ফেসবুক-সহ সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে ঘোরা ফেরা করা অজস্র মিম-এর সঙ্গে এই ছবি আমরা প্রায় সকলেই দেখেছি। সাধারণত মজাদার, হাস্যকর কোনও বিষয়, মজাদার কৌতুক কিছু পোস্টে বিপুল হারে ব্যবহার করা হয় এই ছবিটি। ইউরোপ, আমেরিকায় এই ছবিটি পরিচিত ‘ফাক দ্যাট গাই’ বা ‘ডাম্ব বিচ’ নামে। বর্তমানে ফেসবুকের বিভিন্ন বাংলা পেজের পোস্টগুলিও এই ছবিটি ব্যবহার করেই তৈরি করা। তবে বলুন তো ছবিটি কাল্পনিক? নাকি এই ছবির আড়ালে লুকিয়ে রয়েছে কোনও বাস্তব মুখ?

সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে ঘোরা ফেরা করা অজস্র মিম-এর সঙ্গে ব্যবহৃত হাস্যকর মুখভঙ্গির এই ছবিটির আসল পরিচয় হল ইয়াও মিং-এর। একজন প্রাক্তন বাস্কেটবল খেলোয়াড়। কিন্তু ইয়াও মিং-এর এই ছবিটি কখন, কী ভাবে ভাইরাল হল? ২০০৯ সালে একটা বাস্কেটবল ম্যাচের পরে সাংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়েছিলেন ইয়াও মিং-। ওই সময় এই মজার অভিব্যক্তিটি তাঁর মুখে ফুটে ওঠে। এর পরের বছর অর্থাৎ, ২০১০ সালে ‘রেজ কমিক্স’ ক্যাম্পেনের মাধ্যমে ‘ডাম্ব বিচ’ নামে মিং-এর এই অভিব্যক্তির ছবি দিয়ে তৈরি মিমটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। তার পর থেকেই হাস্যকর ‘সোশ্যাল পোস্ট’-এর প্রতীক হয়ে উঠেছে ইয়াও মিং-এর ছবিটি।

Banglalive-8

৩৮ বছর বয়সি বাস্কেটবল খেলোয়াড়ের জন্ম চিনের সাংহাই প্রদেশে। উচ্চতা সাড়ে ৭ ফুট। খুব ছোটবেলাতেই মিং তাঁর এক কানের শ্রবণশক্তি হারান। চিনের সাংহাই শার্কস-এর হয়ে দীর্ঘদিন বাস্কেটবল খেলেছেন তিনি। আমেরিকায় এনবিএ (NBA)-র হিউস্টন রকেটস দলেও খেলেছেন তিনি। খেলা থেকে অবসর নেওয়ার পর মিং চীনা বাস্কেটবল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি পদে নিযুক্ত হন।

Banglalive-9
আরও পড়ুন:  ২০০-রও বেশি বছর ধরে ব্রিটিশ চিলেকোঠায় সোনার কৌটোয় বাদাম ও টিপু সুলতানের তরবারি

NO COMMENTS