‘ডিএনএ সমস্যার জন্য মমতা সত্যি কথা বলতে পারেন না’

45

‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিএনএ সমস্যা রয়েছে | তাই উনি কিছুতেই সত্যি কথা বলতে পারেন না | আমার তো মনে হয় ওঁর প্যাথোলজিক্যাল অসুবিধে আছে | তাই আবোল তাবোল বকেন | সত্যির কোনও কারবার নেই |’ মন্তব্য সিপিএম নেতা গৌতম দেবের |

মঙ্গলবার সাংবাদিক বৈঠক করেন গৌতম দেব | সেখানেই মুখ্যমন্ত্রীকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করেন তিনি | গৌতমের কথায়, মমতা রাতে ভাল করে ঘুম হয় না | ভোরে ঘুমোতে যান | কেউ তাঁকে শোনাতে পারেন না দিনভর তিনি কী বলে যান?

এদিন গৌতম নথি দেখিয়ে দাবি করেন, মমতা প্রথম ২০০৪ সালে ছবি বিক্রি করেন | সেবার পেয়েছিলেন ৪ লক্ষ টাকা | এরপর ২০০৭ সালে ছবি বেচে পান ১৪ অথবা ১৭ লাখ টাকা | তার থেকে দান করেন নন্দীগ্রাম কাণ্ডে ভুক্তোভোগীদের এবং স্প্যাসটিক সোসাইটিতে | ২০১১ সালে ছবি বিক্রি করে মমতা কোটি টাকার বেশি পান | দু বছর পরে ২০১৩ সালে ৫৫ থেকে ৬০ লাখ টাকায় বিক্রি হয় মমতার আঁকা ছবি | এসব তথ্য সংবাদপত্র এবং তৃণমূলের সাইট থেকে নিয়েছেন বলে দাবি গৌতম দেবের |

কিন্তু আয়কর বিভাগকে যে তথ্য তৃণমূল জানিয়েছে, তার সঙ্গে এর কোনও মিল নেই বলে অভিযোগ গৌতমের | এবং সেখানেই সিপিএম নেতার প্রশ্ন, আয়কর বিভাগে যে বাড়তি আয় দেখানো হয়েছে ছবি বিক্রি বাবদ, তার উৎস কী? কে কিনল এই ছবি?
গৌতমের কথায়, ‘সুদীপ্তর টাকায় দল চলত | এখন অস্বীকার করলে বা রাগ করলে হবে? ছবির ক্রেতাদের তালিকা কোথায়? ৩ কোটি টাকার জায়গায় ১০ কোটি এল কোথা থেকে? হিসেব দিতে হবে |’

ছবি বিক্রির পাশাপাশি গৌতম দেব মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির লোকদের সম্পত্তি নিয়েও কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন | কলকাতা পুরসভা থেকে দলিল ও নথি এনে গৌতমের অভিযোগ, ৩০ বি হরিশ চ্যাটার্জি স্ট্রিটের একই পরিবারের সদস্যরা একাধিক সম্পত্তির মালিক | জমি-বাড়ি মিলিয়ে তার পরিমাণ ২০ কোটি টাকার কম নয় বলে দাবি গৌতম দেবের | এই ফান্ড এল কোথা থেকে? মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে উত্তর চেয়েছেন গৌতম |

গৌতম দেবকে পাল্টা আক্রমণ ফিরহাদ হাকিমের | সিপিএম নেতাকে ‘পাগলা গৌতম’ বলে সম্বোধন করে ফিরহাদের তোপ, একজন মহিলার DNA নিয়ে তিনি মন্তব্য করে অপমান করেছেন | এরকম লোককে সমাজচ্যুত করা উচিত | পাশাপাশি, ফিরহাদের বক্তব্য, রাজনৈতিক পথে লড়াই করতে না পেরে গৌতম দেব ব্যক্তিগত আক্রমণের এবং কুৎসার পথে গেছেন | তাঁর দাবি, মুখ্যমন্ত্রীর ভাইরা সৎ পথে উপার্জন করেছেন |

পাশাপাশি ফিরহাদের অভিযোগ, গৌতম দেব নিজেই সুদীপ্ত সেনের পরিচিত | গৌতম দেবের কাছে সুদীপ্ত সেন সাদা খাম পাঠাতেন | ফিরহাদের প্রশ্ন, সুদীপ্ত কি সাদা খামে গৌতমকে প্রেম পত্র পাঠাতেন? নাকি তাঁদের মধ্যে অন্য সম্পর্ক ছিল, যেগুলো এখন শোনা যায়! একজন ব্যবসায়ী সাদা খামে সিপিএম নেতাকে কী পাঠাতেন বোঝাই যাচ্ছে |ফিরহাদের বক্তব্য, চাঁদের কলঙ্ক থাকতে পারে | কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিষ্কলঙ্ক |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.