ডায়বেটিসের জন্য আমলকি কতখানি উপকারী? – জেনে নিন

আয়ুর্বেদিক শাস্ত্রে বহু প্রাচীন কাল থেকেই গুরুত্বপূর্ণ ওষধি হিসেবে আমলকির ব্যবহারের কথা বলা হয়ে আসছে | ত্বকের‚ চুলের স্বাস্থ্য ভাল রাখতে এবং ওজন কমানোর ক্ষেত্রেও আমলকির কার্যকারিতা রয়েছে | সাধারণত আমলকি কাঁচাই খাওয়া হয় | তাছাড়াও মোরব্বা হিসেবে অথব গুঁড়ো হিসেবেও খাওয়া যায় | ভিটামিন সি ছাড়াও আমলকিতে রয়েছে ক্যালশিয়াম‚ আয়রন‚ ফসফরাস ও ক্রোমিয়ামের মত গুরুত্বপূর্ণ মিনারেল বা খনিজ পদার্থ | অনেক গুণের মধ্যে আমলকির আরেকটি গুণ হল ডায়বেটিসের নিয়ন্ত্রণ রাখার ক্ষেত্রে উপকারে আসা |

 স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে আমলকিতে আছে ভিটামিন সি এবং এমন কিছু গুরুত্বপূর্ণ উপাদান যা ত্বক ভাল রাখতে সাহায্য করে | গাট মাইক্রোবাইমকে শক্তিশালী করে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর ক্ষেত্রে আমলকির উপকারীতা রয়েছে | রক্তে শর্করা বা সুগারের পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখার ক্ষেত্রে সহায়তা করে | শরীর থেকে ক্ষতিকারক টক্সিন দূর করতে সাহায্য করে এবং সেলুলার মেটাবলিজমের নিরাময় করে যার ফলে ডায়বেটিস নিয়ন্ত্রণে সুবিধা হয় |

আয়ুর্বেদ বিশেষজ্ঞর মতে আমলকিতে থাকা অ্যাবসরবিক অ্যাসিড‚ ট্যানিন‚ পলিফেনলের মত অ্যান্টিঅক্সিডেন্টগুলি লিভারের লিপিড ও ট্রিগ্লাইসেরাইড কমাতে সাহায্য করে এবং মেটাবলিজম বাড়ায়‚ যার ফলেও ডায়বেট্স নিয়ন্ত্রণে থাকে |

আমলকির ক্রোমিয়াম প্যানক্রিয়াটিস ভাল রাখতে সাহায্য করে | প্যানক্রিয়াটিস থেকেই ইনসুলিন উৎপন্ন হওয়ায় ক্রোমিয়াম পরোক্ষভাবে ডায়বেটিস নিয়ন্ত্রণেও সহায়তা করে | কার্বোহাইড্রেট মেটাবলিজম নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে এবং শরীরকে ইনসুলিনের প্রতি আরও বেশি প্রতিক্রিয়াশীল করে তুলতেও সাহায্য করে 

আমলকিতে ক্যালোরির পরিমাণ খুবই কম যা আপনাকে ওজন নিয়ন্ত্রণেও সহায়তা করবে | অতিরিক্ত ক্যালোরি গ্রহণের ফলে শরীর ওজন বাড়তে থাকে যার ফলে শরীরের ইনসুলিনের প্রতিক্রিয়াশীলতা কমে যেতে থাকে | ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারলেই ডায়বেটিসও নিয়ন্ত্রণে রাখা সহজ হবে |

অতিরিক্ত ব্লাড সুগার থেকে যে অক্সিডেটিভ স্ট্রেস হয় তা নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে আমলকিতে থাকা পলিফেনল |

শরীরের ইনসুলিন শোষণ ক্ষমতা বাড়াতেও সাহায্য করে আমলকি |

কাঁচা‚ শুকনো‚ গুঁড়ো অথবা মোরব্বা  যেকোনওভাবেই আপনি আমলকি খেতে পারেন | খাবারের উপর ছড়িয়ে নিতে পারেন আমলকির গুঁড়ো‚ বেশ টক টক একরকমের স্বাদ পাবেন | অথবা রোজ সকালে খালি পেটে আমলকির রস করে খেয়ে নিন | যদি আপনি ডায়বেটিক রোগী হন এবং সুগার কমানোর জন্য ওষুধ খান তবে আমলকি খাওয়ার আগে অবশ্যই ডাক্তারকে জানাবেন | কারণ একদিকে সুগার কমানোর ওষুধ আর অন্যদিকে আমলকি খেলে আপনার রক্তে সুগারের মান অতিরিক্ত কমে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়তে পারেন | আমলকি খাওয়ার আগে তাই অতি অবশ্যই একবার ডাক্তারকে জানিয়ে রাখবেন |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here