মায়ের খোঁজে বারবার কুহেলী ভেদ করে ছুটে যাওয়া সেই রাণুও পৌঁছলেন মাঝবয়সে

মায়ের খোঁজে বারবার কুহেলী ভেদ করে ছুটে যাওয়া সেই রাণুও পৌঁছলেন মাঝবয়সে

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

মায়ের খোঁজে বারবার কুহেলী ভেদ করে পাহাড়ের পাকদণ্ডী বেয়ে চলে যেত ছোট্ট রাণু | বড় হয়েও গিয়েছিলেন তিনি | ব্যক্তিগত জীবনে | ভালবাসার খোঁজে | দেখেছিলেন এর থেকে জটিল আর ঘন কুহেলী আর অন্য কিছু নেই | এখন অবশ্য বেশি ভরসা পান পশুপ্রেমেই | জীবে প্রেম করে যেইজন‚ সেইজন সেবিছে ঈশ্বর‚ এটাই জীবনদর্শন বলে মেনেছেন বিধায়ক তথা অভিনেত্রী দেবশ্রী রায় | সদ্য পূর্ণ করলেন ৫৬ বছর বয়স |

# জন্ম কলকাতায় ১৯৬১-র ৮ অগাস্ট | বাবা বীরেন্দ্রকৃষ্ণ রায় ও মা আরতি রায় | বাড়ির আদরের ডাকনাম চুমকি |

# ছোট থেকেই নাচে খুব আগ্রহ | মাত্র তিন বছর বয়স থেকে মঞ্চে অনুষ্ঠান | বাড়িতে মা-দিদির কাছে হাতেখড়ি | পরে দীর্ঘ প্রশিক্ষণ গুরু কেলুচরণ মহাপাত্র ও বন্দনা সেনের কাছে | নিজস্ব দলের নাম নটরাজ |

# মাত্র ৫ বছর বয়সে প্রথম অভিনয় | শিশুশিল্পী হিসেবে হিরণ্ময় সেনের ছবি পাগল ঠাকুর-এ | তার দু বছর পরে একই পরিচালকের ছবি বালক গদাধর | 

# ১৯৭১ সালে তরুণ মজুমদারের ব্লক বাস্টার ছবি কুহেলী | খুদে রাণুর ভূমিকায় দেবশ্রী | যদিও ছবির ক্রেডিট টাইটেলে তাঁর নাম ছিল মিস চুমকি |

# পূর্ণাঙ্গ নায়িকা হিসেবে প্রথম ছবি অরবিন্দ মুখোপাধ্যায়ের নদী থেকে সাগরে | এর পরে বেশ কিছু ছবি | তবে সেগুলো সেরকম সাফল্য পায়নি |

# আবার তুমুল সাফল্য এল সেই তরুণ মজুমদারের হাত ধরেই | ১৯৮০ সালে সুপারডুপার হিট দাদার কীর্তি | তার পাঁচ বছর পরে ভালবাসা ভালবাসা | দেবশ্রী তখন বাণিজ্যিক ছবির প্রথম সারির নায়িকা | 

# বাংলা বাণিজ্যিক ধারায় তাঁর উল্লেখযোগ্য কাজ হল মেঘমুক্তি‚ দেবীবরণ‚ বিষবৃক্ষ‚ তবু মনে রেখো‚ পারাবত প্রিয়া‚ সুরের আকাশে‚ যোদ্ধা‚ সম্রাট ও সুন্দরী‚ চোখের আলোয়‚ ত্রয়ী‚ ভয়‚ রক্তেলেখা‚ ওরা চারজন‚ হীরের শিকল‚ বেয়াদপ‚ নাগপঞ্চমী‚ শ্রদ্ধাঞ্জলি‚ তোমার রক্তে আমার সোহাগ-এর মতো ছবি |

# পাশাপাশি করেছেন অপর্ণা সেনের ৩৬‚ চৌরঙ্গি লেন‚ ঋতুপর্ণ ঘোষের উনিশে এপ্রিল‚ অসুখ‚ গৌতম ঘোষের দেখা‚ বাপ্পাদিত্য বন্দ্যোপাধ্যায়ের শিল্পান্তর‚ সুভদ্র চৌধুরীর প্রহর-এ | 

# অন্য স্বাদের ভূমিকায় দেখা যায় আজব গাঁয়ের আজব কথা‚ স্বামী বিবেকানন্দ‚ এক যে আছে কন্যা‚ তিস্তা‚ নটী বিনোদিনী‚ শুকনো লঙ্কা ছবিতে |

# আটের দশকের গোড়ায় জমেছিল তাঁর বম্বের কেরিয়ারও | পরপর করেছিলেন জিয়ো তো অ্যায়সে জিয়ো‚ বুড়া আদমি‚ জাস্টিস চৌধরি‚ ফুলওয়াড়ি ছবিতে | ১৯৮৫ সালে অভিনয় কভি আজনবি থে ছবিতে | যতটা সুপারহিট হবে এই ছবি‚ ভাবা হয়েছিল‚ ততটাই মুখ থুবড়ে পড়েছিল | দেবশ্রীর মুম্বই-কেরিয়ার বা ক্রিকেটার সন্দীপ পাটিলের সঙ্গে প্রেম‚ কোনওটাই স্থায়ী হয়নি |

# কাজ করেছেন মালয়লম এবং তামিল ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতেও | তামিল ছবিতে তাঁর পরিচয় চিন্তামণি নামে |

# জাতীয় পুরস্কার ছাড়াও সম্মানিত হয়েছেন বঙ্গ বিভূষণ‚ বিএফজে এ অ্যাওয়ার্ড এবং কলাকার অ্যাওয়ার্ডসে |

# ১৯৯২-১৯৯৫ অবধি প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে সংক্ষিপ্ত দাম্পত্য | এরপর আর বিবাহিত জীবনে পা রাখেননি দেবশ্রী | উনিশে এপ্রিল ছবির জন্য একদিকে যখন জাতীয় পুরস্কার পাচ্ছেন‚ অন্যদিকে তখন ভাঙছে তাঁর বিবাহিত জীবন এবং সংসার | 

# ২০১১ থেকে রায়দীঘির তৃণমূল বিধায়ক | অভিনয়-নাচ-রাজনীতি এবং পশুদের জন্য কল্যাণমূলক কাজ নিয়ে ভালই আছেন রানি মুখার্জির আদরের মাসিমণি | এর বাইরে তাঁর আধ্যাত্মিক জীবন দর্শন জুড়ে আছেন সাইঁ বাবা | তাঁর একনিষ্ঠ ভক্ত দেবশ্রী রায় |

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

Leave a Reply

pandit ravishankar

বিশ্বজন মোহিছে

রবিশঙ্কর আজীবন ভারতীয় মার্গসঙ্গীতের প্রতি থেকেছেন শ্রদ্ধাশীল। আর বারে বারে পাশ্চাত্যের উপযোগী করে তাকে পরিবেশন করেছেন। আবার জাপানি সঙ্গীতের সঙ্গে তাকে মিলিয়েও, দুই দেশের বাদ্যযন্ত্রের সম্মিলিত ব্যবহার করে নিরীক্ষা করেছেন। সারাক্ষণ, সব শুচিবায়ু ভেঙে, তিনি মেলানোর, মেশানোর, চেষ্টার, কৌতূহলের রাজ্যের বাসিন্দা হতে চেয়েছেন। এই প্রাণশক্তি আর প্রতিভার মিশ্রণেই, তিনি বিদেশের কাছে ভারতীয় মার্গসঙ্গীতের মুখ। আর ভারতের কাছে, পাশ্চাত্যের জৌলুসযুক্ত তারকা।