মাসির বাড়ি থেকে ফেরার পথে একবারই থামে জগন্নাথ-বলরাম-সুভদ্রার রথ‚ এই কারণে…

Jagannath Rathyatra

আকাশে মেঘ | আবার বঙ্কিমী বালিকার রথের মেলায় ফুলের মালা বেচতে গিয়ে পথ হারাবার দিন | নীলাচলে জগন্নাথদেবের রথযাত্রা | বাঙালির দুর্গোৎসবের নান্দীমুখ | রথের রশিতে হাত দিন বা না দিন‚ এই পুণ্যলগ্নে কিছু তথ্য উৎসবকে ঘিরে |

# রথযাত্রার দিন পুরীতে বৃষ্টি হবেই হবে | আজ অবধি এমন একটা বছরও যায়নি যেদিন রথযাত্রায় পুরীতে এক ফোঁটা অন্তত বৃষ্টি পড়েনি |

# জ্যৈষ্ঠ পূর্ণিমায় স্নানযাত্রার পরে এক পক্ষকাল বিশ্রাম | তারপর নতুন রঙের প্রলেপ নিয়ে গুণ্ডিচ্চা মন্দিরে মাসির বাড়ি যাত্রা | জগন্নাথ বলভদ্র ও সুভদ্রার |

# রীতি অনুযায়ী পুরীর জগন্নাথ মন্দিরে প্রবেশ করতে পারেন না অহিন্দুরা | যতই ভক্তি থাক না কেন‚ হিন্দু না হলে ফিরে আসতে হবে মন্দিরের দক্ষিণ দ্বার থেকেই | একমাত্র রথযাত্রার দিনেই ধর্ম-বর্ণের বেড়াজাল ভেঙে আপামর ভক্ত দেবদর্শন করতে পারেন |

# জগন্নাথদেবের রথের নাম নন্দীঘোষ | বলভদ্রের রথ তালধ্বজ | সুভদ্রার রথ দেবদলন |  ৪৫.৬ ফিট উঁচু নন্দীঘোষের চাকা সংখ্যা ১৮ টি |  তালধ্বজের চক্র আছে ১৬ টি‚ উচ্চতা ৪৫ ফিট | দেবদলনের চাকা ১৪ টি‚ ৪৪.৬ ফিট উঁচু |

# প্রতি বছর তৈরি হয় নতুন রথ | তবে বিশেষত্ব এক চুলও স্থানচ্যুত হয় না | রথযাত্রা কিন্তু সহজেই শুরু হয় না | অগণিত ভক্ত বহু চেষ্টা করলে তবে তিল তিল করে এগোয় রথ |

# পুরীর রাজা নিজে এসে সোনার ঝাঁটা দিয়ে পথের ধুলো পরিষ্কার করলে তবেই মন্দির থেকে বের করা হয় দেব বিগ্রহদের |

# নয় দিন পরে উল্টোরথে মাসির বাড়ি থেকে আবার মন্দিরে ফিরে আসেন জগন্নাথ দেব | ভাই-বোনকে নিয়ে | পথে একবারই থামে তাঁদের রথ | কেন জানেন রথ থামিয়ে প্রিয় মিষ্টি পোড়া পিঠে খান জগন্নাথ-বলভদ্র-সুভদ্রা |

Advertisements

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.