ইমরান হাসমি বলিউডে ডেব্যু করেছিলেন ২০০৪ সালে | ওঁর প্রথম ছবি অনুরাগ বসু পরিচালিত মার্ডার খুবই সফল হয় | এই ছবিতে ইমরানকে দেখা গিয়েছিল এক বিবাহিত মহিলার সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়তে | অনেকেই জানে না ইমরানের সত্যিকারের জীবনেও কিন্তু একই অভিজ্ঞতা হয়েছিল ওঁর |

Banglalive

একটা পুরনো সাক্ষাৎকারে ইমরান নিজে জানিয়েছিলেন ওঁর একজন বিবাহিত মহিলার সঙ্গে সম্পর্ক ছিল | তবে একই সঙ্গে উনি জানান ওই মহিলার সঙ্গে যখন সম্পর্ক তৈরি হয় ওঁর তখন উনি জানতেন না সেই মহিলা বিবাহিত |

অভিনেতা স্বীকার করেছেন এই কথা জানার পর উনি সেই বিবাহিত মহিলার সঙ্গে সম্পর্ক ভেঙে দিতে চেয়েছিলেন | কিন্তু পারেননি | ওঁর কথায়  যে মুহূর্তে জেনেছিলাম সেই মুহূর্তে আমার সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসা উচিত ছিল | কিন্তু প্রেম করার সময় সব লজিক বিসর্জন দিয়েছিলাম আমি | আমি জানতাম শেষ অবধি এই সম্পর্কের কী পরিনতি হবে | কিন্তু তাও নিজেকে আটকাতে পারলাম না |

ইমরানের বিবেক দংশন হয় কিন্তু তাও উনি সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসতে পারেননি | ইমরানের কথায় আমি নিজেকে বারবার প্রশ্ন করেছি এটা আমি কী করছি? আমি যদি ওর স্বামী হতাম তাহলে যে ওর বউয়ের সঙ্গে এক্সট্রা ম্যারিটাল করছে তাকে প্রাণে মেরে ফেলতাম | এইসবও ভেবেছি | কিন্তু জানি না কেন তাও আমি সেই সম্পর্ক থেকে কিছুতেই বেরিয়ে আসতে পারছিলাম না |

পরে ইমরান এবং সেই মহিলা ধরা পড়ে যান | এবং সম্পর্ক শেষ হয়ে যায় ওঁদের | ইমরান বলেন সেই মহিলার স্বামী একদিন আমাদের হাতেনাতে ধরে ফেলে | মহিলার স্বামীর সঙ্গে অমার হাতাহাতিও হয় | বন্ধুদের মধ্যস্থতায় মিটমাট হয় | আমি প্রতিজ্ঞা করি আর কোনদিন সেই মহিলার সঙ্গে দেখা করব না | আমাদের সম্পর্ক শেষ হয়ে যায় |

এই ঘটনা যখন ঘটে ইমরান তখন আইবুড়ো ছিলেন | পরে ওঁর পারভীন সাহানির সঙ্গে বিয়ে হয় | এখন পারভীন আর ছেলে আয়ানের সঙ্গে সুখে সংসার করছেন ইমরান হাসমি |

আরও পড়ুন:  রাস্তায় রেগে চিৎকার করলেন 'অভদ্র' অনুষ্কা! ?

NO COMMENTS