই। লোকে যা বলে তাই করে। তাইলে রোবটের এত দাম কেন ছ্যার?

এইটুকুও জানিস না গবেট কোথা থেকে পাশ করেছিস ইঞ্জিনিয়ারিং?

কেন ছ্যার? আদিগঙ্গা ইনচিটিউট অফ ইনফমেশান টেকনোলজি।

সেটা আবার কোথায় রে?

গুলতিপাড়ার ওই এঁদো খালটা আছে না ছ্যারতার পাশ দিয়ে ছয় দশমিক দুই কিলোমিটার হাঁটলে একটা ঘন জঙ্গল পড়ে । ওখানে মাঝে মাঝে মাদি হাতি আসে ছ্যার। ওর পিছনে ইসিকিওর না ইনসিকিওর নামে কী একটা নাসসিং হোম আছে না, মরে গেলেও যেখানে বডি ছাড়ে না ,তার পাশেই তো। গুগুল ম্যাপ এখনও ধত্তে পারে নি ছ্যার আমাদের কলেজটাজি পি এস ও ফেল।তাতে কী! আমাদের কলেজে চাকরির পতিস্সুতি পচুরআর জানেন —

অ্যাই থাম।যতসব ফালতু কথা! আমি কোন কলেজ থেকে পাশ করেছি জানিস?

জানি ছ্যার। ম্যাসা চুষে চুষে—

হ্যাঁ চোষো চোষোচুষে চুষে ম্যাসাকার কর তোতলারাম। ম্যাসেচুসেটাস ইন্সটিটিউট অফ টেকনোলজি। এম আই টি। মাথায় ঢুকল রাসকেল?

হ্যাঁ ছ্যার।

ওখানে কারা পড়েছে জানিস?

না ছ্যার। কারা ছ্যার?

আইনস্টাইন ডারউইন নিউটন গ্যালিলিও। এদের নাম শুনেছিস?

হ্যাঁ ছ্যার। ছোটবেলায় বাবা পাছায় হেঁজ গাছের কঞ্চি দিয়ে এত মেরেছে। ওসব কি আর ভুলিকিন্তু সবাই আপনার সাথে ম্যাসা চুষে চুষে মানে আপনার কলেজের ছাত্ত ছিল জানতাম না ছ্যারআপনার পাল্লায় পড়ে কত এলিজিবল হচ্ছি।গব্বে আমার বুক লুচির মতো ফুলছে ছ্যার

এলিজিবল নয় গোবর গণেশ।ওটাকে বলে নলেজেবল।

যে বলই হোক ছ্যার আপনিই আমার দোণাচাজ্জ।

কী বললি?

বললাম আপনি আমার দোণাচাজ্জ ছ্যার।

বিঙ্গো! এইটাই হবে আমার তৈরি নতুন রোবটের নাম।

বিঙ্গোর চেয়ে লিঙ্গ নামটা বেশি ভাল হবে। বেশ একটা ইয়ে আছে। তাই না ছ্যার?

রাবিশ। নিঙ্কম্পুপ। ডাণ্ডারপেট।বিঙ্গো নয় ছাগল দ্রোণাচার্য। দ্রোণাচার্য! আমার তৈরি নতুন রোবটের নাম হবে দ্রোণাচার্য।

ও ছ্যার এইবার বুঝেছি। খুব ভালো নাম । বালি সুগ্গিব হনুমানের অস্তগুরু মহান ঋষি দোণাচাজ্জ। ডাক নাম দোণ! আকাশে পত পত করে ওড়ে। সবকিছুর উপর দিয়ে। সব দেখতে পায়। যারা খুব বড়োলোক তারা ক্যামেরা দিয়ে আর ভিডিও তোলে না ছ্যার। দোণটাকে ছেড়ে দেয়।থিরি ইডিয়েটস এ দেখেছি। তিনটার মধ্যে একটা ইডিয়েট বানিয়েছিল।আপনিও বানালেন।কিন্তু ইডিয়েটরাই কেন শুধু রোবট বানায় ছ্যার?

এই এটা কে রে?কথায় কথায় আমায় অপমান করছে। আর শালা বোঝেও না এটা অপমান এমনই গবেট। অ্যাই শোন, তোর এই কোম্পানিতে ইন্টারভিউ কে নিয়েছিল ?কোন গবেট?

ইন্টারভিউ তো হয় নি ছ্যার।আমার যে বাবা কঞ্চি দিয়ে পাছায় পটাশ পটাশ করে মারত তার বাবা গোমুত্ত বেচে সংসার চালাত।একেবারে রিফাইন গোমুত্ত।সরকারি ছাপ মারা। অনেক টাকা কামিয়েছিল ছ্যার। হেব্বি ডিমান্ড বাজারে। মাঝে ডিমান্ড একটু কমেছিল। এখন আবার হট। এত টাকা নিয়ে বাবা কী করবে ছ্যার? আমাদের কলেজের রোবোটিস্কের ডিপাটমেন বানিয়ে দিলযত রোবট আমরা বানিয়েছি ছ্যার সব গোমুতের টাকায়। গোরুর পোতিভার কোনও তুলনা নেই ছ্যার।

কী!তোর মত অপোগণ্ড রোবট বানিয়েছে! তুই কিনা শেষে আমার অ্যাসিস্টেন্ট। আমার! যে নাকি আইনস্টাইনের সাথে কাপ্পুচিনো খেয়েছে তার কপালে এই গোমুতখেকো গবেট। মন দিয়ে শোন এবারনিজের বুদ্ধি খরচা করবি না। ওটা তোর নেই।আছে নিম্নমানের গোবর। তোর ওই মস্তিষ্ক নিয়ে বৈপ্লবিক গবেষণা হওয়া দরকার। বুঝলি।

বুঝলাম ছ্যার। হোক গবেষণা। হোক বিপ্লব।

আমারই ভুল।কার সাথে কথা বলছি। শোন, কাল সকালেই আমি দ্রোণাচার্যকে আকাশে ছেড়ে দেব। কোথায় কী চুপিসারে ঘটছে সব নজরদারি করতে হবে। না হলে শালা সিস্টেমটাই ধসে পড়বে। যা আজ বাড়ী যা। কাল সক্কাল সক্কাল চলে আসবি। যা এখন দূর হ এখান থেকে।

ওকে ছ্যার।

আর অ্যাই শোন। এতো মুলো খাস কেন রে তুই?

কী করে বুঝলেন ছ্যার?

কপালভাতি করে রাসকেল।

কিন্তু মুলো আমার ফেবারিট ফুড হ্যাবিট ছ্যার। ওটা ছাড়লে কী খাব ?

খেতে হবে না তুমি চোষো।

মানে ছ্যার?

বল তো রামছাগল আমি কোন কলেজ থেকে পাশ করেছি?

কেন ছ্যার , ম্যাসা চুষে চুষে—

এইতোএবার বুঝেছ হোঁদল । নাও গেট আউট। না হলে হেঁজ গাছের কঞ্চি দিয়ে—

না ছ্যার, প্লিজ ছ্যার। আমি যাচ্ছি।কিন্তু যাওয়ার আগে একটা কথা ছ্যার।মানে বলছিলাম কি, আমার বাবা গোমুত্ত বেচে অনেক টাকা দিয়ে সুইফট ডিসায়ার কিনেছিল। ডিসেল গাড়ি।মাইলেজ বেশি। তা বাবা টেস ডাইভ করেছিল গাড়িটার। আমাদের দোণাচাজ্জের টেস ডাইভ হবে না ছ্যার? যদি পথ ভুলে দুম করে ভিয়েতনাম চলে যায় কে খুঁজতে যাবে বলুন তো ছ্যার?

কথাটা মন্দ বলিস নি গবেট। যা ব্যাল্কানি থেকে তোর দোণাচাজ্জকে আকাশে ছেড়ে দে। দ্যাখ কি ইনফরমেশান আনে আমার ইনভেনশান

ছেড়ে দিলাম ছ্যার। দোণাচাজ্জ হেব্বি উড়ছে। আপনার জবাব নেই। থিরি ইডিয়েটের তিনটার চেয়ে আপনি অনেক বেশি ইডিয়েট ছ্যার।

এই শোন তোর ওই গোমুতমাখা কমেন্টগুলো মস্তিষ্কের গোবরে লুকিয়ে রাখ। মনিটরে গিয়ে দ্যাখ দ্রোণাচার্যর আর্টিফিশিয়াল ইনটেলিজেন্ট চোখে কী ধরা পড়ল? সিস্টেমের এগেইন্সটে সব ষড়যন্ত্র বার করে আনব এইবার। দ্যাখ গবেট ভালো করে দ্যাখ।

দেখছি ছ্যারএকটা বাড়ি দেখা যাচ্ছে ছ্যার।সারা ঘরে মোটা মোটা বই পত্তর ছড়ান। মেঝেতে সব্জির টুকরো । মা ছেলেকে সব্জি কাটতে কাটতে পড়াচ্ছে ছ্যার।পেয়েছি ছ্যার। সব্জির মধ্যে দুটো মুলো আমার ফেবারিট ফুড হ্যাবিট।

মুলো! তোমার কান দুটো মুলে দেব রাস্কেল।আর কী দেখতে পাচ্ছিস বল?

ছ্যার, একটা লোক জানলার দিকে তাকিয়ে কী সব ভাবছে।

তাড়াতাড়ি তীব্র ভাবনা নিষ্কাশক প্রোগ্রামটা চালু কর। যাদের ঘরে এত বইপত্তর ছড়ানো তারা সবসময় ডেঞ্জারাস কিছু ভাবে। জলদি কর। মনিটরে দ্যাখ লোকটার কী কী ভাবনা প্রবাহিত হচ্ছে?

ছ্যার, দেখতে পাচ্ছি, পাহাড় নদী সমুদ্দ আইল্যান্ড গভীর জঙ্গল আর ধানক্ষেত।মনে হয় লোকটা ট্যাভেল এজেন্ট

এই না হলে তোর বুদ্ধি? মর্কট লোকটা কবি। ওই আইল্যান্ডটা আসলে দারুচিনি দ্বীপ। ওই ধানক্ষেতে লোকটা পাকা ধানের লাবণ্য দেখছে। ডেঞ্জারাস ব্যাপার স্যাপার।

পাকা ধানের লাবণ্যে কী ডেঞ্জারাস আছে ছ্যার?

কল্পনা কল্পনা। ভারী ডেঞ্জারাস ব্যাপার। বাড়ির অ্যাড্রেসটা সেভ করে নে। চোখে চোখে রাখতে হবে। দ্যাখ দ্রোণাচার্য আবার উড়তে শুরু করেছে। কী দেখা যাচ্ছে জলদি বল।

সত্যি ছ্যার। আমাদের পাড়াতেই কত ডেঞ্জালাস ব্যাপার চলছে সারা পিথিবিতে না জানি কত! আমাদের টেস ডাইভ হেব্বি সাক্সেস ছ্যার। এই খুশীতে একটু ভাঁড়ে চা খাবেন?

চাবুক মেরে ছাল ছাড়িয়ে দেব তোমার। জানোনা আমাদের হাতে সময় কম। একমাসের মধ্যে সব ডেটা ডোনাল্ড ডাককে দিতে হবে।

ডোনাল্ড ডাক কে ছ্যার?

ওটা ছদ্মনাম। আসল নাম বলতে নেই। আমেরিকায় থাকে। আমাদের সবার বাবা।

বাব্বা। আপনার বাবা ডোনাল্ড ডাক? রোব্বার সকালে কাটুন হত ছ্যার। মিকি মাউস। ওখানে দেখেছি।ওই কাটুন ক্যালেক্তারটার এমন তেজস্সি সন্তান আছে জানতাম না ছ্যার। আমার নলেজ অনেক বেড়ে গেল

দাড়া প্রজেক্টটা একবার শেষ হোক তোর ব্যবস্থা আমি করব। অনেক সহ্য করেছি। দ্যাখ ভোঁদড় দ্রোণাচার্য আবার কী ডেঞ্জারাস ব্যাপার দেখাচ্ছে?

হ্যাঁ ছ্যার দেখছি ছ্যার। একটা দেওয়াল । দেওয়ালে পদ্মফুল আঁকা।

আর কী দেখতে পাচ্ছিস?

ছ্যার মানেমনুষ্যজাতি অতিরিক্ত জলসেবনের দরুন সেই অতিরিক্ত জল দেওয়ালে মুত্ররুপে নিক্ষেপ করিতেছেপ্রত্যেকে নিজস্ব ইস্টাইলে নিজস্ব মুত্রবর্ণে রকমারি জলের ধারায় দেওয়াল ভিজাইতেছে ছ্যার।পানের দোকানের বিশুদাকেও দেখা যাইতেছে আর ছ্যার

থামকী ল্যাংগুয়েজে কথা বলছিস?

সাধু ভাষা ছ্যারবাবা কঞ্চি পাছায় মেরে মেরে আমায় শিখিয়েছে যে নোন্না কথা সাধু ভাষায় বলতে হয়। পাপ কমে যায়। সাধু সন্তদের ভাষা কিনা ছ্যার। কিন্তু একটা জিনিস বুঝলাম না সুলভের অভাবে দেওয়ালে নির্বিকার প্রস্রাব করিবার মধ্যে কী ডেঞ্জারাস ব্যাপার লুক্কায়িত আছে?

যা, একটা হেঁজ গাছের কঞ্চি নিয়ে আয়ওইটাই তোর ওষুধ। আরে ছাগল দ্রোণাচার্য গাছের ডালে আটকে গেছে। নড়তে পারছে না।তাই ওর চোখটাও ওই দেওয়ালে ফিক্সড হয়ে গেছে। অটোরিস্টার্ট প্রোগ্রামটা চালা।

চালিয়েছি ছ্যার।কিন্তু এখনও মনিটরে দুর্নিবার গতিতে ধারাপাত চলিতেছে ছ্যার।

সেকি! আশ্চর্য!

আমার মনে হয় দোণাচাজ্জ পলাশ গাছের ডালে আটকে গ্যাছে ছ্যার

তাতে কী।

ওখানে অনেক পাখি আছে ছ্যার।

তাতে কী হল?

না মানেবোধ হইতেছে কিছু নিম্নজাতের কৃষ্ণবর্ণ পক্ষি দোণাচাজ্জের সেরিব্বাল সেন্সরের উপর বিষ্ঠাত্যাগ করিয়াছে। ইলেকটো ম্যাগনেটিক ওয়েভ কি ছ্যার বিষ্ঠার অন্তর ভেদ করিতে পারে না?ছ্যার আপনার খুব রাগ হচ্ছে না? আপনি কাঁপছেন কেন ছ্যার? আমি কি ছ্যার গাছে উঠে দোণাচাজ্জকে পেড়ে আনব? নিয়ে আসি ছ্যার? কদ্দিন গাছে চড়িনি ? যাই ছ্যার।কী হল ছ্যার? আপনি পড়ে গেলেন কেন ছ্যার? ও ছ্যার? ও ডোনাল্ড ডাক?ও মিকি মাউস?ডোরেমন পোকেমন, ও ছ্যার?

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

20 Responses

  1. “ওখানে মাঝে মাঝে মাদি হাতি আসে ছ্যার। ওর পিছনে ইসিকিওর না ইনসিকিওর নামে কী একটা নাসসিং হোম আছে না, মরে গেলেও যেখানে বডি ছাড়ে না” …. “ওই কাটুন ক্যালেক্তারটার এমন তেজস্সি সন্তান আছে জানতাম না ছ্যার”
    …..ডোনাল্ড ডাক আসলে কে এবং তার কাজকম্মের নমুনা চমৎকার ভাবে ফুটিয়ে তুললেন আপনি … মনে থাকবে এই লেখা… আরও অনেকক্ষণ চললে খিদেটা মিটত হয়ত ..

  2. অনবদ্য!! হাস্যরসের অভিঘাতে কিছুটা এই সময়েরই ঝাঁকি দর্শন!! বোঝা গেল লেখক অতিশয় Punআসক্ত!!

  3. বেশ মজার। আরও একটু হলে যেন ভালো হোতো। দারুণ প্রয়াস। আভিনন্দন।

  4. সুতীক্ষ্ণ sattire আর দমফাটা হাস্যরসের মাখোমাখো preparation ..দারুন উপভোগ করলাম

  5. অসম্ভব ভালো লাগলো। একদম অন্য মুডে লেখা। 🙂

  6. অসম্ভব ভালো লাগলো। একদম অন্য mood এর গল্প। 🙂

  7. Exerimental লেখা। এ ধরণের লেখা আগে পড়িনি। ভালো লাগলো। চলুক। 🙂

  8. Bapok likhacho…MIT r totla markha pronunciation, colg r location description, r oi goumotror reference ta bapok chilo….anak din por Ekta valo satire porlam…hebby hoyeche….

  9. Bapok lekhar…..anak din por si rokom Ekta sarcastic lekha porlam jeta pore eto moja pelam….oi gobet n robot r similarity r opor vichar, MIT r totlamarkha pronunciation, colg location r portion ta, n gou moutror ref gulo durdanto chilo….bapok punch line…

  10. Shankha da the sense of humour in this short story is unfathomable. Oshadharon moja pelam ! MIT theke dronacharjya shob ghete tho !

Please share your feedback

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nayak 1

মুখোমুখি বসিবার

মুখোমুখি— এই শব্দটা শুনলেই একটাই ছবি মনে ঝিকিয়ে ওঠে বারবার। সারা জীবন চেয়েছি মুখোমুখি কখনও বসলে যেন সেই কাঙ্ক্ষিতকেই পাই