চিরশত্রু দুই দেশের শান্তির প্রতীক ছিল অতীতে | এখন ধ্বংসস্তূপ | একসময়ের পরিপাটি বিমানবন্দর এখন সর্বাঙ্গে যুদ্ধের ক্ষত নিয়ে স্মৃতিচিহ্ন মাত্র | কোনও এক সময়ে এর নাম ছিল ইয়াসর আরাফত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর | বোমার আঘাতে পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে যায় ২০০১ সালে | তখন থেকেই বন্ধ উড়ান ওঠানামা | 

বিমানবন্দরটি চালু হয়েছিল ১৯৯৮ সালে | ১৯৯৫ সালে ইজরায়েল এবং প্যালেস্তাইনের মধ্যে ওসলো শান্তি চুক্তির পর | কিন্তু পরবর্তীকালে শান্তি চুক্তি ভেঙে যায় | বিমানবন্দরের উপর হামলা চালায় ইজরায়েলি সেনা | গুঁড়িয়ে যায় জাপান, মিশর, সৌদি আরব, স্পেন আর জার্মানির যৌথ অনুদানে তৈরি হওয়া ওই বিমানবন্দর |  
তারপর থেকে তা কংক্রিটের ভাঙা চাঙড়ের স্তূপ | একসময়ের লাউঞ্জ থেকে রানওয়ে‚ ভগ্নাবশেষে খেলা করে শিশুদের দল | দাঁত বের করে ব্যঙ্গের হাসি হাসে পরিসংখ্যান | যা বলে‚ এর নকশা করেছিলেন মরক্কোর ইঞ্জিনিয়াররা । খরচ হয়েছিল আট কোটি ৬০ লক্ষ ডলার ।

প্রায় আড়াই বর্গ কিমি জায়গা জুড়ে গড়ে ওঠা বিমানবন্দরে প্রতি বছর যাওয়া আসা করতে অন্তত সাত লক্ষ যাত্রী | এখন সবই ইতিহাস | যুদ্ধের বারুদের গন্ধ মুছে দেয় মানুষের সৃষ্টিসুখের উল্লাস |

আরও পড়ুন:  ‘হ্যাংওভার লিভ’ পাচ্ছেন এই কোম্পানির কর্মীরা!

NO COMMENTS