দাম্পত্য কলহ! ই-কমার্স সাইটে স্বামী বিক্রির বিজ্ঞাপন মাত্র ১৪০০ টাকায়

দাম্পত্য কলহ! ই-কমার্স সাইটে স্বামী বিক্রির বিজ্ঞাপন মাত্র ১৪০০ টাকায়

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

বিজ্ঞাপনটি নজরে আসতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তা ভাইরাল হয়ে যায়। একের পর এর কমেন্ট আসতে থাকে এই পোস্টকে কেন্দ্র করে। এই রকম একটি বিজ্ঞাপন সোশ্যাল সাইটে দেওয়া উচিত কিনা সেই নিয়ে শুরু হয়ে যায় বিতর্কও।

একটি স্বনামধন্য ই-কমার্স সাইট ‘ইবে’-তে সামান্য টাকায় নিজের স্বামী-কে বিক্রি করেছেন জার্মানির হামবুর্গ শহরের ৪০ বছর বয়সী ডর্তে নামের এক মহিলা। দীর্ঘদিনের দাম্পত্যে বিরক্তি এসে গিয়েছিল। তাই অনলাইনে নিজের স্বামীকে বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই মহিলা।

উক্ত ই-কমার্স সাইটে ‘স্বামী বিক্রি’-র পোস্ট করে ডর্তে লিখেছেন, দীর্ঘ সাত বছরের বিবাহিত জীবন কাটালেও বর্তমানে তিনি আর তাঁর স্বামীর সঙ্গে একাত্ম বোধ করছেন না। তাই নিজের স্বামীকে ছেড়ে দিতে চান এই মহিলা। এর জন্য ই-কমার্স সাইটে বিক্রি করার চেষ্টা শুরু করেন তিনি। নিজের স্বামীর জন্য বেশি দামও ধার্য করেননি ডর্তে! যিনিই তাঁর স্বামীকে কিনতে চান, তাঁকে খরচ করতে হবে মাত্র ১৬ পাউন্ড বা ভারতীয় মুদ্রায় মাত্র ১৪০০ টাকা! যদিও ডর্তের স্বামী প্রথমে এই ব্যাপারে কিছুই জানতেন না বলে জানিয়েছেন। সংবাদমাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা শুরু হওয়ার পরেই তিনি সবটা জানতে পারেন।

ডর্তে আরও জানিয়েছেন ১৬ তাঁর ‘লাকি’ সংখ্যা। আর সেই কারণেই ১৬ পাউন্ড ধার্য করেছেন তিনি। যদিও এই দামে তাঁর স্বামী-কে কিনতে কারও অসুবিধা থাকে, তা হলে দরাদরি করতেও অসুবিধা নেই তাঁর বলে জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে বিজ্ঞাপনটি পোস্ট করতে না করতেই তা নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই রকম বিজ্ঞাপণ আদৌ দেওয়া উচিত কি না সেই নিয়ে আলোচনা শুরু হয়ে যায়। ইংরেজি এক সংবাদমাধ্যমে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে ডর্তে জানিয়েছেন যে, এই বিজ্ঞাপণ দেওয়ার পর থেকে রীতিমতো সাড়া পাচ্ছেন তিনি। কেউ তাঁর স্বামীকে ‘কেনার’ জন্য আগ্রহ না দেখালেও, তাঁর এই বিজ্ঞাপনের প্রেক্ষিতে প্রচুর ‘স্মাইলি’ পেয়েছেন তিনি। তবে নেহাতই মজা করবার জন্যই এই বিজ্ঞাপনটি দিয়েছিলেন বলে জানান ডর্তে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

Leave a Reply

pandit ravishankar

বিশ্বজন মোহিছে

রবিশঙ্কর আজীবন ভারতীয় মার্গসঙ্গীতের প্রতি থেকেছেন শ্রদ্ধাশীল। আর বারে বারে পাশ্চাত্যের উপযোগী করে তাকে পরিবেশন করেছেন। আবার জাপানি সঙ্গীতের সঙ্গে তাকে মিলিয়েও, দুই দেশের বাদ্যযন্ত্রের সম্মিলিত ব্যবহার করে নিরীক্ষা করেছেন। সারাক্ষণ, সব শুচিবায়ু ভেঙে, তিনি মেলানোর, মেশানোর, চেষ্টার, কৌতূহলের রাজ্যের বাসিন্দা হতে চেয়েছেন। এই প্রাণশক্তি আর প্রতিভার মিশ্রণেই, তিনি বিদেশের কাছে ভারতীয় মার্গসঙ্গীতের মুখ। আর ভারতের কাছে, পাশ্চাত্যের জৌলুসযুক্ত তারকা।

Pradip autism centre sports

বোধ