খুদে ছাত্রীর আবিষ্কারে মুগ্ধ গুগল ধন্যবাদ জানাল

132

অষ্টম শ্রেণীর এক স্কুল পড়ুয়াকে এক অভিনব বৈজ্ঞানিক আবিষ্কারের জন্য বার্তা পাঠিয়ে কৃতজ্ঞতা স্বীকার করল গুগল। তামিলনাড়ুর কোয়েম্বাটোরের মেট্টূপালায়ম-এর একটি স্কুলের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী দর্শিনী। স্কুলে তাঁর শিক্ষক শ্রবণন-এর উৎসাহে বিজ্ঞান এবং বিজ্ঞানের নিত্যনতুন আবিষ্কার নিয়ে তাঁর আগ্রহ এবং ভাললাগা যেন অন্য মাত্রা পায়। আর এবার সেই দর্শিনীর নতুন আবিষ্কারে মুগ্ধ হয়ে গুগল পাঠালো ‘থ্যাঙ্ক ইউ’ নোট।

কী আবিষ্কার করেছে ছোট্ট দর্শিনী ? সে আবিষ্কার করেছে একটি কয়েন ভেন্ডিং মেশিন। এটিএম থেকে যেভাবে নোট বেরিয়ে আসে, দর্শিনীর এই ভেন্ডিং মেশিন থেকে পাওয়া যাবে কয়েন। দর্শিনীর এই প্রতিভা প্রকাশ পেয়েছে এই আন্তর্জাতিক সংস্থা গুগলের হাত ধরেই। গুগলের পক্ষ থেকে বিজ্ঞান এবং কারিগরি বিষয়ে একটি অনলাইন পরীক্ষার আয়োজন করা হয়েছিল। ভারতবর্ষের যেকোনও প্রান্তের শিক্ষার্থীই এই পরীক্ষায় বসতে পারে। মূলত শিক্ষার্থীদের ভেতরকার উদ্ভাবনী ক্ষমতাকে বিকশিত করাই গুগলের উদ্দেশ্য। তাঁর শিক্ষক শ্রবণন দর্শিনীকে এই পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার জন্য উৎসাহ দেন। খুব ছোট থেকেই দর্শিনীর বিজ্ঞান এবং বিজ্ঞানের নয়া আবিষ্কার নিয়ে আগ্রহ ছিল। শিক্ষকের উৎসাহে এই প্রথমবার দর্শিনী এইধরণের পরীক্ষায় অংশ নেয়।

তাঁর শিক্ষক শ্রবণেন-এর দর্শিনীর নিজের করা কয়েন ভেন্ডিং মেশিন-এর নকশা-সহ যাবতীয় বিবরণ পাঠিয়ে দেয় গুগলের কাছে। এই বয়সে একজন স্কুল পড়ুয়ার মস্তিষ্কপ্রসূত এই উদ্ভাবনের কথা জেনে তাঁকে স্বীকৃতি দিতে এগিয়ে আসে গুগল। এই মর্মে গুগলের পক্ষ থেকে তাঁকে একটি সার্টিফিকেটও প্রদান করা হয়েছে। নিজের উদ্ভাবনী শক্তিকে কাজে লাগিয়ে দর্শিনী ভবিষ্যতেও যাতে নিত্যনতুন জিনিস আবিষ্কার করে সেই কথা উল্লখ করে তাঁকে একটা ‘থ্যাঙ্ক ইউ নোট’ পাঠিয়েছে গুগল। গুগলের তরফ থেকে এই বার্তা পেয়ে খুব খুশি ছোট্ট দর্শিনী।

Advertisements

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.