প্রকৃতির জাদু ! মৃত্যু উপত্যকা শুষ্কতম মরুভূমি রাতারাতি হয়ে গেল ফুলের বাগিচা

1074

ছিল মরুভূমি | হয়ে গেল ফুলের বাগিচা | প্রকৃতির জাদু একেই বলে | রাতারাতি বিরল প্রজাতির কয়েকশো রকম ফুলে ছেয়ে গেছে বিশ্বের শুষ্কতম মরুভূমি আটাকামা | দেখতে ঢল নেমেছে অগণিত পর্যটকদের |

লাতিন আমেরিকায় চিলির উত্তর অংশে ৬০০ মাইল বা ১০০০ কিমি অংশ জুড়ে বিস্তৃত আটাকামা মরুভূমি | দুই মেরু অঞ্চলের পরে এই মরুই বিশ্বের শুষ্কতম অঞ্চল | আটাকামাকে ঘিরে আছে পেরু‚ বলিভিয়া‚ আর্জেন্তিনা | 

বৃষ্টিবিরল আটাকামায় বার্ষিক বৃষ্টিপাতের পরিমাণ মেরেকেটে  ০.৬ ইঞ্চি বা ১৫ মিলিমিটার | কিন্তু অগাস্টের মাঝামাঝি আটাকামায় প্রবল বর্ষণ হয় |  প্রশান্ত মহাসাগরে এল নিনোর প্রভাবে | আর এই বর্ষণধারায় সিক্ত হয়ে ফুলের সাজে সেজে ওঠে আটাকামা | প্রতি পাঁচ সাত বছর অন্তর | পোশাকি ভাষায় এর নাম সুপার ব্লুম | স্প্যানিশ ভাষায় এর নাম হয়ে গেছে দেজিয়ার্তো ফ্লোরিদো বা ‘ Flowering Desert ‘ | 

আটাকামা জুড়ে বালিতে মুখ লুকিয়ে পড়ে পড়ে থাকে অসংখ্য বীজ | বাতাস বাহিত হয়ে আসে দূর দূরান্ত থেকে | কিন্তু বৃষ্টিপাতের অভাবে অঙ্কুরিত হতে পারে না সেসব বীজ | অগাস্টে বৃষ্টির জলে অঙ্কুরিত হয়ে ফুলে ছেয়ে যায় এই মৃত্যুপুরী | 

এর আগে আটাকামায় সুপার ব্লুম হয়েছিল ২০১৫ সালে | তাই এত তাড়াতাড়ি আবার ফুলের রাজত্ব বেশ অপ্রত্যাশিতই | অন্তত ২০০ রকমের রঙ বেরঙের ফুল ফুটেছে | আরও ফুটবে বলে আশা বিশেষজ্ঞদের |

প্রসঙ্গত আটাকামা এতই শুষ্ক যে এর বহু অংশে আজ অবধি বৃষ্টিপাতের কোনও রেকর্ডই নেই | এখানে উদ্ভিদ-প্রাণী তো বটেই | জীবাণুর টিকে থাকাও মুশকিল | সেই বধ্যভূমিই এখন ফুলের উপত্যকা | ভ্যালি অফ ডেথ হয়ে গেছে ভ্যালি অফ ফ্লাওয়ার্স |

Advertisements

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.