দয়া করে গর্ভবতী অবস্থায় সিগারেট খাবেন না

সিগারেট খাওয়ার ক্ষতিকর দিক জেনেও বহু পুরুষ এবং মহিলা একের পর এক সিগারেটে সুখটান দিয়ে যান | কিন্তু হবু মা যারা স্মোকিং করেন তারা নিজের শরীরের সঙ্গেও বাচ্চার ক্ষতি করছেন তা জানেন কি? আজকে আমরা দেখে নেবো গভর্বতী অবস্থায় স্মোকিং করলে বাচ্চার কী কী ক্ষতির সম্ভাবনা আছে |

স্মোকিং এর ফলে বাচ্চার ব্রেন ছোট হয়ে যায় : গবেষণার ফলে জানা গেছে গর্ভবতী অবস্থায় সিগারেট খেলে বচ্চার ব্রেন ঠিক মতো বাড়ে না | আসলে স্মোকিং এর জন্য ফিটাস ঠিকমতো ডেভেলপ করে না কারণ neurons নষ্ট হয়ে যাওয়ার ফলে womb এ ঠিকমতো অক্সিজেন পৌছায় না |

স্মোকিং এর ফলে বাচ্চার মেনেনজাইটিস হতে পারে : বৃটিশ রিসার্চারদের রিসার্চ অনুযায়ী যে সব গভর্বতী মহিলারা প্রেগন্যান্সির সময় সিগারেট পান করেছেন তাদের বাচ্চার মেনেনজাইটিস হওয়ার সম্ভবনা বেড়ে যায় |

স্মোকিং এর জন্য বাচ্চার ওজন কমে যায়: ১,২১৬ জন বাচ্চার ওপর পরীক্ষা করে দেখা গেছে যে যে মায়েরা গর্ভবতী অবস্থায় সিগারেট পান করেছেন তাদের বাচ্চাদের ওজন অন্য বাচ্চাদের থেকে কম | কম ওজন হওয়ার ফলে বাচ্চাদের অনেক কিছু সমস্যা হতে পারে যেমন ম্যালনিউট্রিশন ,developmental disorders, শোনার সমস্যা, এমনকি এই তালিকা থেকে হার্টের সমস্যাও বাদ নেই |

আপনার বাচ্চার হার্টের সমস্যা দেখা দিতে পারে: যে মহিলারা গর্ভবতী অবস্থায় স্মোক করেছেন তাদের বচ্চাদের ভিভিন্ন হার্টের সমস্যা দেখা দিতে পারে | কারন স্মোকিং এর ফলে HDL ((high-density lipoprotein) কমে গেছে | ৮ বছরের মধ্যেই দেখা গেছে যে মায়েরা স্মোক করেছেন তাদের বাচ্চাদের HDL লেভেল ১.৩ মিলিমোলস পার লিটার হয়ে গেছে আর যে মায়েরা স্মোক করেন নি তাদের বাচ্চাদের HDL লেভেল ১.৫ মিলিমোলস পার লিটার হয়েছে |

প্রেগন্যান্সির সময় বিভিন্ন জটিলতা দেখা দিয়েছে: শুধু এমনই নয় যে বাচ্চা জন্মনোর পর সমস্যা দেখা দিতে পারে | গর্ভবতী অবস্থায় বা ডেলিভারির সময়ও অসংখ্য সমস্যা দেখা দেয় | গর্ভবতী অবস্থায় সিগারেট খাওয়ার ফলে সিগারেতের ক্ষতিকর কেমিক্যালের প্রভাবে প্লাসেন্টার পর্দা ফেটে গিয়ে বাচ্চার অবস্থান বদলে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে | যে কারণে মিসক্যারেজ হওয়ার সম্ভাবনা কয়েকগুন বেড়ে যায় |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here