দোলের রঙে রাঙা হয়ে ওঠার পর, ত্বকের পাশাপাশি নিন চুলের বাড়তি যত্ন!

উৎসবের গন্ধে মেতে দোল খেলা শুরু হয়ে গেছে পুরোদমে! রঙে রঙিন হয়ে ওঠার পর চুলের জন্য কী কী সুরক্ষার ব্যবস্থা করতে হবে, জানেন তো? পাশাপাশি যাঁদের সংবেদনশীল ত্বক, বাড়তি সাবধানতা নিতে হবে তাঁদেরও। দোলের রং চুলে বসে গেলেই হতে পারে সমস্যা৷ তাই রং খেলে যতই ক্লান্ত থাকুন, আগে ত্বকের পাশাপাশি চুলও ভালোভাবে পরিষ্কার করে তবেই অন্য কাজে হাত দিন৷

দোলের রঙের হাত থেকে বাঁচতে প্রয়োজনে চুলটা বিনুনি করে গুটিয়ে বেঁধে নিন। আমন্ড অয়েলে পর্যাপ্ত ভিটামিন ই থাকে যা ত্বক আর চুলে একটা সুরক্ষার আস্তর তৈরি করে দেয়। তাই রং খেলার আগে ব্যবহার করুন ভিটামিন ই সমৃদ্ধ তেল। বাড়তি সুরক্ষার জন্য মাথায় একটা স্কার্ফ বা ওড়নাও জড়িয়ে রাখুন। এতে চুলের গোড়ায় গোড়ায় রং বসতে পারবে না।

দোল খেলার পর শ্যাম্পু করার আগে প্রথমে জল দিয়ে বারবার করে চুল ধুয়ে ফেলুন। যতক্ষণ না চুল থেকে সমস্ত রং ধুয়ে পরিষ্কার হয়ে যাচ্ছে। সমস্ত রং বেরিয়ে পরিষ্কার জল দেখতে পেলে তারপর শ্যাম্পু আর কন্ডিশনিংয়ের ব্যবহার করুন।

অনেকেরই দোল খেলার পর চুল ভীষণ রুক্ষ হয়ে যায়। তাই প্রয়োজনে হেয়ার মাস্ক সারারাত লাগিয়ে রেখে দিন। পরের দিন শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ডিপ কন্ডিশনিং করে নিন।

দোল খেলার পর অনেকেরই অসম্ভব মাথা চুলকোতে থাকে। তাঁরা আগের পরামর্শ অনুযায়ী চুল ধুয়ে শ্যাম্পু করার পর এক মগ জলে দু’চামচ ভিনিগার মিশিয়ে মাথা আর চুল ধুয়ে নিন। এরপর আর জল দেবেন না। কিন্তু তাতেও চুলকানি না কমলে অবশ্যই চিকিত্সকের পরামর্শ নিন।

দোলের রঙের প্রভাব বেশ কিছুদিন থেকে যায়। চুল নরম করে তুলতে অন্তত কয়েক সপ্তাহ নিয়মিত চুলে তেল লাগান। রুক্ষতা কমে গিয়ে আগের মত চুল উজ্জ্বল হয়ে উঠবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here