নিমন্ত্রিতদের জন্য ৫০ টি বিমান‚ ১০০০ গাড়ি‚ ৮০ জন আলোকচিত্রী ! ঈষা আম্বানির প্রাক-বিয়ে উদযাপনেই চক্ষু চড়কগাছ

নিমন্ত্রিতদের জন্য ৫০ টি বিমান‚ ১০০০ গাড়ি‚ ৮০ জন আলোকচিত্রী ! ঈষা আম্বানির প্রাক-বিয়ে উদযাপনেই চক্ষু চড়কগাছ

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

২০১৬ এর শেষে মুকেশ আম্বানির তরফ থেকে সেরা আকর্ষণ ছিল জিও, আর ঠিক তাঁর দুই বছরের মধ্যেই নতুন চমক দিতে চলেছেন আম্বানি পরিবার । আম্বানিকন্যা সাত পাকে বাঁধা পড়তে চলেছেন আগামী ১২ ডিসেম্বর । বিয়ের কার্ড আগেই ভাইরাল হয়েছে সর্বত্র । এবার মূল পর্বের পালা । আর তার শুরুতেই প্রি-ওয়েডিং-এই প্রস্তুতি তুঙ্গে ।

৮ ও ৯ নভেম্বর উদয়পুরেই নাকি আম্বানি কন্যা ঈষা ও আনন্দ পিরামল এর প্রি ওয়েডিং পালন করা হবে । আর সেই কারণেই ৫০টি বিমান শুধু তাঁদের নিমন্ত্রিতদের আনা নেওয়ার জন্য কাজে লাগানো হবে । এছাড়া সকলকে উদয়পুর ঘুরিয়ে দেখানোর জন্য এক হাজার গাড়ির ব্যবস্থা করা হয়েছে । তাঁর তালিকায় রয়েছে বহু বিএমডব্লিউ, জ্যাগুয়ার, পোর্শে ও মার্সিডিজ ।

এতেই শেষ নয়, সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, উদয়পুর লেক পিচোলার ঘাটে একটি বিলাসতরীর আয়োজন করা হয়েছে যেখানে রাখা থাকবে আম্বানিদের আরাধ্য দেবতা শ্রীনাথের বিগ্রহ । শুধুমাত্র এই অনুষ্ঠানের জন্যই আনা হবে দেশ বিদেশ থেকে মোট ৮০ জন ফটোগ্রাফার । ইতিমধ্যেই উদায়পুরের সবকটি পাঁচতারা হোটেল বুক করে ফেলেছেন আম্বানি ও পিরামল পরিবার।

এই পর্বে নানা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে । স্থানীয় পুতুল নাচ থেকে শুরু করে হস্তশিল্পের আয়োজনও রয়েছে বিশেষভাবে । এছাড়া মার্কিন পপ তারকা বিয়ন্সেরও পারফর্ম করার কথা রয়েছে এই অনুষ্ঠানে । উদয়পুরের এই অনুষ্ঠানের পরেই মুম্বইয়ে চলবে তাদের আরও ৪ দিনের অনুষ্ঠান । ২ দিন জুড়ে অনুষ্ঠিত হবে তাঁদের রিসেপশন পার্টি।

এ বার কোন চমকে মুগ্ধ হতে চলেছে সকলে সেটাই দেখা যাবে আগামী ৮ থেকে ১২ ডিসেম্বর ।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on whatsapp

2 Responses

Leave a Reply

Handpulled_Rikshaw_of_Kolkata

আমি যে রিসকাওয়ালা

ব্যস্তসমস্ত রাস্তার মধ্যে দিয়ে কাটিয়ে কাটিয়ে হেলেদুলে যেতে আমার ভালই লাগে। ছাপড়া আর মুঙ্গের জেলার বহু ভূমিহীন কৃষকের রিকশায় আমার ছোটবেলা কেটেছে। যে ছোট বেলায় আনন্দ মিশে আছে, যে ছোট-বড় বেলায় ওদের কষ্ট মিশে আছে, যে বড় বেলায় ওদের অনুপস্থিতির যন্ত্রণা মিশে আছে। থাকবেও চির দিন।