ভারতবাসী সুখহীন নিশিদিন‚ দাবি সমীক্ষায়

ভারতবাসী সুখহীন নিশিদিন‚ দাবি সমীক্ষায়

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

২০ মার্চ দিনটি সারা পৃথিবী জুড়ে ‘বিশ্ব সুখ দিবস’ হিসেবে পালিত হয়।  বিশ্বের কোন দেশের মানুষ কতটা সুখে আছেন, একটি সমীক্ষা চালিয়ে তার একটি রিপোর্ট পেশ করেছে রাষ্ট্রপুঞ্জ, যা ওয়ার্ল্ড হ্যাপিনেস রিপোর্ট নামেও পরিচিত। এই রিপোর্ট অনুযায়ী বিশ্বের সবথেকে সুখী দেশ হল ফিনল্যান্ড। তালিকার উপরের দিকে ফিনল্যান্ডের পরেই রয়েছে ডেনমার্ক, নরওয়ে, আইসল্যান্ড, নেদারল্যান্ড, সুইৎজারল্যান্ড, সুইডেন, নিউজিল্যান্ড, কানাডা এবং অস্ট্রিয়ার নাম।

সমীক্ষা বলছে দিনে দিনে সুখ কমেছে ভারতে। ১৫৬টি দেশের মধ্যে তালিকায় ১৪০ নম্বরে নাম রয়েছে ভারতের। রাষ্ট্রপুঞ্জের রিপোর্টে দেখা গিয়েছে দিনে দিনে সুখী হওয়ার তালিকায় ক্রমশ পিছিয়ে যাচ্ছে ভারত। ওয়ার্ল্ড হ্যাপিনেস রিপোর্ট অনুসারে দেখা গিয়েছে, সুখী দেশের তালিকায় ২০১৫ সালে ভারতের স্থান ছিল ১১৭, ২০১৬ সালে ছিল ১১৮ নম্বরে, ২০১৭-তে ছিল ১২২-এ, ২০১৮তে ছিল ১৩৩-এ। আর এবার আরও সাত ধাপ পিছিয়ে ভারতের স্থান ১৮০ নম্বরে। জনসংখ্যা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে ভারতের সুখী হওয়ার মান কমেছে-এমনটাই জানাচ্ছে রিপোর্ট।

প্রসঙ্গত, মানুষের গড় আয়ু, সামাজিক অবস্থান, আয়, স্বাস্থ্য, স্বাধীনতা ইত্যাদি বিষয়ের ওপর ভিত্তি করে একটি দেশ কতটা সুখী তা নির্ধারণ করা হয়। তবে ভারতের প্রতিবেশী দেশগুলির মধ্যে বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান, নেপাল, ভুটান, চিন সকলেরই অবস্থান ভারতের উপরে। তালিকায় ৬৭-তে নাম রয়েছে পাকিস্তানের, ৯৩ নম্বরে রয়েছে চিন, ভুটান রয়েছে ৯৫ নম্বরে, নেপালের নাম রয়েছে ১০০-তে, ১২৫-এ রয়েছে বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কার নাম রয়েছে ১৩০-এ।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

Leave a Reply

Handpulled_Rikshaw_of_Kolkata

আমি যে রিসকাওয়ালা

ব্যস্তসমস্ত রাস্তার মধ্যে দিয়ে কাটিয়ে কাটিয়ে হেলেদুলে যেতে আমার ভালই লাগে। ছাপড়া আর মুঙ্গের জেলার বহু ভূমিহীন কৃষকের রিকশায় আমার ছোটবেলা কেটেছে। যে ছোট বেলায় আনন্দ মিশে আছে, যে ছোট-বড় বেলায় ওদের কষ্ট মিশে আছে, যে বড় বেলায় ওদের অনুপস্থিতির যন্ত্রণা মিশে আছে। থাকবেও চির দিন।