ত্বকের যত্ন নিন

৩৭ বছর বয়সেও সংগীতাকে দেখলে মনে হয় যেন সদ্য কলেজ পাশ করেছে। কে বলবে যে
তাঁর ২০ বছরের মেয়ে আছে? চুলে লেয়ার কাট। একটা ব্রাউনিন্স আভাও চোখে পড়ে।
মুখের চামড়া টানটান। এর রহস্যটা কী ?

বয়স ধরে রাখার কি তাহলে সত্যি কোন গোপন রহস্য আছে? আগে যেখানে মেয়েদের
বলা হতো কুড়িতেই বুড়ি, আর এখন ৪০ পার করলেও বোঝা উপায় নেই। কি করেই বা
বোঝা যাবে। সংগীতার মতো আজ অনেক নারীই যে এক যাদুর সন্ধান পেয়েছে। হ্যাঁ
ঠিকই পড়ছেন। সে জাদুকাঠির সন্ধান না হয় একটু পরেই দিচ্ছি |

বয়স বাড়লে এর প্রভাব প্রথমেই ত্বকের উপরে পড়বে । আর এটাই স্বাভাবিক।
চোখের তলায় ভাঁজ, কালো দাগ। বলিরেখা, নির্জীব ত্বক এসবই বয়সের ছাপের
লক্ষণ। জেনে রাখা দরকার ত্বকের এই দশার কারণ কি ?

শু
ধুমাত্র বয়সের কারণেই যে ত্বক এমন হয়ে যায় তা নয়। ত্বকের তারুণ্য
হারিয়ে যাওয়ার পেছনে থাকে অনেক কারণ। অল্প বয়সেও ত্বক তারুণ্য হারিয়ে
ফেললে, ত্বকে তা ধরা পরে। বলিরেখা দেখা যায়। হালে দেখা যাচ্ছে, পরিণত
বয়সের আগেই চেহারায় বলিরেখা পড়ছে। রুদ্র আবহাওয়া, ত্বকের সঠিক যত্ন না
নেয়া, সূর্যের ক্ষতিকর অতিবেগুনী রশ্মি, সঠিক খাদ্যাভ্যাসের অভাব, বাজে
অভ্যাস, অতিরিক্ত মানসিক চাপ, দুশ্চিন্তা, অতিরিক্ত রাগ, বলিরেখা পরার
কারণ। আমাদের কিছু বদ আভ্যাস থেকেও মুখে বলিরেখা পরে। যেমন গালে হাত দিয়ে
রাখা, একটুতেই ভ্রু কুঁচকে থাকা, মুখে বিরক্তি ভাব ইত্যাদি। এই সব কারণে
তারুণ্য হারায় ত্বক।

যাঁদের ধূমপানের অভ্যাস আছে তাঁদের ত্বকে দ্রুত বলিরেখা পরে। বিভিন্ন
সময়ে গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে যারা ধূমপান করে তাদের ত্বক অন্যদের চাইতে
তাড়াতাড়ি রুক্ষ শুষ্ক হয়ে যায়। যা থেকে বলিরেখা পরে। কোল্ড ড্রিঙ্কস
খাওয়ার অভ্যাস যাদের অতিরিক্ত, তাঁদের ত্বকেও দ্রুত বলিরেখা পরে যাওয়ার
সম্ভাবনা। এমনকি অতিরিক্ত জাঙ্ক ফুডও বলিরেখার কারণ হতে পারে! ত্বক তাতেও
বুড়িয়ে যায়। আর ত্বকের বয়সের ছাপ পরার আর একটি কারণ, রাত জেগে কাজ করা।
ঘুম কম হলে এর প্রভাব আপনার ত্বকে এবং চুলের উপরেই প্রথম পড়বে।

এখন কি দেখে বুঝবেন, যে আপনার ত্বক তার বয়স হারাচ্ছে?

ত্বকের অল্প বয়সেই তারুণ্য হারানো প্রতিরোধ এবং প্রতিকার করা যেতে পারে
খুব সহজেই। কোনো প্রতিকারের পদক্ষেপ নেয়ার আগে জানতে হবে ত্বকের বুড়িয়ে
যাওয়ার লক্ষণগুলোকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here