জেনে রাখুন পান্তা ভাত খাওয়ার উপকারিতা

1677

কাঁচা পেঁয়াজ, লঙ্কা‚ অল্প একটু নুন সঙ্গে ডালের বড়া দিয়ে পান্তা ভাত খাওয়ার মজাই আলাদা | আগে পান্তা কে গরিব লোকের খাবার বলা হত | সেখান থেকেই ‘নুন আনতে পান্তা ফুরায়’ কথাটার প্রচলন হয়েছে | তবে তা এখন আর প্রযোজ্য নয় | গরমকালে বহু বাঙালি বাড়িতেই জলখাবারে পান্তা ভাত খাওয়ার চল আছে | পশ্চিম বাংলা‚ উড়িষ্যা‚ আসাম‚ ত্রিপুরা এবং বাংলাদেশে এ খাবারের প্রচলন চলে আসছে প্রাচীন কাল থেকে |

গরম ভাতের তুলনায় পান্ত ভাতে আয়রনের মাত্রা অনেক বেশি | তাই শরীরে রক্ত কম থাকলে পান্তা ভাত খেলে উপকার পাওয়া যাবে | এছাড়াও পান্তা ভাতে পটাশিয়াম ও ক্যালসিয়ামের পরিমাণও অনেক বেশি | অন্যদিকে ১০০ গ্রাম গরম ভাতে সোডিয়ামের মাত্রা থাকে ৮৭৫ মিলিগ্রাম | কিন্তু পান্তা ভাতে তা কমে ৩০৩ মিলিগ্রাম হয়ে যায় | এছাড়াও পান্তা ভাত ভিটামিন বি-৬ এবং ভিটামিন বি-১২ এর ভালো উৎস |

পান্তা ভাত যেহেতু জলে ভেজানো থাকে তাই তাতে অনেক ব্যাকটেরিয়ার জন্ম হয় | এই ব্যাকটেরিয়া কিন্তু শরীরের জন্য বেশ উপকারী | এই উপকারী ব্যকটেরিয়া খাবার হজম করতে সাহায্য করে এবং বহু রোগ প্রতিরোধ করে | এছাড়াও নিয়মিত পান্তা ভাত খেলে হাড় ও পেশি মজবুত হয় | একই সঙ্গে বার্ধক্য প্রতিরোধ করে পান্তা | 

পান্তাভাতের আরও অনেকে গুণাগুণ আছে যেমন :

১) পান্তাভাত খেলে শরীর হালকা থাকে |

২) শরীরে বহু উপকারী ব্যাকটেরিয়ার জন্ম হয় |

৩) পেটের সমস্যা কমে‚ শরীরের তাপের ভারসাম্য বজায় থাকে |

৪) কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে |

৫) রক্তচাপ স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করে |

৬) অঙ্গ প্রতঙ্গ সজীব রাখে |

৭) শরীরের অ্যালার্জি জনিত সমস্যা কম করতে সাহায্য করে |

৮) আলসার দূরে রাখে |

৯) শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় |

১০) মেজাজ ভালো রাখে |

Advertisements

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.