ফ্রিজে রাখলে নষ্ট হয়ে যায় এইসব খাবারের পুষ্টিগুণ

ফ্রিজ আমাদের কাছে প্রযুক্তিবিদ্যার এক আশীর্বাদ | ফ্রিজ যখন আবিষ্কৃত হয়নি তখন অতিরিক্ত খাবারগুলি পচে নষ্ট হত | কিন্তু ফ্রিজ আমাদের আয়ত্তের মধ্যে আসার পর অতিরিক্ত খাবারগুলিকে আমরা বেশ কয়েকদিন পর্যন্ত স্বাস্থ্যকর রাখতে পারি | তাই বাড়িতে একটা ফ্রিজ না হলে মোটেই চলে না | মাছ‚ মাংস বা দুধের নানা জিনিসকে তাজা রাখতে হলে ফ্রিজ তো অবশ্যই দরকার | কিন্তু জানেন কি এমন কিছু খাবার আছে যা ফ্রিজে রাখলে আদতে নষ্ট হয়ে যায় তাদের খাদ্যগুণ ? আমাদের অনেকেরই অজানা অথচ রোজের ব্যবহৃত কিছু খাদ্য উপাদান রয়েছে যাদের গুণগত ও পুষ্টিগত মান বজায় রাখতে হলে সেগুলিকে ফ্রিজে না রাখাই ভাল | আসুন জেনে নেওয়া যাক কী সেই খাবারগুলি |

১| আমরা অনেকেই জানিনা যে আলু ফ্রিজে রাখলে নষ্ট হয় তার পুষ্টিগুণ | কোনও অন্ধকার ও ঠান্ডা জায়গায় আলু রাখলে আলু ভাল থাকে | কিন্তু ফ্রিজে রাখলে আলুতে থাকা স্টার্চ ভেঙে যেতে থাকে | আলুর স্টার্চ ক্রমশ সুগারে পরিণত হয়ে যেতে থাকে ফ্রিজের ঠান্ডায় | ফলে আলুর স্বাদ‚ রং ও পুষ্টিগত মান কমে যায় | তাই এবার থেকে আলু ফ্রিজে না রাখারই চেষ্টা করুন |

২| পেঁয়াজও ফ্রিজে থাকলে তার পুষ্টিগত মান কমে যায় | সরাসরি রোদ পড়ে এমন জায়গায় পেঁয়াজ না রেখে একটু ছায়া আছে এমন কোনও জায়গায় স্বাভাবিক তাপমাত্রায় রাখলেই গোটা পেঁয়াজ ভাল থাকে | পেঁয়াজ কাটার পরে প্লাস্টিকের মধ্যে ভরে প্লাস্টিকটা সিল করে ফ্রিজের শাকসব্জি রাখার জায়গায় রেখে দিতে পারেন |

৩| ফ্রিজে রাখলে রসুনেরও পুষ্টিগত মান কমে যায় | কোনও শুকনো ও ঠান্ডা জায়গায় কন্টেনারের মধ্যে ভরে কন্টেনারের মুখটি খুলে রাখলে রসুনের স্বাদ‚ পুষ্টি অক্ষত থাকে | কাগজের ঠোঙা রসুন রাখার জন্য আদর্শ |  কিন্তু রসুন একবার  ছাড়িয়ে ফেলে রেখে দিলে আস্তে আস্তে তা পচতে শুরু করবে | তাই রসুন গোটা রাখাই ভাল |

৪| ফ্রিজে রাখা উচিৎ নয় গোটা তরমুজ | ফ্রিজে রাখলে তরমুজে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ক্ষতিগ্রস্ত হয় | স্বাভাবিক তাপমাত্রায় তরমুজ রাখলে তার পুষ্টিগুণ বজায় থাকে | তবে কাটা তরমুজ ৩ থেকে ৪ দিন অবধি ফ্রিজে রাখা যেতে পারে |

৫| মধু ফ্রিজে রাখলে জমাট বেঁধে যায় | দানা দানা মত হয়ে যায় | জমে যাওয়া মধুর কৌটো বা বোতলটিকে গরম জলে ডুবিয়ে রাখলে আবার তরল আকারে ফিরে আসে | স্বাভাবিক তাপমাত্রায় মধু বহুদিন পর্যন্ত টাটকা থাকতে পারে |

৬| পাঁউরুটি ফ্রিজে রাখলে নষ্ট হয়না ঠিকই কিন্তু ঠান্ডায় থাকলে পাঁউরুটি শক্ত হয়ে যায় | ফলত পাঁউরুটির কোমল স্বাদ পাওয়া যায় না | পাঁউরুটিতে খুব তাড়াতাড়ি ফাঙ্গাস ধরে যাওয়ায় পচে যায় | তবে পাঁউরুটিকে তাজা ও নরম রাখতে হলে ফ্রিজে না রাখাই ভাল |

৭| বাদামের মধ্যে থাকে বহু পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ তেল | কিন্তু ফ্রিজে রাখলে বাদামের ভিতরকার তেল শুকিয়ে যায় | বাদামের যথাযথ স্বাদও পাল্টে যায় | ফ্রিজের অন্যান্য খাবার থেকে গন্ধ শুষে নেয় বাদাম‚ ফলত বাজে গন্ধও হয়ে যায় তাতে | বাদামের স্বাদ ও পুষ্টি সম্পূর্ণভাবে উপভোগ করতে হলে এয়ারটাইট কন্টেনারে ভরে স্বাভাবিক তাপমাত্রায় রেখে দেওয়াই ভাল | ফ্রিজে রাখা বাদামের আসল স্বাদ পেতে হলে খাওয়ার আগে সামান্য তাপে ভেজে নিন সেই বাদাম |

৮| আমরা অনেকেই জানিনা যে কফির উপকরণ বা মান সামান্য পরিবর্তিত হলেও  স্বাদে ঠিক কতখানি পার্থক্য হতে পারে | যাঁরা ফ্রিজে রাখা কফি খান তাঁরা কফির আসল স্বাদ কখনওই পাননি | কফি ফ্রিজে রাখলে কফির বিন বা গুঁড়োর গায়ে জলের একটি আস্তরণ পড়ে যায় যার জন্য কফির স্বাদ বদলে যায় | কফির আসল স্বাদ পেতে হলে এয়ারটাইট কন্টেনারে ভরে স্বাভাবিক তাপমাত্রায় রেখে দিন কফি | পার্থক্য নিজেই উপলব্ধি করতে পারবেন |

৯| ফ্রিজে রাখার থেকে স্বাভাবিক তাপমাত্রাই টমেটো রাখার পক্ষে ভাল | ফ্রিজে টমেটো রাখলে টমেটোর স্বাদ এবং রং দুটোই পাল্টে যায় | কাঁচা থাকলে টমেটো রোদ আসে এমন জায়গায় রেখে দিন | পাকা বা বেশি পেকে যাওয়া টমেটো যত তাড়াতাড়ি সম্ভব রান্না করে নিয়ে তারপর ফ্রিজে রেখে দিতে পারেন |

১০| ফ্রিজে রাখলে আপেলের বিশেষ ক্ষতি না হলেও মুচমুচে ভাব হারিয়ে যায় | তাজা ফল মুচমুচে হলে খেতে আরও ভাল লাগে | আপেলের মুচমুচে ভাব বজায় রাখতে ফ্রিজে না রেখে খোলা জায়গায় রেখে দেওয়াই ভাল | তবে ফ্রিজে থাকলে আরও কয়েকদিন ভাল থাকতে পারে আপেল |

তাহলে দেখলেন তো কোন খাবারকে কীভাবে রাখলে তাদের স্বাদ ও পুষ্টিগুণ অপরিবর্তিত রাখা যায় | তাহলে আর দেরি কেন‚ মেনে চলার চেষ্টা করুন এই উপায়গুলি | টাটকা রাখুন খাবার |

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.