হোয়াটস অ্যাপে ভিডিওটা দেখে শিরদাঁড়া দিয়ে হিমস্রোত বয়ে গেল উত্তরপ্রদেশের শাহজাহানপুরের এক যুবকের | ভিডিওয় দেখলেন তার বোন সিলিং ফ্যান থেকে ঝুলছে | সম্পূর্ণ অচৈতন্য | দেখেই বোঝা যাচ্ছে যথেচ্ছ নিগ্রহের শিকার | ভিডিওটি পাঠিয়েছে তার বোনের স্বামী স্বয়ং | সঙ্গে হুমকি‚ পণের টাকা না পাঠালে মেরেই ফেলা হবে বোনকে | 

Banglalive

এখন ওই তরুণী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন | সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন‚ তাঁর স্বামী বাবা মায়ের কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা আনতে বলে যৌতুক স্বরূপ | বারবার বলা সত্ত্বেও তরুণী রাজি হয়নি | মাশুলস্বরূপ শুরু হয় পৈশাচিক অত্যাচার | অভিযোগ‚ টানা তিন চার ঘণ্টা বেল্ট দিয়ে মারা হয় তাঁকে | সহ্য করতে না পেরে এক সময় অজ্ঞান হয়ে পড়েন | এরপর অজ্ঞান অবস্থায় তাঁর দুপাট্টা দিয়ে তাঁকে ঝুলিয়ে দেওয়া হয় সিলিং ফ্যানে | পুরো ঘটনাই ভিডিও করা হয় মোবাইলে |

তরুণীর বক্তব্য‚ সে লেখাপড়া জানে না বলেই এই দুরবস্থা | তার স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির সদস্যদের বিরুদ্ধে জারি হয়েছে মামলা | তবে কাউকেই গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি | কারণ সবাই পলাতক | ভিডিওটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে ইন্টারনেটে | পুলিশ জানিয়েছে ক্লিপটিতে দেখা যাচ্ছে একজন স্বামী নির্দয় ভাবে তার স্ত্রীকে মারছে | 

পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে অভিযুক্তদের গ্রেফতারের জন্য সবরকম চেষ্টা চলছে |

আরও পড়ুন:  ১০ বছর আগে মায়ের বিয়েতে কোন কাজটা করতে গিয়ে তিনি ঘেমেনেয়ে বিপর্যস্ত হয়েছিলেন‚ জানিয়েছেন নীনাকন্যা মাসাবা

NO COMMENTS