এমন প্রতিশোধের গল্প ! হার মানায় হিন্দি ছবিকেও | 
তিন বছর ধরে নিশানা তাক করে ছিলেন করে ছিলেন ঠাকুমা | অবশেষে লক্ষ্যভেদ করলেন ৭৩ বছর বয়সী বৃদ্ধা | একটি গুলিতেই মেরে ফেললেন ১২ ফিট লম্বা ও ২৬৩ কিলোগ্রাম ওজনের একটি কুমিরকে |

টেক্সাসের বাসিন্দা জুডির সঙ্গে কুমিরটির পুরনো শত্রুতা | বছর তিনেক আগে জুডির পোষা ঘোড়ার কিছু শাবককে আত্মসাৎ করেছিল সরীসৃপটি | কে তার প্রিয় পোষ্যদের এই পরিণতির জন্য দায়ী‚ বুঝতে পেরেছিলেন জুডি | কিন্তু করতে পারেননি | 

সুযোগের অপেক্ষায় ছিলেন | ঘোড়ার মৃত্যুর প্রতিশোধ নিতে উঠে পড়ে লাগেন তিনি । খুঁজতে শুরু করেন কুমিরটিকে । জানতেন কুমিরের বাস ট্রিনিটি নদীতে | কিন্তু স্থানীয় প্রশাসনিক নিয়ম অনুযায়ী তাঁর শহরে কুমির শিকার করা যায় শুধুমাত্র সেপ্টেম্বরের ১০ থেকে ৩০ তারিখ পর্যন্ত। এর মধ্যেই যা করার করতে হতো জুডিকে।

জামাইয়ের সাহায্যে চিহ্নিত করেন ঘাতক কুমিরকে | এরপরই শিকারকে নিকেশ করেন জুডি | উইনচেস্টার .২২ ম্যাগনাম বন্দুক দিয়ে কুমিরটির মাথায় একটি গুলি করেই তাকে ধরাশায়ী করেন | এতেও মেটেনি রাগ | শিকারি জুডি চান কুমিরের মাথা কেটে ঝুলিয়ে রাখবেন নিজের অফিসে !

এ যে ঠাকুর আর গব্বর সিং-এর প্রতিশোধের পর্বকেও টেক্কা দিয়ে গেল |  

আরও পড়ুন:  বিলম্বে উড়ান‚ ৫৫ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ যাত্রীর পকেটে

NO COMMENTS