বেডসোর নিরাময়ে কার্যকর কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি

211

যেসব মানুষরা হাঁটাচলা করার ক্ষমতা হারান দীর্ঘদিন বিছানায় শুয়ে থাকতে থাকতে তাদের দেহে দেখা যায় বেডসোর বা শয্যাক্ষত | দীর্ঘসময় একইভাবে থাকতে থাকতে ত্বকের উপর চাপ পড়ায় বেডসোর হয় | চাপ পড়া অংশে রক্ত চলাচলে সমস্যা দেখা যায় | ফলে ক্ষতের সৃষ্টি হয় | কনুই‚ পায়ের গোড়ালি‚ পশ্চাদ্দেশ ও পিঠে বেডসোর হতে পারে | বেডসোর নিরাময়ের কয়েকটি ঘরোয়া উপায় সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক |

১| বেডসোর সারাতে হলে ক্ষতস্থানটি নিয়মিত ধুতে হবে | সাধারণভাবে নুন জল দিয়ে বেডসোরের ক্ষতর অংশটি ধুয়ে নেওয়া যায় | বেশি বাড়াবাড়ি হলে কিন্তু অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে | 

২| হলুদ বেডসোর নিরাময়ে সহায়তা করে | এতে থাকা কারকিউমিন ক্ষত সারাতে সহায়ক | হলুদ বেটে নিয়ে বেডসোরের অংশে লাগাতে পারেন | বা হলুদ গুঁড়ো অল্প জলে গুলে নিয়েও লাগাতে পারেন ওই অংশে | উপকার পাবেন |

৩| একজায়গায় দীর্ঘদিন ক্রমাগত চাপ পড়ার ফলেই বেডসোর হয় তাই বেডসোর হওয়া যায়গাটিতে যাতে বেশি চাপ না পড়ে সেদিকে খেয়াল রাখুন | রোগী বা বয়স্ক মানুষ বিছানা থেকে উঠতে না পারলেও মাঝে মাঝে তাঁদের শোয়ার অবস্থান পাল্টে দেওয়ার চেষ্টা করুন | নিরাময় হবে |

৪| বেডসোরে উপকারী বিশেষ বালিশ বা গদি পাওয়া যায় যা বেডসোর হওয়া জায়গায়টিকে চাপ পড়া থেকে মুক্ত রাখে | রোগী বা বয়স্ক মানুষটিকে এই গদিতে শুইয়ে বালিশ দিয়ে ভাল করে আরামদায়ক ভাবে শুইয়ে দিন |

৫| বেডসোরের ফলে ক্ষতযুক্ত জায়গায় ঘা হয়ে গেলে সেখানে চিনির দানা বা চিনি গাড় করে গুলে লাগিয়ে দিত পারেন | চিনি ঘায়ের ভিতরকার তরল শুষে নেবে ও নিরাময়ে সহায়তা করবে | ব্যাকটেরিয়া মুক্ত করতেও সাহায্য করবে |

৬| বেডসোরের একটি বড় কারণ হল ত্বকের মৃত কোষের জমতে থাকা | তাই বেডসোরের ক্ষতস্থান থেকে নিয়মিত মৃত কোষ দূর করা খুবই জরুরি | পেঁপে কেটে বেডসোরের ক্ষতস্থানে লাগাতে পারেন | পেঁপেতে থাকা পাপাইন উৎসেচকটি মৃত কোষ দূর করতে সাহায্য করে | এতে বেডসোর নিরাময় হতে সাহায্য হবে |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.