ফোনাসক্তি তাড়াবার কিছু সহজ উপায়

সময়ের  সঙ্গে আমরা হয়ে পড়েছি ভীষণভাবে প্রযুক্তিনির্ভর | শেষ কবে আমরা ফোন ছাড়া বাড়ি থেকে বেরিয়েছি তাই মনে করতে পারব না হয়ত | তবে ব্যবহারের সঙ্গে সঙ্গে অপব্যবহারের মাত্রাও বেড়েছে ফোনের | আমাদের অবসরের বেশিরভাগটাই আমরা এখন ফোন ব্যবহার করেই কাটাই | এবং এর ফলেই আমাদের অনেকের মধ্যে দেখা যায় ফোনের প্রতি আসক্তি | ফোন ছাড়া যেন এক মুহূর্তও  কাটতে চায় না | এবং এর ফলেই আমাদের অনেক দরকারি কাজের ক্ষতি হয় | বিশেষত ছোটদের পড়াশোনার ক্ষেত্রে সবথেকে বেশি ক্ষতি হয় | অনেক বাবা মা ই এই কারণে ছেলেমেয়েদেরকে ফোন দিতে চান না | কিন্তু না দিলেও নয় | কারণ ফোনের দরকারও আছে | যাতে অদরকারের থেকে বেশি দরকারে ফোন ব্যবহৃত হতে পারে তার জন্যেই আমরা মেনে চলতে পারি কিছু অতি সহজ উপায় | এতে সময়ের অপচয়ও হবে না |

১| বেশিরভাগ অ্যাপ বা গেমই আমাদের ফোনের প্রতি আসক্ত করে তোলে | তবে এমনও কিছু অ্যাপ রয়েছে যে আমাদের ফোনের প্রতি আসক্তি কাটাতে সাহায্য করবে | সঠিক ভাবে সময় ব্যবহার করার জন্য Pomodoro Timer Lite, Forest, Stay Focused, Rescuetimeইত্যাদি অ্যাপের ব্যবহার করা যেতে পারে | এগুলি মুলত আমাদের টাইম ম্যানেজমেন্ট করতে সহায়তা করবে |

২| ফোনের দিকে যাতে বারবার মন না চলে যায় তার জন্য আমরা জরুরি কোনও কাজ করার সময় ফোনটাকে সুইচ অফ করে রাখতে পারি | বা সুইচ অফ করতে না চাইলেAirplane Mode বা Do not disturb mode অন করেও রেখে দিতে পারি | যদি একান্তই জরুরি কোনও কল আসার কথা থাকে তাহলে ফোন অফ না করে বিকল্প হিসেবে ডেটা কানেকশন বা WiFi অফ করেও রাখা যায় | এর ফলে ফেসবুক‚ হোয়াটস অ্যাপ বা সোশ্যাল মিডিয়ার কোনও নোটিফিকেশন ফোনে আসার সুযোগ থাকবে না এবং জরুরি কোনও কল বা মেসেজ আসলে তাও আমরা দেখতে পাব |

৩| আরেকটি উপায় হতে পারে ফোন চোখের সামনে না রাখা | সাধারণত ফোনের দিকে চোখ পড়লেই আমাদের মনে হয় কোথায় কী হল একটু দেখেনি | তাই আমরা যেখানে আছি ফোনটাকে সেই জায়গার থেকে দূরে কোথাও রেখে দিতে পারি | যেমন ধরুন পাশের ঘরে বা আলমারি বা ড্রয়ারের মধ্যে রাখতে পারা যায় |

৪| নিজের আত্মনিয়ন্ত্রণ না থাকলে অন্য কারোর সাহায্যও নেওয়া যায় | বাবা মা‚ ভাই বোন বা বন্ধুর কাছে জরুরি কাজ করার সময় ফোনটা রেখে দেওয়া যায় | কোনও দরকারি ফোন কল এলেই যেন তাঁরা ফোনটি আমাদের হাতে দেন এমন কথা তাঁদেরকে বলেও রাখা যায় |

৫| ফেসবুক‚ হোয়াটস অ্যাপ বা সোশ্যাল মিডিয়ার কোনও নোটিফিকেশন এলেই আমাদের মনে হয় ফোন একবার দেখি | তাই কোনও জরুরি কাজ করার সময় যদি আমরা আমাদের বন্ধুদেরকে জানিয়ে রাখি যে আমরা ব্যস্ত আছি‚ কাজ শেষ হয়ে গেলে তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করব তাহলে তাঁরাও আমাদেরকে কোনও মেসেজ পাঠাবেনা আর আমাদেরও ফোন চেক করার ইচ্ছে হবে না |

তবে ইচ্ছের উপর সবকিছুই নির্ভর করে | আপনার ইচ্ছে না থাকলে আপনি আপনার জরুরি কাজ ফেলে রেখেও ফোনে মগ্ন থাকতে পারেন | কিন্তু তাতে ক্ষতি আপনারই | তাই একটু আন্তরিকভাবে চেষ্ট করলেই ফোনের থেকে মনকে ফিরিয়ে আনতে পারবেন আপনি |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.