‘অনুপ্রবেশকারী’ মাকে তল্লাশি‚ আতঙ্কে দিশেহারা শিশুর কান্নার ছবি পুরস্কৃত

মা আর শিশুকে আটক করে তল্লাশি করছে যুক্তরাষ্ট্রের সীমান্ত কর্মকর্তারা, আতঙ্কে চিৎকার করে কাঁদছে একরত্তি শিশু। বৃহস্পতিবার এই ছবিটিই জিতল ওয়ার্ল্ড প্রেস ফটো পুরস্কার। অভিযোগ‚ হন্ডুরাসের মা সান্দ্রা সানচেজ এবং তার মেয়ে ইয়েনেলা অবৈধভাবে মার্কিন-মেক্সিকো সীমান্ত অতিক্রম করে ফেলেছিল। তখন সেখানে আটক করা হচ্ছিল অবৈধ প্রবেশকারীদের। আর এসময় ভয়ে-আতঙ্কে শিশুটি কাঁদছিল। গেটি ইমেজেসের জন মুরের তোলা এই ছবিটি গত বছর হিংস্রতার এক অন্যরূপ দেখিয়েছিল গোটা বিশ্বকে।

জানা যায়, গত বছর বারো জুন রিও গ্র্যান্ডে উপত্যকায় এক অমাবস্যার রাতে ফোটোগ্রাফার মুরে ইউএস
সীমান্তরক্ষীদের ছবি তুলছিলেন। সেখানেই সীমান্ত অতিক্রম করার চেষ্টা করেছে এমন এক গোষ্ঠীর দেখা মেলে। মার্কিনি ন্যাশনাল পাবলিক রেডিও সম্প্রচারকারীর এক সাক্ষাৎকারে মুরে বলেন, “আমি ওদের চোখে-মুখে ভয় দেখতে পাচ্ছিলাম।” কর্মকর্তারা এক এক করে ওদের নাম জানাতেই, মুরে বলেন যে সে স্যান্দ্রা সানচেজ এবং তার বাচ্চাটিকে একপাশে দাঁড়িয়ে কাঁদতে দেখেন। মুরে এক দশক ধরে আমেরিকা-মেক্সিকো সীমান্তে কাজ করছেন। তিনি বলেন, “আমি হাঁটু গেড়ে বসে যাই, কয়েক মুহূর্তের মধ্যে খুব অল্প ফ্রেমে ওই ছবিটা ওঠে।”

একান্ন বছর বয়সী ফটোগ্রাফার বলেন, “আমি মনে করি এ ধরনের সমস্যা, কেবল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নয়, সারা বিশ্বের। বিশ্বজুড়ে ৪,৭৩৮ জন ফটোগ্রাফারের তোলা ৭৮,৮০১টি ছবির মধ্যে থেকে এই ছবিটি এই বছরের বিজয়ী নির্বাচিত হয়েছে।”

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

Please share your feedback

Your email address will not be published. Required fields are marked *

pakhi

ওরে বিহঙ্গ

বাঙালির কাছে পাখি মানে টুনটুনি, শ্রীকাক্কেশ্বর কুচ্‌কুচে, বড়িয়া ‘পখ্শি’ জটায়ু। এরা বাঙালির আইকন। নিছক পাখি নয়। অবশ্য আরও কেউ কেউ