ব্রিটিশ রাজপরিবারে নতুন অতিথি‚ প্রাসাদে ভূমিষ্ঠ রানিমার প্রপৌত্র

অবশেষে সব জল্পনার অবসান। ভূমিষ্ঠ হল যুবরাজ হ্যারি ও মেগান মার্কেলের প্রথম সন্তান। সোমবারই সাসেক্সের ডিউক ও ডাচেসের পুত্রসন্তানের জন্ম হয়েছে। রানি এলিজাবেথের এই প্রপৌত্রের আগমনে রাজ পরিবারে খুশির হাওয়া।

বাকিংহাম প্যালেসের তরফ থেকে এই ঘোষণা করা হয়েছে। ওই ঘোষণায় বলা হয়েছে, ভোর ৫.২৬ মিনিটে মেগান মার্কেল শিশুটির জন্ম দিয়েছেন। শিশুটির ওজন ৭ পাউন্ড ৩ আউন্স। নবজাতকের নাম কী রাখা হল তা এখনই জানানো হবে না। প্যালেসের তরফে জানানো হয়েছে, শিগগিরি নামটি ঘোষণা করা হবে।

সম্ভবত নবজাতক দ্বৈত নাগরিকত্ব পাবে। রাজবধূ মেগান মার্কিন নাগরিক। তিনি ব্রিটিশ নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করেছেন।

মেগানের মা ডোরিয়া রাগল্যান্ড জানিয়েছেন তিনি তাঁর প্রথম নাতির জন্মের খবরে উচ্ছ্বসিত। ফ্রগমোর কটেজে তিনি রাজ পরিবারের বাকিদের সঙ্গে নবজাতকের জন্মের আনন্দ উদযাপনে ব্যস্ত।

উদযাপন শুরু হয়ে গিয়েছে দেশের অন্যত্রও। বিশেষ করে সুপার ফ্যানরা। অনেকেই আপাদমস্তক ইউনিয়ন জ্যাক পরে উৎসবে মেতেছেন। ব্রিটিশ সংবাদপত্রগুলি ‘লাইভ ব্লগ’-এৱ মাধ্যমে শিশুটির জন্মের সঠিক খবর নিশ্চিত করেছে। গত সপ্তাহান্ত ধরে টিভি ক্যামেরা বসানো ছিল উইন্ডসর ক্যাসলের বাইরে।

গত সপ্তাহেই জানা গিয়েছিল ‘বেবি সাসেক্স’ কোনও হাসপাতালে ভূমিষ্ঠ হবে না। ৩৭ বছরের মেগান তাঁদের ফ্রগমোর প্যালেসেই জন্ম দেবেন সন্তানের। তবে নিকটবর্তী হাসপাতালকেও ‘স্ট্যান্ডবাই’ রাখা হয়েছিল। শিশুর নাম কী রাখা হবে তা নিয়ে চলেছে বাজি ধরা। সবচেয়ে বেশি দর পেয়েছে ‘ডায়ানা’ ও ‘ভিক্টোরিয়া’ নাম দু’টি। কিন্তু পুত্রসন্তানের জন্মের ফলে এবার আলোচনায় উঠে আসবে ছেলেদের নাম।

প্রসঙ্গত, বাজিতে ছেলেদের নাম হিসেবে সবচেয়ে বেশি দর পেয়েছিল অ্যা‌লবার্ট ও ফিলিপ এই দু’টি নাম।

হ্যারি ও মেগান আগেই জানিয়ে দিয়েছিলেন, তাঁরা রাজ পরিবারের প্রচলিত ধারা মেনে নবজাতককে জন্মের অব্যবহিত পরেই জনসমক্ষে নিয়ে আসবেন না। নবজাতককে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে স্বাগত জানাবেন তাঁরা। পরে সময়মতো তাকে নিয়ে আসা হবে আমজনতার সামনে।

এখন দেখার কবে সেই মুহূর্ত আসে। আপাতত শিশুটির নাম ও কবে তাকে জনসমক্ষে দেখা যাবে, তাই নিয়েই জল্পনা ভক্তদের মধ্যে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

Please share your feedback

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nayak 1

মুখোমুখি বসিবার

মুখোমুখি— এই শব্দটা শুনলেই একটাই ছবি মনে ঝিকিয়ে ওঠে বারবার। সারা জীবন চেয়েছি মুখোমুখি কখনও বসলে যেন সেই কাঙ্ক্ষিতকেই পাই